scorecardresearch
 
 

শান্তিনিকেতনের 'কালো বাড়ি'র আদলে নিউ টাউনে তৈরি হচ্ছে আদিবাসী সংগ্রহশালা

হিডকো (HIDCO) সূত্রে খবর, নিউ টাউনের ইকো আরবান ভিলেজ (Eco Urban Village)-এ এটি তৈরি করা হবে। সেখানে ছিল একটি আখড়া। তবে তা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এবং নষ্ট হয়ে গিয়েছে। সেটা ঠিক করার বদলে সেখানে এই পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। ঠিক করা হয়েছে, সেখানে তৈরি করা হবে একটি সংগ্রহশালা।

ইকো আরবান ভিলেজে তৈরি হতে চলেছে আদিবাসী সংগ্রহশালা। ছবি সৌজন্য: ফেসবুক ইকো আরবান ভিলেজে তৈরি হতে চলেছে আদিবাসী সংগ্রহশালা। ছবি সৌজন্য: ফেসবুক
হাইলাইটস
  • নিউ টাউনে তৈরি হতে চলেছে আদিবাসী সংগ্রহশালা
  • শান্তিনিকেতনের 'কালো বাড়ি'র আদলে সেটি তৈরি করা হবে
  • নিউ টাউনের ইকো আরবান ভিলেজ এটি তৈরি করা হবে

নিউ টাউন (New Town) তৈরি হতে চলেছে আদিবাসী সংগ্রহশালা (Tribal Museum)। শান্তিনিকেতনের 'কালো বাড়ি' (Kalo Bari)-র আদলে সেটি তৈরি করা হবে। আদিবাসী সম্প্রদায়ের ব্যবহার্য বিভিন্ন জিনিসপত্র দেখার সুযোগ মিলবে সেখানে।

হিডকো (HIDCO) সূত্রে খবর, নিউ টাউনের ইকো আরবান ভিলেজ (Eco Urban Village)-এ এটি তৈরি করা হবে। সেখানে ছিল একটি আখড়া। তবে তা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এবং নষ্ট হয়ে গিয়েছে। সেটা ঠিক করার বদলে সেখানে এই পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। ঠিক করা হয়েছে, সেখানে তৈরি করা হবে একটি সংগ্রহশালা।

যেখানে থাকবে আদিবাসী সম্প্রদায়ের মানুষের ব্যবহার্য বিভিন্ন জিনিসপত্র। বিশিষ্ট শিল্পী রূপচাঁদ কুণ্ডু তৈরির দায়িত্ব নিয়েছেন। ঠিক করা হয়েছে সংগ্রহশালাটি হবে দু তলার এবং শান্তিনিকেতনের 'কালো বাড়ি'র অনুকরণে সেটিকে বানানো হবে। 

কী কী জিনিস থাকবে সেখানে
হিডকো (HIDCO) সূত্রে আর জানা গিয়েছে, সেখানে আদিবাসী সম্প্রদায়ের বিভিন্ন জিনিসপত্র রাখা হবে। তার মধ্যে যেমন থাকবে বাদ্যযন্ত্র, শিকার করার বিভিন্ন রকমের যন্ত্রপাতি, অস্ত্রশস্ত্র, তেমনই নিত্য ব্যবহার্য জিনিসপত্রও রাখার পরিকল্পনা রয়েছে তাদের। থাকবে ডোকরা, বাঁশের জিনিস। তবে মাটির জিনিস কম রাখার পরিকল্পনা রয়েছে। কারণ সেগুলি তাড়াতাড়ি ভেঙে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

কোন কোন অঞ্চলের জিনিসপত্র থাকবে
মূলত বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, বীরভূম, পশ্চিম মেদিনীপুরের মতো জেলাগুলি থেকে জিনিসপত্র সংগ্রহ করা হবে। সেগুলি দেখানোর ব্যবস্থা থাকবে। এবং কোন জিনিস কোন কাজে লাগে তা-ও লেখা থাকবে। যাতে সহজে মানুষ বিষয়গুলি সম্পর্কে জানতে পারেন।

কেন এই উদ্যোগে
এমনিতেই ইকো আরবান ভিলেজ (Eco Urban Village) ভ্রমণপিপাসুদের জন্য বেশ আকর্ষণীয় একটি জায়গা। তবে দেখা গিয়েছে, শীতকালে সেখানে বেশি ভিড় হয়। এবং অন্য সময় তুলনামূলক কম হয়। তাই সারা বছর যাতে মানুষ এখানে আসেন তাই এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

সেখানকার প্রকৃতির শোভা অপরূপ। রয়েছে খোলা জায়গা, মাঠ, জলাশয়। এছাড়া হরেক রকম পাখির দেখারও সুযোগ থাকে। এর মাঝে আদিবাসী সংগ্রহশালা অন্য মাত্রা যোগ করবে নিউ টাউনের পর্যটন মানচিত্রে। তা তৈরির কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। হিডকোর আশা, বছর খানেকের মধ্যে সেই কাজ শেষ হয়ে যাবে।