scorecardresearch
 

বিশিষ্ট সাহিত্যিক হাসান আজিজুল হক প্রয়াত, শোকপ্রকাশ মমতার

হাসান আজিজুল হক ১৯৩৯ সালের ২ ফেব্রুয়ারি বর্তমান ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমান জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৭৩ সালে তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন বিভাগে অধ্যাপক হিসেবে কাজে যোগ দেন।

হাসান আজিজুল হক। ছবি সৌজন্য: উইকিপিডিয়া হাসান আজিজুল হক। ছবি সৌজন্য: উইকিপিডিয়া
হাইলাইটস
  • বাংলাদেশের বিশিষ্ট সাহিত্যিক হাসান আজিজুল হক প্রয়াত
  • বয়স হয়েছিল ৮২ বছর
  • তাঁর প্রয়াণে শোক প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশের তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়-সহ বিশিষ্টরা

বাংলাদেশের বিশিষ্ট সাহিত্যিক হাসান আজিজুল হক প্রয়াত। বয়স হয়েছিল ৮২ বছর। সোমবার রাত ৯টায় বাংলাদেশের রাজশাহীতে তাঁর বাসভবনে জীবনাবসান হয়। বেশ কিছুদিন ধরে বার্ধক্যজনিত অসুখে ভুগছিলেন। হৃদরোগ ও ডায়াবিটিসের সমস্যাও ছিল।

২১ অগাস্ট তাঁকে রাজশাহী থেকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয় চিকিৎসার জন্য। তাঁর প্রয়ানে শোক প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশের তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়-সহ বিশিষ্টরা।

হাসান আজিজুল হক ১৯৩৯ সালের ২ ফেব্রুয়ারি বর্তমান ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমান জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৭৩ সালে তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন বিভাগে অধ্যাপক হিসেবে কাজে যোগ দেন। ২০০৪ সালে তিনি অবসর নেন।

ছোটগল্প ও উপন্যাসের জন্য তিনি পরিচিত। তাঁর লেখা উপন্যাসগুলির মধ্যে আগুনপাখি অন্যতম। ২০০৬ সালে এটি প্রকাশিত হয়। উপন্যাসটি প্রথম আলো বর্ষসেরা বইয়ের স্বীকৃতি লাভ করে। এই বইয়ের জন্য তিনি ২০০৮ সালে আনন্দ সাহিত্য পুরস্কার পান।

বাংলা সাহিত্যে অবদানের জন্য লেখককে ১৯৭০ সালে বাংলা অ্যাকাডেমি সাহিত্য পুরস্কার দেওয়া হয়। ১৯৯৯ সালে বাংলাদেশ সরকার তাঁকে একুশে পদকে ভূষিত করে। ২০১৯ সালে তাঁকে স্বাধীনতা পুরস্কারও দেওয়া হয়।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শোকবার্তায় জানিয়েছেন, বাংলাদেশের বিশিষ্ট সাহিত্যিক হাসান আজিজুল হকের প্রয়াণে আমি গভীর শোক প্রকাশ করছি। তিনি গতরাতে  রাজশাহিতে প্রয়াত হন। বয়স হয়েছিল ৮২ বছর। 

বাংলা সাহিত্যের অগ্রগণ্য লেখক হাসান আজিজুল হকের উল্লেখযোগ্য গ্রন্থ আগুনপাখি, নামহীন গোত্রহীন, সক্রেটিস, বিধবাদের কথা নানা পাঠে, এই পুরাতন আখরগুলি ইত্যাদি।

তাঁর জন্ম বর্ধমানের মঙ্গলকোটের যবগ্রামে। স্কুল জীবনের পড়াশোনা বর্ধমানে। তাঁর প্রয়াণে সাহিত্য জগতে এক অপূরণীয় ক্ষতি হল। আমি হাসান আজিজুল হকের আত্মীয় পরিজন ও অনুরাগীদের আন্তরিক সমবেদনা জানাচ্ছি।

বাংলা কথাসাহিত্যের অসামান্য শিল্পী হাসান আজিজুল হকের মৃত্যুতে শোক জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লিগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, তাঁর সাহিত্য এই জনপদের মানবমনের এক স্থায়ী দর্পণ হয়ে থাকবে।  

তিনি শোকবার্তায় বলেন, একুশে পদক, স্বাধীনতা পুরস্কারে ভূষিত হাসান আজিজুল হকের অভাব অপূরণীয়। ষাটের দশকের বাঁক বদলের এই কথাশিল্পীর রচনাবলী আমাদের সাহিত্যকে কালজয়ী সমৃদ্ধি এনে দিয়েছে। তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবার ও সকল শুভানুধ্যায়ীর প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।