scorecardresearch
 
 

WBCHSE Class 12th HS Result 2021: পাশের হার ৯৭.৬৯%, সর্বোচ্চ নম্বর ৪৯৯ পেলেন এক মুসলিম কন্যা

করোনা পরিস্থিতিতে মাধ্যমিকের মতো এবছর হয়নি উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষাও।বিকল্প পদ্ধতিতে মূল্যায়ণের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এদিনই বিকেল ৪ টে থেকে ওয়েবসাইট মারফত ফল জানতে পারবেন পরীক্ষার্থীরা। তবে পরীক্ষার্থীরা মার্কশিট পাবেন শুক্রবার থেকে।

হাইলাইটস
  • করনো আবহে এবারের উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা হয়নি
  • সেই কারণে মেধাতালিকা প্রকাশ করবে না সংসদ
  • এদিন শিক্ষা সংসদের তরফে অনলাইনে ফলাফল প্রকাশ করা হবে


দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে আজ  প্রকাশিত হল উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার ফলাফল।  বৃহস্পতিবার দুপুর ৩ টের সময় আনুষ্ঠানিকভাবে দ্বাদশ শ্রেণির ফলাফল বের করল উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ। করোনা পরিস্থিতিতে মাধ্যমিকের মতো এবছর হয়নি উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষাও।বিকল্প পদ্ধতিতে মূল্যায়ণের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এদিন বিকেল ৪ টে থেকে ওয়েবসাইট মারফত ফল জানতে পারছেন পরীক্ষার্থীরা। মোট ৯টি ওয়েবসাইটে জানান হচ্ছে ফল।  তবে  পরীক্ষার্থীরা মার্কশিট পাবেন শুক্রবার থেকে। ৫২টি ক্যাম্প থেকে মার্কশিট বিতরণ করা হবে এবার। 


কোভিড বাড়বাড়ন্তের জেরে এবছর হয়নি উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা। তাই বিশেষ পদ্ধতিতেই হয়েছে মূল্যায়ন।  উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের প্রকাশ করা ফলাফলে দেখা গেল এবার উচ্চমাধ্যমিকে পাশের হার ৯৭.৬৯ শতাংশ। ছাত্র এবং ছাত্রীদের পাশের হার প্রায় সমান। প্রথম দশে রয়েছেন ৮৬ জন পরীক্ষার্থী। কোভিড আবহে এবার যেমন ফল প্রকাশ এক বিশেষ ঘটনা, তেমনি উচ্চমাধ্যমিকের ইতিহাস নজির গড়লেন এক মুসলিম কন্যাও। মুর্শিদাবাদের এক কিশোরী ৫০০ মধ্যে ৪৯৯ নম্বর পেয়ে এবার প্রথম হয়েছেন উচ্চমাধ্যমিকে। 

সংসদের সাংবাদিক বৈঠকে জানান হয়েছে,  উচ্চমাধ্যমিকে এবার মোট পরীক্ষার্থী ৮ লক্ষ ১৯ হাজার ২০২ জন। তাদের মধ্যে  ৩ লক্ষ ১৯ হাজার ৩২৭জন পরীক্ষার্থী প্রথম বিভাগে উত্তীর্ণ হয়েছে। ৯০ শতাংশের বেশি নম্বর পেয়েছেন ৯০১৩ জন।  এ গ্রেড পেয়েছেন ৯৫ হাজার ৭৫৮ জন পরীক্ষার্থী। 

এদিন বিকেল ৪টে থেকে ওয়েবসাইট, এসএমএস অথবা মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে রেজাল্ট দেখতে পারবেন ছাত্রছাত্রীরা। পরেরদিন অর্থাৎ ২৩ জুলাই সকাল ১১টার পর থেকে মিলবে মার্কশিট। কাল থেকে সংসদের ৫২টি কেন্দ্রে মিলবে মার্কশিট। এদিকে আগামী বছরের জন্য একাদশের উত্তরপত্র সংরক্ষণ করতে হবে, জানাল উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ। এবার আগামী বছর উচ্চমাধ্যমিকের দিন ঘোষণা করা হয়নি। 

কোভিড বাড়বাড়ন্তের জেরে এবছর হয়নি উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা। তাই এবার কোনও মেধাতালিকা প্রকাশ করল না উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ। তবে রেজাল্ট নিয়ে পড়ুয়াদের টেনশনের অভাব নেই। এই অবস্থায় কীভাবে দেখবেন ফল?‌ দেখে নিন ওয়েবসাইটগুলি।

কীভাবে দেখবেন ফল?‌
 উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের তরফে অনলাইনে ফলাফল প্রকাশ করা হবে।  ওয়েবসাইট, এসএমএস, অ্যাপের মাধ্যমে পরীক্ষার ফল জানতে পারবেন উচ্চ মাধ্যমিকের পরীক্ষার্থীরা। একাধিক ওয়েবসাইটে দেখা যাবে ফল। সেগুলি হল-
wbresults.nic.in
 www.exametc.com
 www.results.shiksha 
www.indiaresults.com

ওয়েবসাইটে গিয়ে কী করতে হবে?‌
 wbresults.nic.in ওয়েব সাইটে  গিয়ে  WBCHSE class 12 results লিঙ্কে ক্লিক করতে হবে। এরপর নিজের রেজিস্ট্রেশন নম্বর এবং জন্ম তারিখ দিতে হবে।  তারপর Submit-এ ক্লিক করতে হবে।  তাতেই স্ক্রিনে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার রেজাল্ট দেখাবে। ভবিষ্যতের জন্য তা ডাউনলোড করে রাখা ভালো। এসএমএসে ফল জানতে হলে টাইপ করতে হবে WB , পাঠিয়ে দিতে হবে 54242/ 56263/58888 নম্বরে।  যেহেতু এবার অ্যাডমিট কার্ড এখনও পায়নি পরীক্ষার্থীরা, তাই উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ সূত্রে জানিয়েছে, সংশ্লিষ্ট পরীক্ষার্থীর রেজিস্ট্রেশন নম্বর দিয়েই ওয়েবসাইটে ফল দেখা যাবে। 

কবে মিলবে মার্কশিট?
বিকেল চারটের পর পড়ুয়ারা পশ্চিমবঙ্গ উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের ওয়েবসাইটে গিয়ে রেজাল্ট দেখতে পারবেন। তবে মার্কশিট মিলবে পরেরদিন অর্থাৎ ২৩ জুলাই সকাল ১১টার পর। গতবছর তিনদিনের পরীক্ষা বাকি থাকতেই বাতিল হয়েছিল উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা।  এবার করোনা সংক্রমণের জেরে পুরো পরীক্ষাই বাতিল হয়েছে। স্বাভাবিকভাবেই পরীক্ষার কয়েকদিন আগে স্কুলে স্কুলে অ্যাডমিট কার্ড পাঠানোর যে রেওয়াজ, তা এবার সম্ভব হয়নি। উচ্চমধ্যমিক শিক্ষা সংসদ জানিয়েছে, কাল সকাল ১১টা থেকে স্কুলগুলিকে মার্কশিট সার্টিফিকেটের সঙ্গে অ্যাডমিট কার্ডও দেওয়া হবে। 

কীভাবে মূল্যায়ন?
 এবার উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীর সংখ্যা প্রায় ৯ লক্ষ। পরীক্ষা না হওয়ায় তাদের কীভাবে মূল্যায়ন হচ্ছে সেই প্রশ্ন রয়েছে অনেকের মনে। তাতে শিক্ষা সংসদ জানিয়েছে, উচ্চমাধ্যমিকের মার্কশিট তৈরি হবে মাধ্যমিক, একাদশের বার্ষিক এবং দ্বাদশের প্রাক্টিক্যাল বা প্রজেক্টের নম্বরের ভিত্তিতে। অর্থাৎ ২০১৯ সালের মাধ্যমিকের সর্বাধিক প্রাপ্ত নম্বরের নিরিখে চারটি বিষয় থেকে ৪০ শতাংশ, ২০২০ সালের একাদশ শ্রেণির লিখিত পরীক্ষার প্রাপ্ত নম্বরের ৬০ শতাংশ ও দ্বাদশের প্রজেক্ট (২০ নম্বর) ও প্র্যাক্টিকাল (৩০ নম্বর)-এর গড় হিসাব করে দ্বাদশ শ্রেণির রেজাল্ট তৈরি হবে। তবে এই পদ্ধতিতে  এই পদ্ধতিতে মূল্যায়নে কেউ সন্তুষ্ট না হলে কোভিড পরিস্থিতি স্বাভাবিকের পর পরীক্ষায় বসতে পারবেন পড়ুয়ারা। তবে সেক্ষেত্রে পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরকেই উচ্চমাধ্যমিকের ক্ষেত্রেও চূড়ান্ত বলেই ধরা হবে।