scorecardresearch
 
 

অভিনয় করি, কিন্তু সস্তা ঘরভাঙানি নই: শ্রীময়ী চট্টরাজ

সিনিয়র দাদা মেন্টর হিসাবে কাঞ্চন দা, খরাজ দা, বিশ্বনাথ এঁরাই আমাদের প্রজন্মের কাছে শ্রদ্ধার পাত্র। এঁদের সম্পর্কে অন্য কোনও ভাবনা আমার কোনও দিন আসেনি। তাই রটনা শুনে প্রথমে হেঁসে ফেলেছিলাম। কিন্তু সেটাই যখন এমন রূপ পেতে শুরু করেছে তখন বাধ্য হয়ে কথা বলতে হল। অভিনয় করি মানেই আমরা সস্তা বা ঘর ভাঙানি, তেমনটা আমার রক্তে নেই।'

কাঞ্চন, পিঙ্কি এবং ছেলে ওশো, পাশে শ্রীময়ী কাঞ্চন, পিঙ্কি এবং ছেলে ওশো, পাশে শ্রীময়ী
হাইলাইটস
  • গত কয়েক দিন ধরে প্রচুর নেগেটিভ পাবলিসিটি হচ্ছে আমার নামে।
  • তাঁদের (কাঞ্চন এবং পিঙ্কি) বিবাহিত জীবনের সমস্যা আমায় শিখণ্ডী করে একটা রূপ দেওয়া দেওয়া চেষ্টা হচ্ছে।
  • সিনিয়র দাদা মেন্টর হিসাবে কাঞ্চন দা, খরাজ দা, বিশ্বনাথ এঁরাই আমাদের প্রজন্মের কাছে শ্রদ্ধার পাত্র।

অভিযোগ পাল্টা অভিযোগের মধ্যে বার বার তাঁর নাম উঠে এসেছে অভিনেতা কাঞ্চন মল্লিক এবং তাঁর স্ত্রী পিঙ্কি বন্দ্যোপাধ্যায়ের মধ্যে। পিঙ্কির অভিযোগ, কাঞ্চনের সঙ্গে পরকীয়ার সম্পর্ক রয়েছে শ্রীময়ী চট্টরাজের। স্বামী এবং শ্রীময়ীর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন পিঙ্কি। পাল্টা অভিযোগ দায়ের করেছেন কাঞ্চনও। এ বার আইনি পথে হাঁটলেন শ্রীময়ী। সোশাল মিডিয়ায় ভিডিও প্রকাশ করে তিনি জানালেন, তাঁর সম্পর্কে যে সমস্ত কথা রটানো হচ্ছে তা একেবারেই সত্যি নয়। এর জন্য তিনি আইনি ব্যবস্থাও নিচ্ছেন।

ভিডিওতে শ্রীময়ী বলেন, 'গত কয়েক দিন ধরে প্রচুর নেগেটিভ পাবলিসিটি হচ্ছে আমার নামে। আমি আগেও সংবাদ মাধ্যমে এ সম্পর্কে জানিয়েছিলাম। কিন্তু এই ভিডি বাধ্য হয়েই করছি। আমায় যে ভাবে দেখানোর চেষ্টা করা হচ্ছে তা একেবারেই সত্যি নয়। তাঁদের (কাঞ্চন এবং পিঙ্কি) বিবাহিত জীবনের সমস্যা আমায় শিখণ্ডী করে একটা রূপ দেওয়া দেওয়া চেষ্টা হচ্ছে। সিনিয়র দাদা মেন্টর হিসাবে কাঞ্চন দা, খরাজ দা, বিশ্বনাথ এঁরাই আমাদের প্রজন্মের কাছে শ্রদ্ধার পাত্র। এঁদের সম্পর্কে অন্য কোনও ভাবনা আমার কোনও দিন আসেনি। তাই রটনা শুনে প্রথমে হেঁসে ফেলেছিলাম। কিন্তু সেটাই যখন এমন রূপ পেতে শুরু করেছে তখন বাধ্য হয়ে কথা বলতে হল। অভিনয় করি মানেই আমরা সস্তা বা ঘর ভাঙানি, তেমনটা আমার রক্তে নেই।'

 

 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

A post shared by Sreemoyee_clipslove (@sreemoyeechattoraj)

তিনি জানান, তাঁকে জড়িয়ে কেন এমন সমস্ত কথা বলছেন পিঙ্কি, সেটা জানতেই পিঙ্কির কাছে গিয়েছিলেন শ্রীময়ী। তা নিয়েও প্রচুর মিথ্যে বলা হচ্ছে। ভুল বোঝাবুঝি কাটানোর জন্য তিনি কাঞ্চনের সঙ্গে পিঙ্কির সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন। চড়াও হওয়ার যে কাহিনি শোনা যাচ্ছে তার কোনও সারবত্তা নেই। সেটা সে দিনের ভিডিও দেখলেই পরিষ্কার বোঝা যাবে।

আপাতত লিখিত অভিযোগ না করলেও আইনজীবীর সঙ্গে পরামর্শ করেছেন শ্রীময়ী। তার পরই ভবিষ্যৎ পদক্ষেপ ঠিক করবেন বলে জানা গিয়েছে।