scorecardresearch
 

Shabbir Ahmed Siddiqui: 'ভোটে মুসলিম মহিলাদের টিকিট দেওয়া ইসলাম বিরোধী', বিতর্কিত মন্তব্য শাহি ইমামের

গুজরাত বিধানসভা নির্বাচনের (Gujarat Election 2022) দ্বিতীয় দফার ভোটের ঠিক একদিন আগে বিতর্কিত মন্তব্য করলেন আমেদাবাদের (Ahmedabad) জামে মসজিদের শাহি ইমাম (Shahi Imam of the Jama Masjid) শাব্বির আহমেদ সিদ্দিকি (Shabbir Ahmed Siddiqui)। নির্বাচনে মুসলিম মহিলাদের টিকিট দিতে আপত্তি জানিয়েছেন তিনি।

বিতর্কিত মন্তব্য শাহি ইমাম শাব্বির আহমেদ সিদ্দিকির বিতর্কিত মন্তব্য শাহি ইমাম শাব্বির আহমেদ সিদ্দিকির
হাইলাইটস
  • ইসলামের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র বলেও তিনি আখ্যায়িত করেছেন
  • তোলেন কর্নাটকের হিজাব ব্যান প্রসঙ্গও

গুজরাত বিধানসভা নির্বাচনের (Gujarat Election 2022) দ্বিতীয় দফার ভোটের ঠিক একদিন আগে বিতর্কিত মন্তব্য করলেন আমেদাবাদের (Ahmedabad) জামা মসজিদের শাহি ইমাম (Shahi Imam of the Jama Masjid) শাব্বির আহমেদ সিদ্দিকি (Shabbir Ahmed Siddiqui)। নির্বাচনে মুসলিম মহিলাদের টিকিট দিতে আপত্তি জানিয়েছেন তিনি। এনিয়ে প্রকাশ্যেই প্রতিবাদ করেছেন। তাঁর দাবি, এটা ইসলাম (Islam) বিরাধী। ইসলামের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র বলেও তিনি আখ্যায়িত করেছেন। সিদ্দিকি বলেন, ইসলামকে দুর্বল করা হচ্ছে। টিকিটের জন্য কি কোনও পুরুষরা অবশিষ্ট নেই?

শাহি ইমাম শাব্বির আহমেদ সিদ্দিকি বলেন, 'ইসলামের কথা বললে আমি বলতে চাই এখন এখানে মানুষ নামাজ পড়ছে। আপনি কি একজন মহিলাকে দেখেছেন? ইসলামে নামাজ সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। যদি ইসলামে নারীদের এভাবে মানুষের সামনে আসা জায়েজ হতো, তাহলে তাঁদের মসজিদে আসাতে বাধা দেওয়া হত না। ইসলামে নারীর স্থান আছে। তাই যারা নারীদের টিকিট দেবেন তাঁরা ইসলামের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করছেন। এই কাজ ইসলাম বিরোধী। সেখানে কি পুরুষ নেই... যে আপনি নারীদের টিকিট দিচ্ছেন। এতে আমাদের ধর্ম দুর্বল হবে। এটা দুর্বল হবে কারণ এর আগে হিজাবের বিষয়টি কর্নাটকে উঠেছিল। হইচই হয়েছিল।'

তিনি আরও বলেন, 'এখন এটা স্পষ্ট যে, আপনি যদি মহিলাদের বিধায়ক, কাউন্সিলর করেন তাহলে কী হবে? আমরা হিজাবকে নিরাপদ রাখতে পারব না। এই প্রসঙ্গ তুলতে পারবে না। কারণ সরকার তখন বলবে আপনাদের নারীরা এখন বিধানসভা ও সংসদে আসছেন। মঞ্চে আবেদন করা হবে। নির্বাচনে ভোটের জন্য দ্বারে দ্বারে যাচ্ছেন তিনি। হিন্দুদের বাড়িতেও যেতে হবে। ইসলামে নারীর কণ্ঠও নারীই। এজন্য আমি এর ঘোর বিরোধী। লড়তে চাইলে এমন একজনকে টিকিট দিন...যেখানে কোনও বাধ্যবাধকতা নেই। যদি এমন আইন থাকত যে ওই আসন থেকে শুধু মহিলারা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারবেন, তাহলে এটাকে বাধ্যতামূলক বলতে পারতেন। এখানে কোনও বাধ্যবাধকতা নেই।'