scorecardresearch
 
 

দ্বিতীয় বিয়ে করতে যাচ্ছিল, প্রথম পক্ষের পরিবারের বিক্ষোভের মুখে পাত্র

প্রায় ৩ বছর আগে একবার বিয়ে করে ওই ব্যক্তি। কিন্তু নিজের স্ত্রীয়ের বনিবনা ছিল না তার। স্ত্রীয়ের ওপরে অত্যাচার করত বলেও অভিযোগ। এরপর বিবাহ বিচ্ছেদের মামলা দায়ের হয়। অভিযোগ, সেই মামলা নিষ্পত্তি হওয়ার আগেই রবিবার দ্বিতীয়বার বিয়ের পরিকল্পনা করে ওই ব্যক্তি।

প্রতীকী ছবি প্রতীকী ছবি
হাইলাইটস
  • বিবাহ বিচ্ছেদের আগেই ফের বিয়ের চেষ্টা
  • কোচবিহারে বিক্ষোভের মুখে পাত্র
  • পুলিশের হস্তক্ষেপে নিয়ন্ত্রণে পরিস্থিতি

দ্বিতীয়বার বিয়ে করতে রওনা হয়ে প্রথম পক্ষের স্ত্রীয়ের পরিবারের বিক্ষোভের মুখে পড়ল পাত্রপক্ষ। কোচবিহারের মেখলিগঞ্জের (Cooch Behar Mekhliganj) ঘটনা। বিক্ষোভের মাঝেই পালিয়ে যায় অভিযুক্ত পাত্র। কিন্ত তার বাবা ও অন্যান্য বরযাত্রীদের গাড়ি আটকে দেন বিক্ষোভকরীরা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে মেখলিগঞ্জ থানার পুলিশ। 

জানা গিয়েছে প্রায় ৩ বছর আগে একবার বিয়ে করে ওই ব্যক্তি। কিন্তু নিজের স্ত্রীয়ের বনিবনা ছিল না তার। স্ত্রীয়ের ওপরে অত্যাচার করত বলেও অভিযোগ। এরপর বিবাহ বিচ্ছেদের মামলা দায়ের হয়। অভিযোগ, সেই মামলা নিষ্পত্তি হওয়ার আগেই রবিবার দ্বিতীয়বার বিয়ের পরিকল্পনা করে ওই ব্যক্তি। 

এদিকে ইতিমধ্যেই পাত্রের দ্বিতীয় বিয়ের পরিকল্পনার কথা জানতে পারে তার প্রথম পক্ষের স্ত্রীয়ের পরিবার। এরপরেই বিয়ে করতে যাওয়ার পথে বরযাত্রীকে আটকে দেন প্রথম পক্ষের স্ত্রীয়ের পরিবারের সদস্যরা। বরযাত্রীর গাড়ি ঘিরে শুরু হয় বিক্ষোভ। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় মেখলিগঞ্জ থানার পুলিশ। এরপর নিয়ন্ত্রণের আসে পরিস্থিতি।

এদিকে বিক্ষোভের মাঝেই পালিয়ে যায় অভিযুক্ত পাত্র। কিন্তু তার বাবা ও অন্যান্য বরযাত্রীদের ধরে ফেলেন বিক্ষোভকারীরা। এরপর তাদের তুলে দেওয়া হয় পুলিশের হাতে। বিবাহ বিচ্ছেদের আইনি নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত যাতে ওই পাত্র আর বিয়ে করতে না পারে তা নিশ্চিত করার দাবি জানিয়েছেন বিক্ষোভকারীরা। একইসঙ্গে খোরপোষের দাবিও জানিয়েছেন তাঁরা।