scorecardresearch
 

Exclusive: "উনি বিশ্বাস করতেন সিনেমা হলের কোনও বিকল্প নেই "- সৌমিত্রের প্রয়াণে শিবপ্রসাদ

দীর্ঘ ৪০ দিন হাসপাতালে লড়াই করার পর রবিবার বেলা ১২.১৫ নাগাদ জীবনযুদ্ধে পরাজিত হয়েছেন বর্ষীয়ান অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় (Soumitra Chatterjee)। তাঁর মৃত্যুতে শোকোস্তব্ধ গোটা শিল্পীমহল। পরিচালক শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় (Shiboprasad Mukherjee) আজতক বাংলা-কে জানালেন তাঁর প্রতিক্রিয়া। 

সৌমিত্রের প্রয়াণে শিবপ্রসাদ সৌমিত্রের প্রয়াণে শিবপ্রসাদ
হাইলাইটস
  • প্রয়াত বর্ষীয়ান অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়।
  • তাঁর মৃত্যুতে শোকোস্তব্ধ গোটা শিল্পীমহল।
  • সৌমিত্রের প্রয়াণে শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় জানালেন তাঁর প্রতিক্রিয়া।

দীর্ঘ ৪০ দিন হাসপাতালে লড়াই করার পর রবিবার বেলা ১২.১৫ নাগাদ জীবনযুদ্ধে পরাজিত হয়েছেন বর্ষীয়ান অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় (Soumitra Chatterjee)। তার মৃত্যুতে শোকোস্তব্ধ গোটা শিল্পীমহল। পরিচালক শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় (Shiboprasad Mukherjee) আজতক বাংলা-কে জানালেন তাঁর প্রতিক্রিয়া। 

"এটা মেনে নেওয়াই খুব কঠিন। উনি তো সব সময়ে কাজের মধ্যে থাকতেন, বলা যায় কর্মের মধ্যে দিয়ে নিজের জীবনকে উদযাপন করেছেন তিনি। ওঁনার এই দীর্ঘ রোগ-ভোগ আমার পক্ষে মেনে নেওয়া অসম্ভব হয়ে উঠছিল। যে মানুষটা তাঁর প্রত্যেকটা জন্মদিন কাজের মধ্য দিয়ে উদযাপন করেছেন, সেই মানুষটা এভাবে চলে গেলেন মেনে‌ নিতে পারছি না । সৌমিত্র বাবু কর্মের তপস্যার মধ্যে দিয়ে ছিলেন। একইসঙ্গে কবিতা লিখেছেন, নাটক লিখেছেন, সম্পাদনা করেছেন পত্রিকার, অভিনয় করেছেন, থিয়েটার করেছেন, বাংলা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির যে কোনো সমস্যায় মুখ্যমন্ত্রীর কাছে সবাইকে নিয়ে গিয়েছেন। একটা সময় আর্টিস্ট ফোরামের সভাপতি ছিলেন উনি। সবসময় পাশে দাঁড়িয়েছেন সবার। অভিনয়ের বাইরেও যে এত বিশাল দায়িত্ব তুলে নিয়েছেন কী বলবো। এমনকি যখন ব্যক্তিগত জীবনের চরম বিপদ ঘটেছে, ওঁনার নাতির অনেক বড় অ্যাক্সিডেন্ট যখন হয়ছিল, তারপরেও কাজ করে গিয়েছেন। সবকিছু দেখে মনে হয় উনি বোধহয় চাইতেন যে কাজের মধ্য দিয়েই উনি চলে যাবেন"। 

২০১৮ সালে শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় ও নন্দিতা রায় পরিচালিত 'বেলা শুরু' ছবির শুটিং শুরু হয়েছিল এবং চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে ছবির প্রথম লুক সামনে এসেছিল সকলের।

'বেলা শুরু' - ছবির শ্যুটিংয়ের ফাঁকে (ছবি - উইন্ডোজ/ ইনস্টাগ্রাম)
'বেলা শুরু'- ছবির শ্যুটিংয়ের মাঝে (ছবি - উইন্ডোজ/ ইনস্টাগ্রাম)

-র মুক্তি প্রসঙ্গে শিবপ্রসাদ জানালেন, " উনি বিশ্বাস করতেন পর্দায় সিনেমার কোনো বিকল্প হয় না। তাই আমি চাইবো, আবার যখন সিনেমা হলে সমস্ত মানুষের আসার সময় ও সুযোগ তৈরি হবে, তখন 'বেলা শুরু' রিলিজ করবো বড় পর্দায়। আমার ধারণা তখন সমস্ত মানুষ ওঁনার কাজ দেখতে নিশ্চই সিনেমা হলে আসবেন।" 

প্রসঙ্গত 'বেলা শেষে' ছবিতে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়কে নিয়ে কাজ করেছিলেন শিবপ্রসাদ। ছবিটি মুক্তি পেয়েছিল ২০১৫ সালে। পরিবারকেন্দ্রিক এই ছবিটি বক্স অফিসে ভাল সাফল্য পেয়েছিল। ২০১৬ সালে 'প্রাক্তন' ও ২০১৭ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি 'পোস্ত'- তেও উইন্ডোস প্রোডাকশন হাউসের সঙ্গে কাজ করেছিলেন সৌমিত্র। ছবিটি দর্শকদের মন কেড়েছিল যথেষ্ট। এরপর সকলে অপেক্ষা করছিলেন 'বেলা শুরু' ছবির। আশা করা যায় খুব শীঘ্রই পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে মুক্তি পাবে ছবিটি।