scorecardresearch
 

University of Calcutta : COVID অতিমারীর কারণে পড়ুয়াদের সব ফি মকুব CU-র

এদিন এক বিবৃতিতে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় (CU বা University of Calcutta) জানিয়েছেন, অতিমারীর কথা মাথায় রেখে ভর্তির জন্য খরচ, টিউশনের খরচ এবং পরীক্ষার খরচ নেওয়া হবে না।

ফি মকুবের সিদ্ধান্ত কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের (প্রতীকী ছবি) ফি মকুবের সিদ্ধান্ত কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের (প্রতীকী ছবি)
হাইলাইটস
  • পড়ুয়াদের ফি নিয়ে বড়সড় সিদ্ধান্ত নিল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়
  • শুক্রবার তারা জানিয়েছে, সব ফি মকুব করা হল
  • এসএফআই, ডিএসও দাবি করেছে, এটা তাদের আন্দোলনের জয়

পড়ুয়াদের ফি নিয়ে বড়সড় সিদ্ধান্ত নিল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় (CU বা University of Calcutta)। শুক্রবার তারা জানিয়েছে, সব ফি মকুব করা হল। এসএফআই (SFI)-ডিএসও (DSO) দাবি করেছে, এটা তাদের আন্দোলনের জয়।

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় জানাচ্ছে
করোনা পরিস্থিতির জন্য এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এদিন এক বিবৃতিতে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় (CU বা University of Calcutta) জানিয়েছেন, অতিমারীর কথা মাথায় রেখে ভর্তির জন্য খরচ, টিউশনের খরচ এবং পরীক্ষার খরচ নেওয়া হবে না।

Corona_Pandemic_CU_or_University_of_Calcutta_decides_to_waive_all_fees_SFI_DSO_claim_it_is_win_of_their_movement_abk_three

কাদের জন্য?
স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর স্তরের পড়ুয়াদের জন্য এই সুযোগ দেওয়া হয়েছে। ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের জন্য এই ব্য়বস্থা করা হয়েছে। বিভিন্ন সেমেস্টারে পড়ছেন যে-সব পড়ুয়ারা, তাদের ওই টাকা দিতে হবে না। মার্কশিট বা গ্রেডশিট পেতেও তাদের কোনও টাকা দিতে হবে না।

এসএফআইয়ের দাবি
ফি মকুব তাদের আন্দোলনের জয় বলে দাবি করেছে এসএফআই। এদিন সংগঠনের রাজ্য সম্পাদক সৃজন ভট্টাচার্য ফেসবুকে পোস্ট করেছেন। সেখানে তিনি লিখেছেন, এসএফআইয়ের দীর্ঘ আন্দোলনের জয়। প্য়ান্ডেমিককে মাথায় রেখে কলকাতা বিশ্ববিদ্য়ালয় কর্তৃপক্ষ একটি সেমেস্টার ফি মকুব করছেন।

তিনি দাবি করেছেন, বাকি বিশ্ববিদ্যালয়গুলিও এই ঘোষণা করুক দ্রুত। ছাত্র-অভিভাবকদের ওপর বাড়তি ফি নয়। সরকারি ব্যয়বরাদ্দ বাড়ুক শিক্ষাখাতে!

ডিএসও-র দাবি
তাঁদের আন্দোলনের জন্য কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে দাবি ডিএসও-র। এদিন কলকাতা জেলা কমিটির সম্পাদক আবস সইদ এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতকোত্তর স্তরের বাংলা, ইংরেজি বিভাগ সহ অন্যান্য সমস্ত বিভাগের ছাত্র-ছাত্রীদের বিভিন্ন সেমিস্টারের ফি মকুব করার দাবিতে স্মারকলিপি জমা দেওয়া হয়েছিল।

তিনি জানান, বৃহস্পতিবার সংগঠনের কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় ইউনিটের পক্ষ থেকে সহ উপাচার্যকে ডেপুটেশন দেওয়া হয়েছিল। এদিন বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে ফি মকুব সংক্রান্ত সুস্পষ্ট নোটিশ দেওয়া হয়। যা আন্দোলনেরই জয়।

করোনা সংক্রমণের কারণে বন্ধ স্কুল-কলেজ
২০২০ সালের মার্চ মাস থেকে বন্ধ রাজ্যের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। তখন করোনা সংক্রমণ শুরু হয়েছে। তবে লকডাউন ঘোষণার আগেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল রাজ্য সরকার। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে স্কুল খুলেছিল। তবে সংক্রমণের আশঙ্কায় ফের বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।