scorecardresearch
 

রাজ্যের তথ্যপ্রযুক্তি নগরী নবদিগন্ত পাচ্ছে নিজের নামে মেট্রো স্টেশন

ঘটনা হল, নবদিগন্ত (Naba Diganta)-কে সবাই চেনে সেক্টর ৫ নামে। এর সরকারি নাম নবদিগন্ত। যা কলকাতার তথ্যপ্রযুক্তি নগরী। বেশ কিছু দিন সেই নামে মেট্রো স্টেশন রাখার চেষ্টা করা হচ্ছিল। এবার সেই কাজ পূরণ হতে চলেছে।

নিউ টাউনে চলছে মেট্রো কাজ। রাজ্যের তথ্যপ্রযুক্তি নগরী নবদিগন্ত পাচ্ছে নিজের নামে মেট্রো স্টেশন (প্রতীকি ছবি) নিউ টাউনে চলছে মেট্রো কাজ। রাজ্যের তথ্যপ্রযুক্তি নগরী নবদিগন্ত পাচ্ছে নিজের নামে মেট্রো স্টেশন (প্রতীকি ছবি)
হাইলাইটস
  • ঘটনা হল নবদিগন্তকে সবাই চেনে সেক্টর ৫ নামে
  • এর সরকারি নাম নবদিগন্ত
  • বেশ কিছু দিন সেই নামে মেট্রো স্টেশন রাখার চেষ্টা করা হচ্ছিল

কলকাতা, বিধাননগরে চলছে একের পর এক মেট্রো প্রকল্পের কাজ। এর ফলে আরও সহজে মানুষ যাতায়াত করতে পারবেন। কলকাতা মেট্রোয় দিন কয়েক আগেই চালু হয়ে গিয়েছে দক্ষিণেশ্বর পর্যন্ত পরিষেবা।

বিমানবন্দর থেকে গড়িয়া মেট্রো প্রকল্পের কাজ চলছে। ওই প্রকল্পের নিউ টাউনের অংশের কাজ অনেকটাই এগিয়েছে। এর অন্যতম প্রধান কারণ হল জমির কোনও সমস্যা না থাকা। আর তাই অন্য অংশের তুলনায় বেশ দ্রুতই এগিয়েছে তার কাজ।

ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর একাংশ চালু হয়ে যাওয়ায় এখন বিধাননগরবাসীও মেট্রোর পরিষেবা পাচ্ছেন। ফুলবাগান থেকে নবদিগন্ত (Naba Diganta)-এ অনেক আগেই পরিষেবা শুরু হয়ে গিয়েছে। তাই নবদিগন্ত উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (Nabadiganta Industrial Township Authority ye NDITA) চাইছিল, ওই এলাকার কোনও মেট্রো স্টেশনের নাম যাতে নবদিগন্তের নামে রাখা হয়।

ঘটনা হল, নবদিগন্ত (Naba Diganta)-কে সবাই চেনে সেক্টর ৫ নামে। এর সরকারি নাম নবদিগন্ত। যা কলকাতার তথ্যপ্রযুক্তি নগরী। বেশ কিছু দিন সেই নামে মেট্রো স্টেশন রাখার চেষ্টা করা হচ্ছিল। এবার সেই কাজ পূরণ হতে চলেছে।

রাজ্য সরকার এ ব্যাপারে সম্মতি দিয়েছে। পরিবহণ দফতর ঠিক করেছে, বিমানবন্দর থেকে গড়িয়া রুটে তা করা হবে। গড়িয়া থেকে কোনও যাত্রী যখন বিমানবন্দরের দিকে যাবেন, তিনি তিনি যখন নিউ টাউনে প্রবেশ করবেন, তার আগের স্টেশনটির নাম হবে নবদিগন্ত (Naba Diganta)। এটা ওয়েবেলের বিএন-৪ তথ্যপ্রযুক্তি পার্কের বিপরীতে তৈরি হচ্ছে।

শুধু এটাই নয়, নবদিগন্ত (Naba Diganta)-এর আরও একটা স্টেশনের নাম রাখা হবে স্থানীয় আবেগ, বৈশিষ্টকে মাথায় রেখে। ওই স্টেশনটির নাম হবে নলবন। সেটি বোলার'স ডেন-এর সামনে তৈরি হচ্ছে। এ ব্যাপারে নবদিগন্ত উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে নিয়মিত আলোচনা চালাচ্ছে।

এই নাম রাখার কাজ অবশ্য নতুন কিছু নয়। মানুষের সুবিধার জন্য এই উদ্যোগ। এখন যে জায়গাগুলো মানুষ সহজে চেনেন, তার নামেই মেট্রো স্টেশনের নাম রাখার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। যেমন নিউ টাউনের মেট্রোর ক্ষেত্রে রেলের দেওয়া রবীন্দ্র তীর্থের বদলে রাজ্য নাম দিতে চেয়েছে চিনার পার্ক, তিতুমীর-এর জায়গায় সিটি সেন্টার-২। এমন আরও অনেক রয়েছে। এখনও পর্যন্ত ঠিক আছে, নিউ টাউনে মোট ৯টি মেট্রো স্টেশন তৈরি হতে চলেছে।

 

 
; ; ;