scorecardresearch
 
 

Pegasus ইস্যুতে ফের মমতা! 'ওয়াটারগেটের চেয়েও বড় কেলেঙ্কারি'

পেগাসাস ইস্যুতে এবার সরব হলেন মুখ্যমন্ত্রী  মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন সাংবাদিক বৈঠকে তাঁর দাবি, পেগাসাস ওয়াটারগেট থেকেও বড় কেলেঙ্কারি। কেন্দ্রীয় সরকার সবার কন্ঠরোধ করতে চাইছে। পাশাপাশি ভোট পরবর্তী হিংসার অভিযোগ উড়িয়ে দেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি জানান, ফল প্রকাশের আগে ২-১টা ঘটনা হয়েছিল।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
হাইলাইটস
  • Pegasus ইস্যুতে ফের মমতা
  • 'ওয়াটারগেটের চেয়েও বড় কেলেঙ্কারি'
  • কেন্দ্রকে তোপ মমতার

পেগাসাস ইস্যুতে এবার সরব হলেন মুখ্যমন্ত্রী  মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন সাংবাদিক বৈঠকে তাঁর দাবি, পেগাসাস ওয়াটারগেট থেকেও বড় কেলেঙ্কারি। কেন্দ্রীয় সরকার সবার কন্ঠরোধ করতে চাইছে। পাশাপাশি ভোট পরবর্তী হিংসার অভিযোগ উড়িয়ে দেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি জানান, ফল প্রকাশের আগে ২-১টা ঘটনা হয়েছিল।

মমতা বলেন, আগামী ১৬ আগস্ট খেলা হবে দিবস পালিত হবে। ওইদিন ১ লাখ ফুটবল গ্রামে, বিভিন্ন ক্লাবে দেওয়া হবে। অরূপ বিশ্বাস এ বিষয়ে কাগজ তৈরি করছেন। কোনও ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে কিছু হয়নি। একদিকে পেগাসাস, মোদীবাবুর নাভিঃশ্বাস। সকলের কন্ঠবন্দি করার চেষ্টা চলছে। ওয়াটেরগেট কেলেঙ্কারি থেকেও বড় কেলেঙ্কারি পেগাসাস। এমার্জেন্সি থেকেও সুপার এমার্জেন্সি। এসব হিটালারি কায়দায় কতদিন মানুষকে ভয় দেখিয়ে রাখবেন। মানুষ ভয় দেখাচ্ছে। বিরোধীদের কথা বলতে দেওয়া হয় না। প্রত্যেকটি এজেন্সিকে পেগাসাস তৈরি করা হয়েছে। নিজেদের মন্ত্রী ও অফিসারদের কি কেন্দ্র বিশ্বাস করে না? শুনেছি আরএসএস নেতাদেরও ফোন ট্যাপ হয়েছে। 

মমতা বলেন, আগে আমরা ভাবতাম হোয়াটসঅ্যাপ সবথেকে বড় সেফ। কিন্তু ওটাই সবথেকে বড় সুরক্ষাহীন। ওর মধ্যে দিয়েই সব চলছে। আমি, অভিষেক, সুব্রত বক্সি এবং পিকে একদিন মিটিং করছিলাম। ফোনগুলি সব এক জায়গায় ছিল সেটাও রেকর্ড করে নিয়েছিল। পিকের ফোন অডিট করে দেখছে এগুলো সমস্ত রয়েছে। পরিস্থিতি কোন দিকে গিয়েছে। ফোনে প্লাস্টার দিয়ে প্রতীকী প্রতিবাদ করছি। আজ মিডিয়ার মুখ বন্ধ করা হয়েছে। কোন মিডিয়া কোন খবর দেখাবে, সেটা বিজেপির অফিস থেকে বলে দেওয়া হয়। 

মমতা বলেন, পেগাসা নিয়ে এতো বিতর্ক আর ওরা বলছে ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে। কিছু হয়নি এখানে। ২-১ ঘটনা হয়েছিল, সেটা নির্বাচনের ফল প্রকাশের আগে হয়েছিল। তখন দায়িত্বে ছিল নির্বাচন কমিশন। আদালত এটা নিয়ে সিদ্ধান্ত নেবে। ৪ তারিখে আমাকে ১ দিনের জন্য দায়িত্ব দিয়েছিল রাজ্যপাল। ৫ তারিখ আমি শপথ নিই। তারপর আমি গোটা রাজ্যে পুলিশ-জেলাশাসক পরিবর্তন করে। নির্বাচনের পরে বিজেপি যেখানে যেখানে জিতেছে সেখানে আমাদের লোকেদের খুন করেছে। সবথেকে বেশি তাণ্ডব করে বিজেপি। মানবধিকার কমিশনের একজন সদস্য তো শুনেছি বিজেপির সদস্য। পেগাসাস নিয়ে আমরা নিরপক্ষে তদন্ত চাই। কেন সুয়ামোটো ধারায় ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। কেন্দ্রীয় সরকার এটা নিয়ে এসেছে, মানুষের কন্ঠরোধ করতে।  দিল্লি যাব, প্রধানমন্ত্রীর কাছে সময় চেয়েছি।