scorecardresearch
 

ফের শুটিং বন্ধের ভ্রূকুটি মায়ানগরিতে, টলি পাড়ায় কড়াকড়ি

১০ মাস পর এই প্রথমবার ফের একবার টেলিভিশন ধারাবাহিকের শুটিংয়ে নানা বিধি নিষেধ আরোপ করা হল। মহারাষ্ট্র জুড়ে শনি এবং রবিবার মিনি লক ডাউনের কথা ঘোষণা করেছেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে। আগামী ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত প্রত্যেক সপ্তাহে এই লক ডাউন জারি থাকবে।

কেবিসি-র শুটিংয়ে অমিতাভ বচ্চন কেবিসি-র শুটিংয়ে অমিতাভ বচ্চন
হাইলাইটস
  • গত সপ্তাহে টেলিভিশন কামগার সংঘ এবং টিভি চ্যালেনের প্রতিনিধি এবং প্রযোজকদের সঙ্গে বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে
  • সিদ্ধন্ত নেওয়া হয়েছে, প্রত্যেক সপ্তাহে শনি এবং রবিবার করে শুটিং বন্ধ রাখা হবে

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ ফের সব সমীকরণ ওলট পালট করে দিল। ১০ মাস পর এই প্রথমবার ফের একবার টেলিভিশন ধারাবাহিকের শুটিংয়ে নানা বিধি নিষেধ আরোপ করা হল। মহারাষ্ট্র জুড়ে শনি এবং রবিবার মিনি লক ডাউনের কথা ঘোষণা করেছেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে। আগামী ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত প্রত্যেক সপ্তাহে এই লক ডাউন জারি থাকবে।

গত সপ্তাহে টেলিভিশন কামগার সংঘ এবং টিভি চ্যালেনের প্রতিনিধি এবং প্রযোজকদের সঙ্গে বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে। তার পরই সিদ্ধন্ত নেওয়া হয়েছে, প্রত্যেক সপ্তাহে শনি এবং রবিবার করে শুটিং বন্ধ রাখা হবে। সকলেই সম্মতি প্রকাশ করে স্বাগত জানান এই সিদ্ধান্তকে। ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত এই নিয়ম বলবৎ করে প্রথম দেখা হবে। তার পর পরবর্তী সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করবেন উদ্ধব।

এমন বহু ধারাবাহিক রয়েছে যা সপ্তাহে ৬ দিন করেই সম্প্রচারিত হয়। এই সিদ্ধান্তে সে সব ধারাবাহিকের প্রোডাকশন ধাক্কা খাবে তা নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই। এই ধারাবাহিক গুলির কী হবে, তা নিয়ে FWICE-র প্রেসিডেন্ট বি এন তিওয়ারি বলেন, 'মহারাষ্ট্রে প্রতি সপ্তাহে শনি ও রবিবার শুটিং বন্ধ থাকবে আগামী ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত। যদি এতে কোনও সমস্যা হয় তবে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলব। তবে এখন আপাতত লক ডাউন করা অত্যন্ত জরুরি। গত বছর ৪ মাস লাগাতার শুটিং বন্ধ ছিল। এর চেয়ে ভালো অন্তত সপ্তাহে ২ দিন করেই বন্ধ থাক।'

এ প্রসঙ্গে টেলিভিশন প্রযোজক জে ডি মাজেথিয়া বলেন, 'একটু অসুবিধা নিশ্চয়ই হবে, কিন্তু আমাদের এক সঙ্গে মিলে চলতে হবে এবং করোনাকে হারাতে হবে। যারা সপ্তাহে ৬ দিন ধারাবাহিক সম্প্রচার করেন তারা যথেষ্ট ব্যাঙ্ক বানিয়ে চলুন। অথবা সপ্তাহে দু এক দিন রিপিট টেলিকাস্ট দেখান।' সম্প্রতি বলিউড এবং হিন্দি ধারাবাহিকের বহু শিল্পী করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তালিকায় রয়েছএন আমির খান, ভিকি কৌশল, ক্যাটরিনা কাইফ, আলিয়া ভাট, রণবীর কাপুর, সতীশ কৌশিক, আশিস বিদ্যার্থী-সহ অনেক বড় নাম।

টালিগঞ্জের স্টুডিও পাড়ায় শুটিং বন্ধ না হলেও ষথেষ্ট কড়াকড়ির মধ্যে হচ্ছে সিনেমা এবং ধারাবাহিকর শুটিং। শিল্পী এবং কলাকুশলীদের মাস্ক বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। শুটিং সেটেও যাঁরা উপস্থিত থাকছেন, তাঁদেরও মাস্ক পরে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এ রাজ্যেও করোনার গ্রাফ ঊর্ধ্বমুখী। ফলে আগামী দিনে লক ডাউনের আশঙ্কা এখানেও রয়েইছে।