scorecardresearch
 

Norovirus Alert: শিশুদের মধ্যে দ্রুত ছড়াচ্ছে বিপজ্জনক Norovirus; উপসর্গ-চিকিৎসা কী?

Norovirus Symptoms: করোনাভাইরাসের প্রভাব সবে কমতেই নতুন একটি ভাইরাস ত্রাস সৃষ্টি করছে। করোনাভাইরাসের মতো নোরোভাইরাসও আতঙ্ক তৈরি করেছে। দক্ষিণ ভারতে বিশেষ করে কেরালায় এই রোগের অনেক কেস আসছে।

শিশুদের মধ্যে দ্রুত ছড়াচ্ছে Norovirus। —প্রতীকী ছবি। শিশুদের মধ্যে দ্রুত ছড়াচ্ছে Norovirus। —প্রতীকী ছবি।
হাইলাইটস
  • করোনাভাইরাসের প্রভাব সবে কমতেই নতুন একটি ভাইরাস ত্রাস সৃষ্টি করছে।
  • করোনাভাইরাসের মতো নোরোভাইরাসও আতঙ্ক তৈরি করেছে।
  • দক্ষিণ ভারতে বিশেষ করে কেরালায় এই রোগের অনেক কেস আসছে।

Norovirus Symptoms: করোনাভাইরাসের প্রভাব সবে কমতেই নতুন একটি রোগ এসে দাড়িয়েছে। করোনাভাইরাসের মতো নোরোভাইরাসও আতঙ্ক তৈরি করেছে। দক্ষিণ ভারতে বিশেষ করে কেরালায় এই রোগের অনেক কেস আসছে। এটা সরকার ও প্রশাসনের সামনে বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে। কেরালার এর্নাকুলাম জেলার একটি বেসরকারি স্কুলের ৬২ জন ছাত্র এই রোগের শিকার হয়েছে। 

শিশুদের মধ্যে এই রোগ ছড়াচ্ছে:
জেলার সিনিয়র মেডিকেল অফিসার জানান, দুই শিক্ষার্থীর মধ্যে এ রোগের লক্ষণ দেখে বর্তমানে দুটি নমুনা ল্যাবে পাঠানো হয়েছে। যেখানে উভয়ের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। শিশুদের পাশাপাশি তাদের পিতামাতার মধ্যে নোরাভাইরাসের লক্ষণ দেখা গেছে। শিশুদের মধ্যে এই রোগ বেশি ছড়াচ্ছে। আসুন জেনে নিই এর লক্ষণগুলো কী কী? আর তা থেকে বাঁচার উপায় ও চিকিৎসা। 

আরও পড়ুন: শীতে গাঁটে গাঁটে ব্যথা বেড়েছে? বাঁচতে এড়িয়ে চলুন এই ৪ রকমের খাবার

প্রতি বছর প্রায় ৫০ হাজার শিশু-মৃত্যু:
'ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশন'- এর মতে, সারা বিশ্বে প্রতি বছর প্রায় ৬৮ জন মানুষ নোরাভাইরাসে আক্রান্ত হয়। আক্রান্তদের মধ্যে সর্বোচ্চ ৫ বছর থেকে কম বয়সী শিশু রয়েছে। এই রোগে আক্রান্ত শিশুর সংখ্যা ২০ কোটি। এই বিপজ্জনক ভাইরাসের কারণে প্রতি বছর প্রায় ২ কোটি মানুষের মৃত্যু হয়। মৃতের সংখ্যা ৫০ হাজার মাত্র শিশু। 

'আমেরিকা'স সেন্টার ফর ডিজিজ' অনুসারে, নোরাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তিদের প্রাথমিকভাবে পেটের সমস্যা শুরু হয়। আপনি এটিকে পেট ফ্লু এবং পেটের বাগও বলতে পারেন। কিন্তু অনেক গবেষণায় এটা প্রমাণিত হয়েছে যে এই পেটের ফ্লু ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাসের সঙ্গে সম্পর্কিত। 

নোরোভাইরাস কী?
আমেরিকার ন্যাশনাল ফাউন্ডেশন ফর ইনফেকশাস ডিজিজেস অনুসারে, অনেক ভাইরাসের একটি গ্রুপকে নরোভাইরাস বলা হয়। এটি অত্যন্ত সংক্রামক। এই রোগটি একজন ব্যক্তির শরীরে প্রবেশ করার সঙ্গে সঙ্গে এটি তার পেট এবং অন্ত্রকে মারাত্মকভাবে প্রভাবিত করে। এ কারণে আক্রান্ত রোগীর প্রথমে গ্যাস্ট্রোএন্টেরাইটিসের সমস্যা শুরু হয়। শুধুমাত্র আমেরিকাতেই প্রায় ২ কোটি মানুষ এই মারাত্মক রোগে আক্রান্ত। জেনে অবাক হবেন, এই রোগে আক্রান্ত হয়ে জরুরি বিভাগে ভর্তি আছেন প্রায় চার লাখ মানুষ। 

নোরোভাইরাস সংক্রমণের লক্ষণগুলি কী কী?
নোরোভাইরাস রোগ যে কোনও বয়সের মানুষকে ধরতে পারে। আক্রান্ত শিশু, বৃদ্ধ বা বৃদ্ধের হঠাৎ বমি হওয়া বা পেট নষ্ট হওয়া এর প্রাথমিক লক্ষণ হতে পারে। আক্রান্ত ব্যক্তিদের উচ্চ জ্বর, শরীর ব্যথা এবং মাথাব্যথা হতে পারে। নোরোভাইরাসের লক্ষণ ২-৩ দিনের মধ্যে দেখা দিতে শুরু করে। এর সংক্রমণ প্রথমে অন্ত্রে দেখা দিতে শুরু করে। এ রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিরা দীর্ঘদিন অসুস্থ থাকেন। 

বিপজ্জনক নোরোভাইরাস কীভাবে ছড়িয়ে পড়ে?
নোরোভাইরাস নোংরা জল এবং নষ্ট খাবারের কারণে ছড়ায়। গবেষণায় এটাও প্রমাণিত হয়েছে যে একজন মানুষ একবার নরোভাইরাসে আক্রান্ত হলে তা আর হবে না। স্যানিটাইজারেরও নোরোভাইরাসে কোনও প্রভাব নেই। 

নোরোভাইরাস থেকে কীভাবে শিশুকে রক্ষা করবেন?
নরোভাইরাস রোগী ঘরে বসেই সুস্থ হয়ে উঠতে পারেন। এর সংক্রমণ এড়াতে নিয়মিত সাবান ও গরম জল দিয়ে হাত ধুতে থাকুন। বাইরে থেকে কোনও জিনিস আনলে গরম জলেতে ১৫ মিনিট রেখে দিন।