scorecardresearch
 
অপরাধ

চন্দননগরে স্বর্ণঋণ সংস্থার অফিসে ডাকাতির চেষ্টা, পুলিশের সঙ্গে গুলির লড়াই

ডাকাত-পুলিশ গুলিযুদ্ধ
  • 1/7

দিনেদুপুরে দুঃসাহসিক ডাকাতির চেষ্টা হুগলির চন্দননগর লক্ষ্মীগঞ্জ বাজারে। পুলিশের সঙ্গে রীতিমতো গুলির লড়াই ডাকাত দলের। মঙ্গলবার দুপুর তিনটে নাগাদ ঘটনাটি ঘটেছে একটি স্বর্ণঋণ সংস্থার দফতরে। 

ডাকাত-পুলিশ গুলিযুদ্ধ
  • 2/7

জানা গিয়েছে, ওই এলাকার একটি বিল্ডিং-এর দোতলায় রয়েছে স্বর্ণঋণ সংস্থার অফিসটি। অভিযোগ, এদিন বেশ কয়েক জনের একটি ডাকাত দল অফিসে গ্রাহক সেজে ঢোকে। 

ডাকাত-পুলিশ গুলিযুদ্ধ
  • 3/7

আচমকাই নিরাপত্তারক্ষীর মাথায় আগ্নেয়াস্ত্র ঠেকিয়ে শুরু করে লুঠপাট। সেই সময় সংস্থার কোনও এক কর্মী সাইরেন বাজিয়ে দিতেই নিরাপত্তারক্ষী এবং অন্য এক কর্মীকে বেধড়ক মারধর শুরু করে ডাকাত দল। (সংস্থার আহত কর্মী)

ডাকাত-পুলিশ গুলিযুদ্ধ
  • 4/7

খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছায় চন্দননগর থানার পুলিশ। কিছুক্ষণের মধ্যেই উপস্থিত হয় চন্দননগর পুলিশ কমিশনারেটের আধিকারিক সহ বিশাল বাহিনি।

ডাকাত-পুলিশ গুলিযুদ্ধ
  • 5/7

দু'জন পালাতে গিয়ে পুলিশের হাতে ধরা পরে যায়। অভিযোগ, এরপরেই জনা তিনেক দুষ্কৃতী স্বর্ণঋণ সংস্থার দোতলা থেকে পুলিশকে লক্ষে করে গুলি চালাতে থাকে শুরু করে। 

ডাকাত-পুলিশ গুলিযুদ্ধ
  • 6/7

পালটা জবাব দেয় পুলিশও। বেশ কিছুক্ষণ দু'পক্ষের মধ্যে চলে গুলির লড়াই। পরিস্থিতি বেগতিক বুঝে বিল্ডিং-এর ছাদ দিয়ে পালিয়ে যায় দুষ্কৃতীরা। (সংস্থার নিরাপত্তারক্ষী) 

ডাকাত-পুলিশ গুলিযুদ্ধ
  • 7/7

যদিও ইতিমধ্যেই জেলা জুড়ে নাকা চেকিং শুরু করে দিয়েছে পুলিশ। নাকা চেকিং-এ চুঁচুড়া থানা এলাক থেকে আরও একজন ধরা পড়েছে বলে খবর। লক্ষ্মীগঞ্জ বাজারের মতো জনবহুল এলাকায় এই ঘটনায় আতঙ্কিত স্থানীয়রা। গোটা ঘটনাটি খতিয়ে দেখছে পুলিশ।