scorecardresearch
 

মুখের দুর্গন্ধ থেকে বাঁচতে ভুলেও এসব নয়, রোজ খাবারে রাখুন এগুলি

মুখের দুর্গন্ধ থেকে বাঁচতে এগুলি থেকে দূরে থাকুন, রোজ খাবারে রাখুন এগুলি। মিলবে দ্রুত লাভ। আর আপনার সোস্যাল ইমেজও থাকবে ভাল।

মুখের দুর্গন্ধ থেকে বাঁচতে করুন এই জিনিসগুলি মুখের দুর্গন্ধ থেকে বাঁচতে করুন এই জিনিসগুলি
হাইলাইটস
  • মুখের দুর্গন্ধ থেকে বাঁচতে এগুলি থেকে দূরে থাকুন
  • রোজ খাবারে রাখুন এগুলি
  • সোস্যাল ইমেজ বজায় রাখতে হলে এগুলি করতে হবে

মুখের দুর্গন্ধের সমস্যায় অনেক সমস্যায় জেনারেল হাইজিন তো খারাপ করেই, পাশাপাশি লোকসমাজে আপনার ইমেজ ডাউন করে দেয়। এটি শরীরের অনেক রকম সমস্যার কারণে তৈরি করতে পারে। খাওয়া-দাওয়ার প্রভাব থেকে শুরু করে শারীরিক কোনও রকম ত্রুটি মুখের দুর্গন্ধের কারণ হতে পারে। মেডিকেলের ভাষায় নিঃশ্বাসের দুর্গন্ধ, বলা হয় এক্সপার্টদের বক্তব্য অনুযায়ী ফ্রেশ সুগন্ধ ডেন্টাল হাইজিন এর সঙ্গে জড়িত। এ কারণে জানা জরুরি যে কীভাবে ফুড আইটেম নিঃশ্বাসে দুর্গন্ধ কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

দুর্গন্ধ বাড়ায় যে ফুড আইটেমগুলি

১. রসুন- নিঃশ্বাসের দুর্গন্ধ যে সমস্ত জিনিস খেলে হয়, সবচেয়ে প্রথম নাম আসে রসুনের। এতে সালফার এর মাত্রা অত্যন্ত বেশি থাকে। এটি খেলে তার সঙ্গে সঙ্গেই প্রভাব দেখা যায়। সালফার আমাদের রক্তে মিশে যায় এবং নিঃশ্বাস ছাড়লে এটি বাইরে বেরিয়ে আসে যাতে, নিঃশ্বাসে দুর্গন্ধ দেখা দেয়।

২. চিজ- এরপরের ফুড আইটেম হল চিজ। এতে অ্যামিনো অ্যাসিড থাকে। যা মুখে প্রাকৃতিক রূপে পাওয়া যায়। সে সমস্ত ব্যাকটেরিয়ার সঙ্গে মিলিয়ে সালফার কমপাউন্ড তৈরি করে। রিঅ্যাকশন থেকে হাইড্রোজেন সালফাইট তৈরি হয়। যা অনেক দুর্গন্ধ তৈরি করার জন্য কারণ হিসেবে কাজ করে।

৩.কফি এবং অ্যালকোহল- এই দুটি ড্রিংকস থেকে দূরত্ব রাখাটাই ভাল। তাতে মুখের দুর্গন্ধ কম থাকবে। এই দুটো জিনিস মুখকে ডিহাইড্রেট করে দেয় এবং দুর্গন্ধওয়ালা ব্যাকটেরিয়া ডেকে আনে। আমাদের রক্তে লম্বা সময় অ্যালকোহল জমে থাকে এবং এর প্রভাবে লম্বা সময় পর্যন্ত দুর্গন্ধ ছড়াতে থাকে।

৪. চিনি- এটিও বেশি মাত্রায় সেবন করলে নিঃশ্বাসের দুর্গন্ধের কারণ হতে পারে। এটি মুখে ক্যানডিডা ইস্ট এর স্তর বাড়িয়ে দেয়। সুগার বেশিমাত্রায় খেলে এমন একটি সাদা জিভ দিয়ে পরিচয় পাওয়া যেতে পারে, যেটি সে বিষয়ে সংকেত দেয় যে আপনার ডায়েট এবং ইন্টারনাল হাইজিনের উপর এখনই মনোযোগ দেওয়াটা জরুরি।

নিঃশ্বাসে দুর্গন্ধ আটকায় কোন জিনিসগুলি?

১. নিঃশ্বাসে দুর্গন্ধ দূর করার জন্য প্রথম জিনিস হল গ্রিন টি। এটি অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট দেয় এবং এর মধ্যে ন্যাচরাল কমপাউন্ড থাকে। যার খারাপ হাইজিনের সঙ্গে লড়াই করে। যাতে নিঃশ্বাসে দুর্গন্ধ হয় না।

২. পুদিনা- পুদিনা পাতা নিঃশ্বাসে দুর্গন্ধ দূর করতে সাহায্য করে এবং এটি নিঃশ্বাসের দুর্গন্ধ তৈরি করা জিনিসগুলোকে দূরে সরিয়ে তাজা সুগন্ধ নিয়ে আসে। স্যালাড, পরোটা বা সরবত করে পুদিনা খাওয়া যেতে পারে।

৩.লবঙ্গ- লবঙ্গে ন্যাচরাল ইনগ্রিডিয়েন্স আছে যেখানে অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল এর মত কাজ করে। নিঃশ্বাসের জন্য এটি অত্যন্ত ভালো কাজ করে। লবঙ্গ চাবিয়ে অথবা এটি চায়ে দিয়েও খেতে পারেন।

এছাড়া নিজের রুটিন ডেন্টাল হাইজিন বজায় রাখতে দিনে দু'বার ব্রাশ, মাউথওয়াশ দিয়ে কুলকুচি করা, মাঝেমধ্যে ফ্লাসিং করা উচিত। কখনও কখনও নিঃশ্বাসের দুর্গন্ধ, ক্যাভিটি, মাড়ির রোগ অথবা অভ্যন্তরীণ রোগের কারণে হতে পারে। তাহলে প্রয়োজন পড়লে চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করতে হবে।