scorecardresearch
 
 

Mask Must To Fight Covid 19: 'মাস্কেই শাপমুক্তি!' মত কেন্দ্রীয় নীতি আয়োগের

কেন্দ্রীয় তথ্যসূচি অনুসারে এখনও পর্যন্ত দেশে প্রায় ৭৫ কোটি কোভিড ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ শেষ হয়েছে। তবে কেন্দ্রের লক্ষ্যমাত্রা, কোভিডে তৃতীয় ধাক্কাকে ভারতে ঠেকাতে আগামী ডিসেম্বরের মধ্যেই দেশের ৬০ শতাংশ মানুষকে দুটি করে টিকা দেওয়ার কাজ শেষ করা। অন্যদিকে, শিশুদের ভ্যাকসিন দেওয়ার ক্ষেত্রেও প্রায় ৬৫ শতাংশ বাবা-মা রাজি। তাই সেই লক্ষ্যেও দ্রুত হাঁটতে চাইছে কেন্দ্রীয় সরকার।

প্রতীকী ছবি প্রতীকী ছবি
হাইলাইটস
  • ২০২২ সালেও আমাদের মাস্ক মুখেই বাইরে বেরোতে হবে
  • আগামী ৩-৪ মাস আমাদের খুব সচেতন থাকতে হবে
  • উৎসবের দিনগুলোতে নিজেদের আবেগকে ধরে রাখতে হবে

সামনেই রয়েছে দেশজুড়ে পরপর উৎসব(Festivals)। আর সেগুলিকে কেন্দ্র করেই ফের ভয়ঙ্কর আকার নিতে পারে আমাদের দেশের কোভিড(Covid-19) পরিস্থিতি। তাই সেই বিপদকে এড়াতে একমাত্র রক্ষাকবজ মাস্ক(Mask)। সেই সঙ্গে সময় মতো ভ্যাকসিন(Vaccine) নেয়ে নিজেকে কিছুটা নিরাপদ করে তোলা। তাহলেই সামলে নেওয়া যাবে বিপদের বড় ধাক্কা। এমনটাই মত কেন্দ্রীয় পরিকল্পনা কমিশন বা বর্তমানে যাকে আমরা নীতি আয়োগ(Niti Aayog) বলে জানি। 

দেশে কী পরিস্থিতি কোভিড-১৯ এর

নীতি আয়োগের চেয়ারম্যান ভিকে পাল এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, এখনই দেশের ১৩৩ কোটি মানুষ কোভিড থেকে মুক্তি পাচ্ছেন না। তাই ২০২২ সালেও আমাদের মাস্ক মুখেই বাইরে বেরোতে হবে বলেই তিনি জানান। যদিও, ভ্যাকসিনের পাশাপাশি ভারত অতি দ্রুততার সঙ্গে কোভিড নিয়ন্ত্রের ওষুধও বের করে ফেলবে বলে মত ভিকে পালের। 

কোভিড পরিস্থিতি

তিনি বলেন, ভ্যাকসিনের কাজ যেমন চলছে , তেমনই আগামী ৩-৪ মাস আমাদের খুব সচেতন থাকতে হবে। উৎসবের দিনগুলোতে নিজেদের আবেগকে ধরে রাখতে হবে। সেই সঙ্গে বাড়িতে থেকেই উৎসব পালনে চেষ্টা করতে হবে। তবেই করোনা নতুন করে ছড়িয়ে পড়া থেকে আটকানো যাবে। 

ভ্যাকসিন

প্রসঙ্গত, কেন্দ্রীয় তথ্যসূচি অনুসারে এখনও পর্যন্ত দেশে প্রায় ৭৫ কোটি কোভিড ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ শেষ হয়েছে। তবে কেন্দ্রের লক্ষ্যমাত্রা, কোভিডে তৃতীয় ধাক্কাকে ভারতে ঠেকাতে আগামী ডিসেম্বরের মধ্যেই দেশের ৬০ শতাংশ মানুষকে দুটি করে টিকা দেওয়ার কাজ শেষ করা। অন্যদিকে, শিশুদের ভ্যাকসিন দেওয়ার ক্ষেত্রেও প্রায় ৬৫ শতাংশ বাবা-মা রাজি। তাই সেই লক্ষ্যেও দ্রুত হাঁটতে চাইছে কেন্দ্রীয় সরকার।