scorecardresearch
 

MCD election: দিল্লির পুরভোটে ফের বিজেপি না আপ, কে করবে বাজিমাত?

দিল্লিতে (Delhi) আজ, রবিবার পুর নিগমের নির্বাচনের (municipal election) জন্য ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। সকাল ৮’টা থেকে শুরু হয়েছে গ্রহণ। বিগত কয়েক বছরের মতো এবারও দিল্লিতে ত্রিমুখী লড়াই। তবে মূল লড়াই বিজেপি (BJP) ও আপের (AAP) মধ্যে।

mcd mcd
হাইলাইটস
  • দিল্লিতে (Delhi) আজ, রবিবার পুর নিগমের নির্বাচনের (municipal election) জন্য ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে।
  • সকাল ৮’টা থেকে শুরু হয়েছে গ্রহণ।
  • বিগত কয়েক বছরের মতো এবারও দিল্লিতে ত্রিমুখী লড়াই। তবে মূল লড়াই বিজেপি (BJP) ও আপের (AAP) মধ্যে। 

দিল্লিতে (Delhi) আজ, রবিবার পুর নিগমের নির্বাচনের (municipal election) জন্য ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। সকাল ৮’টা থেকে শুরু হয়েছে গ্রহণ। বিগত কয়েক বছরের মতো এবারও দিল্লিতে ত্রিমুখী লড়াই। তবে মূল লড়াই বিজেপি (BJP) ও আপের (AAP) মধ্যে। 

২৫০টি ওয়ার্ডে মোট ১,৩৪৯ জন প্রার্থী ভোটে লড়ছেন।  সকাল ৮টা থেকে বিকেল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ হবে। ফলাফল ৭ ডিসেম্বর। ১.৪৫ কোটিরও বেশি ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। বিজেপি গত ১৫ বছর ধরে এমসিডি দখলে রেখেছে। অন্যদিকে আম আদমি পার্টি ও কংগ্রেস দিল্লির রাজনীতিতে তার হারানো ভোট ফিরে পাওয়ার চেষ্টা করছে।

রাজ্য নির্বাচন কমিশন অনুসারে, দিল্লিতে মোট ভোটারের সংখ্যা ১,৪৫,০৫,৩২২ যার মধ্যে ৭৮,৯৩,৪০৩ জন পুরুষ, ৬৬,১০,৮৫৮ জন মহিলা এবং ১,০৬১ জন ট্রান্সজেন্ডার রয়েছে৷ দিল্লিতে ১০০ বছরের বেশি বয়সী ২২৯ জন ভোটার রয়েছেন। ৮০ থেকে ১০০ বছরের মধ্যে ভোটারের সংখ্যা ২,০৪,৩০১। প্রথমবার ভোট দেওয়া যুবকের সংখ্যা ৯৫৪৫৮। 

দিল্লির পুর নিগমের নির্বাচনে এবার বিশেষ বৈশিষ্ট্য হল, দশ বছর পর রাজধানীর তিনটি পুরনিগমকে আবার সংযুক্ত করে একটি নিগম করা হয়েছে। ২০১২ সালে শীলা দিক্ষিত মুখ্যমন্ত্রী এবং কেন্দ্রে ইউপিএ সরকার ক্ষমতায় থাকাকালে আগের পুরনো দিল্লি নগর নিগমকে ভেঙে তিন টুকরো করা হয়েছিল। এ বছরের গোড়ায় কেন্দ্রের বিজেপি সরকার ফের তিনটি নিগমকে জুড়ে একটি করে দিয়েছে। তারপর আজ প্রথম ভোট হচ্ছে। 

টানা প্রায় ১৫ বছর এমসিডির ক্ষমতায় বিজেপি। স্বভাবতই প্রতিষ্ঠান বিরোধিতার বিপদ নিয়ে দলকে অনেক সতর্ক থাকতে হয়েছে। গতবারের মতো এবারও তারা দুই তৃতীয়াংশ কাউন্সিলরকে টিকিট না দিয়ে নতুন মুখ এনেছে। বিজেপিকে সরিয়ে এমসিডির দখল নিতে আপ দিল্লির জঞ্জাল, দূষণ এবং বেআইনি বাড়ির সমস্যা নিয়ে লাগাতার প্রচার চালিয়েছে। বিধানসভার মতোই পুরভোটেও আপ নানা আর্থিক ছাড়ের কথা ঘোষণা করেছে। বিজেপি ও আপের মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে বলেই মনে করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: হাসপাতালে মহম্মদ শামি, শেয়ার করলেন আবেগঘন বার্তা

 

TAGS: