scorecardresearch
 

Covid Vaccination Starts for Private School Students in Kolkata : কলকাতার বেসরকারি স্কুল পড়ুয়াদের জন্য় চালু কোভিড টিকাকরণ

Covid Vaccination Starts for Private School Students in Kolkata: সরকারি স্কুলের সঙ্গে বেসরকারি স্কুল (Private School)-এ কোভিড ভ্যাকসিন (Covid Vaccination) শুরু করল কলকাতা পুরসভা (KMC)।

কলকাতার বেসরকারি স্কুলে চালু করোনার টিকাকরণ কলকাতার বেসরকারি স্কুলে চালু করোনার টিকাকরণ
হাইলাইটস
  • সরকারি স্কুলের সঙ্গে বেসরকারি স্কুলে ভ্যাকসিন শুরু করল কলকাতা পুরসভা
  • পশ্চিমবঙ্গে মেলা, খেলা, রাজনৈতিক মিটিং-মিছিল কমবেশি সবই চলছে
  • কিন্তু বন্ধ রয়েছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো

Covid Vaccination Starts for Private School Students in Kolkata: সরকারি স্কুলের সঙ্গে বেসরকারি স্কুল (Private School)-এ কোভিড ভ্যাকসিন (Covid Vaccination) শুরু করল কলকাতা পুরসভা (KMC)। পশ্চিমবঙ্গে মেলা, খেলা, রাজনৈতিক মিটিং-মিছিল কমবেশি সবই চলছে। এমনকী বাজারহাট-দোকানপাটও খোলা। 

আরও পড়ুন: দুনিয়ায় প্রথম! স্কুল পড়ুয়াদের ব্লাড ডোনার্স ক্লাব, নিউ ব্য়ারাকপুরে

বন্ধ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান
কিন্তু বন্ধ রয়েছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো। ফলে বিভিন্ন মহল থেকে প্রতিদিনই রাজ্যের স্কুল-কলেজ খোলার দাবি জোরদার হচ্ছে। শাসকদল বাদে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলিও এই দাবিতে সুর চড়াচ্ছে।

রাজ্য জানিয়েছে
এই অবস্থায় রাজ্যর শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু জানিয়েছেন, স্কুল খোলার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায় (WB CM Mamata Banerjee) বিষয়টি পর্যালোচনা করছেন। তিনি শিক্ষার্থীদের টিকারনের বিষয়ে জোর দিচ্ছেন। যাতে স্কুল খোলার পর আবার বন্ধ করে দিতে না হয়। 

আরও পড়ুন: 'কেন্দ্রীয় বাহিনীই চাই', কমিশনের ওপর চাপ বাড়িয়ে দাবি শুভেন্দুর

ধাপে ধাপে স্কুল খুলবে
ফলে সব পরিস্থিতি বিবেচনা করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায় (WB CM Mamata Banerjee) ধাপে ধাপে স্কুল খোলার পক্ষে। অবিভাকদেরও এক মত, দীর্ঘ দেড় বছরের স্কুল-কলেজ বন্ধ থাকার পর খোলা হলেও সংক্রমণের কারণে আবার বন্ধ করে দিতে হয়েছিল। আর যেনো তা না হয়। তবে তারাও স্কুল-কলেজ খোলার পক্ষে জোরালো দাবি জানাচ্ছেন। 

চিন্তা বাড়ছিল কলকাতা নিয়ে
অন্যদিকে, কয়েক সপ্তাহ আগেই দেশের সব শহরের মধ্যে করোনা পজিটিভিটি রেটে শীর্ষে ছিল কলকাতা। যা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছিল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক। আক্রান্তের সংখ্যা কিছুটা কমলেও দৈনিক মৃত্যু সংখ্যা কপালে চিন্তার ফেলেছে বিশেষজ্ঞদের। এসবের মধ্যে কলকাতায় অনেকটাই পিছিয়ে পড়েছে ১৫-১৮ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের করোনা টিকা দেওয়ার ক্ষেত্রে।

আরও পড়ুন: শিশুকে ঠান্ডার হাত থেকে বাঁচাতে নজর দিন এই ৫ দিকে, চনমনে থাকবে সন্তান

তথ্য মতে, টিকাকরণে রাজ্যের বাকি জেলার থেকে পিছিয়ে শহর কলকাতা। রাজ্যে গত ৩ জানুয়ারি থেকে ১৫-১৮ বছর বয়সীদের টিকাকরণ কর্মসূচি শুরু হয়েছে। রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের পরিসংখ্যান জানাচ্ছে, ভ্যকসিন প্রাপ্তির হারে সব চেয়ে খারাপ ফল করা জেলাগুলির মধ্যে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে কলকাতা। 

আরও পড়ুন: ভারতে রোজ ২২৯ ব্যাঙ্কিং ফ্রড, ৭ বছরে উধাও ৬ লক্ষ কোটি টাকা, আপনার অ্যাকাউন্ট সুরক্ষিত?

এখানে ১৫-১৮ বছরের শিক্ষার্থীদের মাত্র ৩৭ শতাংশ শিক্ষার্থী টিকা পেয়েছে। কলকাতার পরেই রয়েছে উত্তর ২৪ পরগনা। সেখানে ওই বয়সীদের ৪১ শতাংশ প্রতিষেধক পেয়েছে। 

কলকাতাকে পিছনে ফেলে অনেক এগিয়ে গেছে বাঁকুড়া, পুর্ব মেদিনিপুর, আলিপুরদুয়ার, মুর্শিদাবাদ, নদিয়া, পশ্চিম মেদিনীপুরের মতো জেলাগুলি। পরিসংখ্যান অনুযায়ী, এখনও পর্যন্ত রাজ্যে ১৫-১৮ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের ৫৪ শতাংশ টিকা পেয়েছে। সেখানে কলকাতা দিতে পেরেছে মাত্র ৩৭ শতাংশ।

শুরু বেসরকারি স্কুলে
এ পরিস্থিতিতে কলকাতা পুরসভা সরকারি স্কুলের পাশাপাশি সহযোগিতায় শুরু করেছে বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর দিকে। মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) ১৫ থেকে ১৮ বছর বয়সীদের টিকাকরণ (Covid Vaccination) শুরু হয়েছে টালিগঞ্জ কুঁদঘাটের এক বেসরকারি স্কুল মনসুর হাবিবউল্লা মেমোরিয়াল স্কুলে। এদিন সেখানে ভ্যাকসিন (Covid Vaccination) নিয়েছে নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থীরা। 

ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষিকার কথায়, আমার সব দিক থেকে প্রস্তুত হচ্ছি। যেদিনই রাজ্য সরকার স্কুল খোলার অনুমতি দেবে সেদিন থেকে শুরু করে দেব। কলকাতা পুরসভার সহযোগিতায় শিক্ষার্থীদের করোনা টিকাকরণ করতে পেরে আমাদেরও ভাল লাগছে।