scorecardresearch
 
 

Vastu Tips: ঝাঁটা থেকে পাপোষ, ৫ ছোট জিনিস আর্থিক হাল খারাপ করতে পারে

সংসারের আর্থিক পরিস্থিতির জন্য অনেক গুলি বিষয় নির্ভর করে। সুন্দর পরিপাটি গুছইয়ে রাখা ঘরদোরে যেমন লক্ষ্মী দেবীর আশীর্বাদ থাকে, তেমনই ঘরের কিছু ছোটখাটো জিনিসের উপর সংসারের আর্থিক পরিস্থিতি অনেকটা নির্ভর করে। সামান্য কিছু বিষয়ে খেয়াল রাখলে জীবন সুন্দর কর তুলতে পারেন।

বাস্তু টিপস বাস্তু টিপস
হাইলাইটস
  • সুন্দর পরিপাটি গুছইয়ে রাখা ঘরদোরে যেমন লক্ষ্মী দেবীর আশীর্বাদ থাকে
  • তেমনই ঘরের কিছু ছোটখাটো জিনিসের উপর সংসারের আর্থিক পরিস্থিতি অনেকটা নির্ভর করে।
  • সামান্য কিছু বিষয়ে খেয়াল রাখলে জীবন সুন্দর কর তুলতে পারেন।

সংসারের আর্থিক পরিস্থিতির জন্য অনেক গুলি বিষয় নির্ভর করে। সুন্দর পরিপাটি গুছইয়ে রাখা ঘরদোরে যেমন লক্ষ্মী দেবীর আশীর্বাদ থাকে, তেমনই ঘরের কিছু ছোটখাটো জিনিসের উপর সংসারের আর্থিক পরিস্থিতি অনেকটা নির্ভর করে। সামান্য কিছু বিষয়ে খেয়াল রাখলে জীবন সুন্দর কর তুলতে পারেন।

 

ঝাঁটা - প্রতি দিনের কাজের জিনি। ঘর পরিষ্কার করতে কাজে লাগে। ঝাঁটার অনাদর করা, ফেলে দেওয়া, গাছের সঙ্গে বেঁধে রাখা বা ভাঙা ঝাঁটা ঘরে রাখা একেবারেই শুভ নয়। এতে আর্থিক পরিস্থিতি খারাপ হতে পারে। ঝাঁটা এমন জায়গায় রাখুন যাতে সকলের চোখে না পড়ে। মাটিয়ে শুইয়ে রাখাই ভালো। সূর্যাস্তের সময় এবং তার পর ঘর ঝাঁঠ দেওয়া অশুভ। এমন কাজ করা ব্যক্তি দরিদ্র থেকে যান।

 

কাঁচি - পরিবারে সুসম্পর্ক বজায় রাখতে কাঁচি খুব গুরুত্বপূর্ণ মনে করা হয়। সব সময় কাপড় বা কাগজে মুড়ে রাখা উচিত কাঁচি। তা হলে সাংসারিক শান্তি বজায় থাকে। সম্পর্ক দৃঢ় হয়। অকারণ কাঁচি চালানো উচিত নয়, এতে বাকবিতণ্ডা বাড়ে এবং সম্পর্ক খারাপ হয়। কাউকে কাঁচি ধার দেবেন না। তা হলে সেই ব্যক্তির সঙ্গে আপনার সম্পর্ক নষ্ট হতে পারে।

 

ছুরি - পারিবারিক শান্তি এবং সন্তানের ভবিষ্যৎ কেমন হবে বলে দিতে পারে ছুরি। সব সময় রান্না ঘরে উল্টো করে রাখা উচিত। যেন ধারাল অংশ নীচের দিকে থাকে। এতে সন্তান পক্ষ ভালো থাকে। ধার বিহীন ছুরি বা জং পড়া ছুরি বাড়িতে থাকলে আকস্মিক শরীর খারাপ হতে পারে। ঘরে বিরাট বড় আকারের ছুরি থাকলে তাতে দাম্পত্য সমস্যা তৈরি হয়। কেউ যদি ছুরি দেওয়ার সময় ধারাল দিকটি আপনার দিকে রেখে দেন তা হলে বুঝবেন সেই ব্যক্তি স্বার্থপর এবং আত্মকেন্দ্রীক।

 

পাপোশ - পাপোশ ঘরে একদিকে খুশির বার্তাবাহক হয়, অন্য দিকে সমস্যাও টেনে আনতে পারে। তাই পাপোশ সব সময় পরিষ্কার রাখুন। ছেঁড়া এবং নোংরা পাপোশ বাড়িতে সমস্যা ডেকে আনবে। রোজ সকালে পাপোশ পরিষ্কার করে দরজার সামনে রেখে ঈশ্বরের আগমনের প্রার্থনা করুন। পাপোশে স্বস্তিক, শঙ্খ ইত্যাদি চিহ্ন যেন না থাকে। থাকলে ঘরে সমস্যা আসতে থাকবে।

 

বাসনপত্র - রান্না ঘরে বাসনপত্র সব সময় গুছিয়ে রাখুন। ছড়িয়ে ছিটিয়ে রাখা বাসন জীবনে প্রতিকুলতার সৃষ্টি করবে। বাসন ভালো করে পরিষ্কার করা উচিত। এঁঠো বাসন ব্যবহার করলে হঠাৎ অসুস্থ হতে পারেন। নতুন বাসন কিনলে তাতে আগে দুধ ফুটিয়ে বা পায়েস বানিয়ে তার পর ব্যবহার করুন। শনিবার বাসন কিনবেন না। যাঁদের শনি ভারী, তাঁরা কাউকে বাসনপত্র দান করে সমস্যা ডেকে আনবেন না।