scorecardresearch
 

Fighter Jet at Kolkata Airport: কলকাতা এয়ারপোর্টে হঠাত্‍ নামল যুদ্ধবিমান, কেন?

মঙ্গলবার কলকাতায় হঠাৎ করেই ফাইটার জেট বিমানের আওয়াজ শোনা যায়, তখন মানুষের চোখ স্বাভাবিক ভাবেই কৌতূহলী হয়ে ওঠে। সেই সঙ্গে মনে একটা প্রশ্নও জাগে, কলকাতায় কী করছে ফাইটার জেট? এবার কলকাতায় এই যুদ্ধবিমানগুলির অবতরণের সম্পূর্ণ কারণ সামনে এসেছে।

কলকাতা বিমানবন্দের হঠাৎ  'ফাইটার জেট' কলকাতা বিমানবন্দের হঠাৎ 'ফাইটার জেট'
হাইলাইটস
  • এই যুদ্ধবিমানগুলি দক্ষিণ কোরিয়ার
  • ইউরোপ থেকে ফেরার সময় কলকাতায় অবতরণ করে

মঙ্গলবার কলকাতার আকাশে ফাইটার জেটের গর্জন শুনে মানুষ চমকে উঠেছিল। কলকাতার দমদম এয়ারপোর্টের আশেপাশে হঠাৎ যুদ্ধ বিমানের আওয়াজ শোনা যায়। যাকৌতূহলের পাশাপাশি মানুষের ভয়ও বাড়িয়ে দেয়। ফাইটার জেট কলকাতায় কী করছে ? এই প্রশ্নই ঘিরে ধরে সাবাইকে।

জানা গেল,  মঙ্গলবার বিকেল থেকে দক্ষিণ কোরিয়ার ৯টি ব্ল্যাক ঈগল বিমান কলকাতায় ক্যাম্প করেছে। তবে এটি কোনো ধরনের যুদ্ধের সূচনা নয়। বরং এই ফাইটার জেটগুলি বিমানবন্দরের এপ্রোন এলাকায় পার্ক করা হয়েছে। এগুলো সব কোরিয়ান ফাইটার জেট (T50B)। কালো এবং হলুদ উড়োজাহাজের গায়ে বড় অক্ষরে Black Eagles লেখা রয়েছে।

 

এখন প্রশ্ন হচ্ছে, যখন যুদ্ধ নেই, তখন হঠাৎ কলকাতা বিমানবন্দরে কী করছে এই যুদ্ধবিমানগুলো? তার উত্তর পাওয়া গেছে বিমানবন্দরের কর্মকর্তাদের কাছ থেকে। কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, বিমানবন্দর এসব বিমানকে শেল্টার দিয়েছে। বুধবার কলকাতা বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ এই বিষয়ে একটি টুইটও করেছে। সেই অনুযায়ী, এই কোরিয়ান ফাইটার জেটগুলি কলকাতা বিমানবন্দরে অবতরণ করেছে জ্বালানি ও পাইলটদের স্বাচ্ছন্দ্যের জন্য।

কোরিয়ার ব্লাগ ঈগন  বিমান সাধারণত প্রশিক্ষণের জন্য ব্যবহৃত হয়। এই ৯ টি কোরিয়ান বিমান ব্রিটিশ এয়ার শোতে অংশ নিতে ইংল্যান্ডে গিয়েছিল। মঙ্গলবার কলকাতায় পৌঁছয়। এখানেই রিফুয়েল ও বিশ্রাম নেয়।  ইউরোপ থেকে ফেরার সময় তারা  কলকাতা বিমানবন্দরকে বেছে নেন জ্বালানি ও বিশ্রামের জন্য।