scorecardresearch
 

Covid Updates : কানে সারাক্ষণ শিসের আওয়াজ! ওমিক্রনের নয়া উপসর্গ বাড়াচ্ছে চিন্তা

Covid Updates : করোনা ভাইরাসের নতুন ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টে বিভিন্ন ধরনের উপসর্গ দেখা যাচ্ছে, যা করোনা এবং সাধারণ ফ্লুর উপসর্গের মধ্যে পার্থক্য করা কঠিন করে তুলেছে। ব্রিটেনের রিপোর্ট করা Omicron-এর ২০ টি উপসর্গের তালিকায় একটি সম্পূর্ণ নতুন উপসর্গ দেখা দিয়েছে, যেখান থেকে এটি শনাক্ত করা গিয়েছে।

ওমিক্রনের দয়া উপসর্গ। ওমিক্রনের দয়া উপসর্গ।
হাইলাইটস
  • কানে সারাক্ষণ শিসের আওয়াজ!
  • ওমিক্রনের নয়া উপসর্গ বাড়াচ্ছে চিন্তা
  • জানুন বিস্তারিত তথ্য

করোনা ভাইরাসের নতুন ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টে বিভিন্ন ধরনের উপসর্গ দেখা যাচ্ছে, যা করোনা এবং সাধারণ ফ্লুর উপসর্গের মধ্যে পার্থক্য করা কঠিন করে তুলেছে। ব্রিটেনের রিপোর্ট করা Omicron-এর ২০ টি উপসর্গের তালিকায় একটি সম্পূর্ণ নতুন উপসর্গ দেখা দিয়েছে, যেখান থেকে এটি শনাক্ত করা গিয়েছে।

রিপোর্টে বলা হয়েছে, ওমিক্রন শরীরের অনেক অংশকে সংক্রমণ ঘটায়। হৃৎপিণ্ড, মস্তিষ্ক, চোখ ছাড়াও এখন কানেও এর প্রভাব পড়ছে। নতুন ভ্যারিয়েন্টটি কানে ব্যথা এবং কানের মধ্যে সারক্ষণ ঝিঁঝিঁ পোকার আওয়াজ, ঘণ্টা বা শিস বাজানোর মতো সমস্যা তৈরি করছে। বিশেষ করে এই উপসর্গটি সেই সমস্ত লোকেদের মধ্যে দেখা গিয়েছে, যাঁরা সম্পূর্ণ টিকা নেওয়া হয়েছে। এই ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্তরা ঠান্ডা লাগার মতো উপসর্গ অনুভব করছেন। এমন পরিস্থিতিতে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সময়মতো চিকিৎসা নিলে এই সমস্যা অনেকাংশে নিরাময় সম্ভব।

স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটির বিজ্ঞানীরা কোভিডের সংস্পর্শে আসা আক্রান্তদের কানের একটি মডেল পরীক্ষা করেছেন। পরীক্ষায় দেখা হয়েছে যে ভাইরাসটি কীভাবে কানকে প্রভাবিত করে। সেখানে দেখা যায়, রোগীরা কানে ব্যথা এবং শিহরণ-এর মতো উপসর্গ অনুভব করছেন। যা হয়তো মানুষ জানেও না যে এটি কোভিডের লক্ষণ।ডক্টর কনস্ট্যান্টিনা স্ট্যানকোভিচ বলেন, আপনি যদি শ্রবণশক্তি হ্রাস, কানে শব্দ বা মাথা ঘোরা সমস্যার সম্মুখীন হন তবে তা উপেক্ষা করবেন না। এমন পরিস্থিতিতে অবিলম্বে কোভিড পরীক্ষা করান। তিনি বলেন, অনেক রোগীর মধ্যে করোনার উপসর্গ হিসেবে আমরা শুধু শ্রবণশক্তি হারাতে দেখেছি।

এছাড়াও, কোভিড সিম্পটম স্টাডির অধ্যাপক টিম স্পেক্টর, সান অনলাইনকে বলেছেন যে করোনার এই রূপটি নাকের পরিবর্তে আপনার অন্য অন্ত্রে লুকিয়ে থাকতে পারে। এর মানে হল যে লোকেরা যখন সংক্রামিত হন এবং পেট খারাপের মতো লক্ষণগুলি অনুভব করে, কখনও কখনও তাঁদের কোভিড পরীক্ষা নেগেটিভ হতে পারে। এর কারণ নাকে বা মুখে ওমিক্রনের কোনো চিহ্ন নেই। তিনি বলেন, আমরা জানি এই ভাইরাস শরীরের বিভিন্ন স্থানে পাওয়া যায়। এমন পরিস্থিতিতে, এটি সম্ভব যে ওমিক্রন অন্ত্রেও সংক্রমণ ঘটাচ্ছে।