scorecardresearch
 

College Street : ৫০ শতাংশ ছাড়! বই নিয়ে হইচই কলেজ স্ট্রিটে

কোভিড বিধি মেনে হবে সব কিছু। জানাচ্ছেন দে'জ-এর কর্তা শুভঙ্কর দে (অপু)।

কলকাতার কলেজ স্ট্রিট। ছবি: গেটি ইমেজেস কলকাতার কলেজ স্ট্রিট। ছবি: গেটি ইমেজেস
হাইলাইটস
  • শুরু হবে ১১ তারিখ থেকে
  • চলবে পাঁচদিন
  • মিলবে ৫০ শতাংশ ছাড়

শুরু হবে ১১ তারিখ থেকে। মানে ১১ আগস্ট। চলবে পাঁচদিন। মিলবে ৫০ শতাংশ ছাড়। কলেজ স্ট্রিটে এমনই আয়োজন। কীসে ছাড়? অবশ্যই বইয়ে। প্রকাশনী সংস্থা দে'জ এই আয়োজন করেছে। কোভিড বিধি মেনে হবে সেই বই উৎসব।

ঢালাও ছাড়
দিন কয়েক বাদেই আসছে স্বাধীনতা দিবস। আর সে কথা মাথার রেখে এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। দে'জ-এর সব বইয়ে ৫০ শতাংশ ছাড় পাওয়া যাবে। ১১-১৫ আগস্ট, বেলা ১২টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত। তবে তাঁদের মূল বিপণীতে নয়। এ জন্য বইপ্রেমীদের যেতে হবে বিদ্যাসাগর টাওয়ারে।

মাস্ক পরা, দূরত্ব বিধি নেমে চলতে হবে
কোভিড বিধি মেনে হবে সব কিছু। জানাচ্ছেন দে'জ-এর কর্তা শুভঙ্কর দে (অপু)। তিনি জানান, কলজে স্ট্রিটে মোহিনীমোহন শাড়ির দোকানের পিছনে বইয়ের বাজার রয়েছে। সেখানকার নীচে জায়গা নেওয়া রয়েছে। ভেতরে জায়গা আছে অনেক।

তবে সেখানে যাতে ভিড় না হয়, সে দিকে সতর্ক তাঁরা। ঠিক করেছেন, একসঙ্গে ১৫-২০ জনের বেশি ঢোকাবেন। তার বেশি নয়। তাঁদের মধ্যে থেকে যিনি বা যাঁরা বেরিয়ে আসবেন, তারপর সেই বুঝে অন্য বইপ্রেমীদের ঢোকানো হবে।

নতুন পুরনো
সেখানে ওই ক'দিন- সব রকমের বই-ই থাকবে। আর সব বইতেই ৫০ শতাংশ ছাড় দেওয়া হবে। তা সে নতুন হোক বা পুরনো। এমন নয় য়ে, পুরনো বই বলে বেশি ছাড় দেওয়া হবে। সেখান থেকে কেনা বই ফেরত দেওয়া যাবে না।

টাকা দেওয়ার উপায়
কার্ড এবং ক্যাশে বইয়ের দাম দেওয়া যাবে। তবে ইউপিআই-তে নেওয়া যাবে না। এমনই ঠিক করেছেন তাঁরা।

কেন
এ ব্য়াপারে শুভঙ্কর জানান, অনেকেই বলছেন, এই সময়ে কেন এটা করছেন? ঘটনা হল, এখন বাজার খুলে দিয়েছে। মলে বিশাল ছাড় দিচ্ছে। প্রায় সব জায়গায় দেখছি এমনটা হচ্ছে। কোথাও ৩০, কোথাও ৫০ শতাংশ ছাড় দেওয়া হচ্ছে। সেখানে যদি ছাড় দিতে পারে, তা হলে বইয়ের ক্ষেত্রে নয় কেন?

তিনি বলেন, "কী বই থাকছে, কী বই থাকছে না, তা ঠিক নেই। তবে নতুন পুরনো- সবই থাকবে। এটা কেন নেই। একটা শেষ হয়ে গেলে পরে আবার আসবে কিনা, জানি না। এখানে যে বই পাওয়া যাবে, তার সঙ্গে মূল বিপণির কাউন্টারের কোনও সম্পর্ক নেই।" 

কম দামে বই
জাতীয় ছুটির দিন যেমন সাধারণতন্ত্র দিবস বা স্বাধীনতা দিবসকে উপলক্ষ করে কলেজ স্ট্রিটে খুব কম দামে। বই সে সময় অনেক দুষ্প্রাপ্য বই পাওয়া যায়। শুভঙ্কর বলেন, "আমার কাছে শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের সই করা বই রয়েছে। অবিশ্বাস্য কম দামে বই পাওয়া যায়। কলুটোলা স্ট্রিটে মানে বিশ্ববিদ্যালয়ের গায়ে রোজ দিন বসে কম দামে পুরনো বই পাওয়া যায়।"

বইয়ের স্বাধীনতা উৎসব
করোনা, লকডাউন, আংশিক লকডাউনের কারণে সব কিছুই প্রায় বন্ধ। স্কুল-কলেজ থেকে অফিস। প্রভাব সর্বত্র। আর সেই ছোঁয়া পড়েছে বইপাড়াতেও। বই ছাপা থেকে বিক্রি- মার খেয়েছে সব। তাই অনেকে বলছেন, এ যেন বইয়ের স্বাধীনতা উৎসব!

সব ছবি: গেটি ইমেজেস

 

 
; ; ;