scorecardresearch
 

New Year 2022, Shani Dev: ১ জানুয়ারি, শনিবার! জানুন শনির সাড়ে সাতি-ঢাইয়া একে মুক্তি পাওয়ার উপায়

New Year 2022, Shani Dev: শনিবারকে শনিদেবের প্রিয় দিন বলে মনে করা হয়। শনিদেবকে খুশি করার জন্য শনিবারকে সেরা দিন হিসেবে ধরা হয়। এদিন নিষ্ঠা মনে পুজো করলে, শনিদেব প্রসন্ন হন এবং ভক্তদের আশীর্বাদ করেন।

গ্রহরাজ শনিদেব গ্রহরাজ শনিদেব
হাইলাইটস
  • শনিবার, শনিদেবের প্রিয় দিন বলে মনে করা হয়।
  • গ্রহরাজকে খুশি করার জন্য এদিনই সেরা মনে করা হয়।
  • ১ জানুয়ারি, ৫ রাশির জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

২০২২ সাল (New Year 2021) শুরু হচ্ছে একটি শুভ দিনে (Auspicious Day)। পঞ্চাঙ্গ অনুযায়ী, ত্রয়োদশী তিথি থেকে বছর শুরু হবে। এদিন সকাল ৭.১৯ টা পর্যন্ত পৌষ মাসের কৃষ্ণপক্ষের ত্রয়োদশী তিথি থাকবে। এরপর চতুর্দশী তিথি শুরু হবে। নতুন বছরে জ্যৈষ্ঠ নক্ষত্র থাকবে এবং চন্দ্র বৃশ্চিক রাশিতে গমন করবে। নতুন বছরের প্রথম দিনটি শনিদেবের (Shani Dev) ভক্তদের জন্য বিশেষ। কারণ এই দিনটি শনিবার (Saturday)। 

শনিবার, শনিদেবের প্রিয় দিন বলে মনে করা হয়। শনিদেবকে খুশি করার জন্য শনিবারকে সেরা দিন হিসেবে ধরা হয়। এদিন নিষ্ঠা মনে পুজো করলে, শনিদেব প্রসন্ন হন এবং ভক্তদের আশীর্বাদ করেন। ১ জানুয়ারি, দিনটি এই ৫ রাশির জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।


শনির সাড়ে সাতি এবং ঢাইয়া কোন রাশি জাতকদের উপর 

জ্যোতিষশাস্ত্র মতে, ধনু, মকর ও কুম্ভ রাশিতে শনির সাড়ে সাতি (Shani Sade Sati) এবং মিথুন ও তুলা রাশিতে শনির ঢাইয়া (Shani Dhaiya) চলবে।

আরও পড়ুন:  ২০২২ সালে এই ৬ রাশির উপর থাকবে রাহুর বক্র দৃষ্টি! চাকরি- আর্থিক সমস্যার যোগ


শনিদেব যদি কোনও ব্যক্তির প্রতি সদয় হন, তবে তার জীবন সুখে ভরে উঠতে পারে। কিন্তু শনির বক্র দৃষ্টি, ধনীদের সম্পদও শূন্য করে দিতে পারে। আর্থিক ক্ষতি, পুঁজি নষ্ট হয়ে যায়, জরা- ব্যাধি লেগেই থাকে। চাকরি ও ব্যবসায় বাধা বিপত্তি আসার পাশাপাশি শিক্ষা ও কর্মজীবনে বাধা আসে। বিবাহিত জীবনে উত্তেজনা এবং বিবাদ আসতে পারে। এর পাশাপাশি অন্যান্য সমস্যারও সম্মুখীন হতে হয়। তাই শনিদেবকে শান্ত রাখা খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলা হয়। 

আরও পড়ুন:  নতুন বছরে বৃহস্পতির আশীর্বাদে ভাগ্য উজ্জ্বল হবে এই ৩ রাশির!


শনিবার, শনিদেবকে তুষ্ট করুন এই উপায়

* শনিদেবকে তেল উৎসর্গ করুন। শনিদেবকে নীল ফুল দিয়ে পুজো করুন। শনিদেবের পুজো করার সময় কখনও সরাসরি শনি মূর্তি দর্শন করবেন না।

* অশত্থ গাছে জল দিন, সাতবার প্রদক্ষিণ করে পুজো করুন। অন্তত একজন দরিদ্র ব্যক্তিকে খাবার সরবরাহ করুন। এটি কাজগুলি করলে শনিদেব সন্তুষ্ট হন এবং দারিদ্রতা দূর হয়।

*  স্নান করার পর প্রতি শনিবার সকালে তেল দান করুন। একটি পাত্রে তেল নিন এবং এতে আপনার মুখ দেখুন। এরপর কোনও দরিদ্র ব্যক্তিকে সেই তেল দান করুন।

* বজরংবলিকে সিঁদুর ও জুঁইফুল অর্পণ করুন। হনুমান চাল্লিশা পাঠ করুন। যেই ব্যক্তি পবনপুত্র হনুমানের পুজো করেন, তাঁর উপর শনির দৃষ্টি পড়ে না কখনও।

* শনি চালিশার পাঠ করুন এবং এই মন্ত্রোচ্চারণ করুন- 'ওঁ শনৈশ্চরায় নমঃ'। 

আরও পড়ুন:  ২০২২ সালের শুরুতেই রাশিচক্র পরিবর্তন করবে সূর্য! এই ৫ রাশির আসছে দারুণ সময়