scorecardresearch
 

NIA and ED Raid: বাংলা সহ দেশজুড়ে PFI ঠিকানায় NIA-ED হানা, ব্যাপক ধরপাকড়

NIA and ED Raid: সব মিলিয়ে ১০টি রাজ্যে গ্রেফতার করা হয়েছে ১০০ জনের বেশি পিএফআই সদস্যকে। ইডি ও এনআইএ-র এই তল্লাশি অভিযানের দিকে নজর রাখছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকও। 

ছবি সৌজন্য পিটিআই ছবি সৌজন্য পিটিআই

দেশবিরোধী কার্যকলাপের অভিযোগে পপুলার ফ্রন্ট অফ ইন্ডিয়া (PFI)-র সব ঠিকানায় ব্যাপক তল্লাশি অভিযান চালাচ্ছে NIA ও ED যৌথ ভাবে। পশ্চিমবঙ্গ, অন্ধ্রপ্রদেশ, তেলঙ্গানা, উত্তরপ্রদেশ, কেরল, কর্নাটক, তামিলনাড়ু সহ বহু রাজ্যে একাধিক ঠিকানায় যৌথ তল্লাশি অভিযান চলছে। ভোররাত থেকে চলা অভিযানে ইতিমধ্যেই ১০০ জনের বেশি PFI (Popular Front of India) সদস্য ও কর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। 

সব মিলিয়ে ১০টি রাজ্যে গ্রেফতার করা হয়েছে ১০০ জনের বেশি পিএফআই সদস্যকে। ইডি ও এনআইএ-র এই তল্লাশি অভিযানের দিকে নজর রাখছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকও। 

এযাবত্‍ হওয়া সবচেয়ে বড় তদন্তে মূলত সন্ত্রাসের জন্য ফান্ড, সংগঠনের ট্রেনিং ক্যাম্প ও ওই ক্যাম্পগুলিকে যোগ দেওয়াদের খুঁজে বের করা হচ্ছে। অভিযুক্তদের অফিস ও বাড়িতে তল্লাশি চলছে। যারা ট্রেনিং ক্যাম্প চালাচ্ছে, তাদের ঠিকানাতেও চলছে রেড। ২০০-র বেশি এনআইএ অফিসার ব্যাপক হারে তল্লাশি অভিযানে নেমেছেন। এই তল্লাশি অভিযানের বিরুদ্ধে মেঙ্গালুরুতে পিএফআই ও এসডিপিআই কর্মীরা বিক্ষোভে নামে। তাঁদেরও আটক করেছে কর্নাটক পুলিশ। এনআইএ তামিলনাড়ুর কোয়েম্বাটোর, কুদ্দালোর, রামনাদ, ডিন্ডুগাল, থেনি এবং থেনকাসি সহ বেশ কয়েকটি জায়গায় পিএফআই-র কর্মকর্তাদের বাড়িতে তল্লাশি চালিয়েছে। চেন্নাইের পুরাসাওয়াক্কামে প্রধান অফিসেও তল্লাশি চালানো হচ্ছে। 

মলপ্পুরম জেলায় পিএফআই নেতা ওএমএ সালেম, পিএফআই চেয়ারম্যান মাঞ্জেরির বিরুদ্ধে ভোররাতেই তল্লাশি অভিযান চলেছে। ওএমএ সালামের বাড়ির সামনে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন পিএফআই কর্মীরা। পিএফআই এক বিবৃতিতে দাবি করেছে, 'পিএফআই-র জাতীয়, রাজ্য এবং স্থানীয় নেতাদের বাড়িতে অভিযান চালানো হচ্ছে। রাজ্য কমিটির অফিসেও অভিযান চালানো হচ্ছে। ভিন্নমতের কণ্ঠকে স্তব্ধ করার জন্য এজেন্সিগুলিকে ব্যবহার করার জন্য ফ্যাসিবাদী শাসনের পদক্ষেপের তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি আমরা।'

পশ্চিমবঙ্গেও তল্লাশি অভিযান চলছে। রাত ৩টে ৪০ থেকে কলকাতায় তল্লাশি চলছে পিএফআই নেতার বাড়িতে।