scorecardresearch
 

Weight Loss Tricks: মাত্র ১৫ মাসে ১৬১ থেকে কমে ৯৬ কেজি, কীভাবে কমালেন ওজন ?

অস্বাস্থ্যকর জীবনযাত্রা এবং ভুল খাদ্যাভ্যাসের কারণে অনেকের ওজন বেড়ে (Weight Gain) যায়। ওজন বৃদ্ধির কারণে যখন দৈনন্দিন রুটিন কাজকর্মে সমস্যা হয়, তখন ওজন কমানোর (Weight Loss) চেষ্টা শুরু হয়। অনেকে জিমে যেতে শুরু করেন।

মাত্র ১৫ মাসে ১৬১ থেকে কমে ৯৬ কেজি মাত্র ১৫ মাসে ১৬১ থেকে কমে ৯৬ কেজি
হাইলাইটস
  • সঠিক ডায়েট মেনে চললে ওজন কমানো যায়
  • দিমিত্রি প্রায় ৭০ কেজি ওজন কমিয়েছেন

অস্বাস্থ্যকর জীবনযাত্রা এবং ভুল খাদ্যাভ্যাসের কারণে অনেকের ওজন বেড়ে (Weight Gain) যায়। ওজন বৃদ্ধির কারণে যখন দৈনন্দিন রুটিন কাজকর্মে সমস্যা হয়, তখন ওজন কমানোর (Weight Loss) চেষ্টা শুরু হয়। অনেকে জিমে যেতে শুরু করেন। ওয়ার্কআউটের পাশাপাশি সঠিক ডায়েট (Diet)  মেনে চললে ওজন কমানো যায় সহজেই। আজ আমরা আপনাকে যার ওজন কমানোর গল্প বলছি, তাঁর রূপান্তর যাত্রা আশ্চর্যজনক। তিনিও ডায়েট এবং ওয়ার্কআউটের মাধ্যমে ওজন কমিয়েছেন। তিনি ইনস্টাগ্রামে অনেক ভিডিওতে ওজন কমানোর কথা বলেছেন। ওজন কমানোর গোপনীয় সব বিষয়ও শেয়ার করেছেন। তো চলুন জেনে নেওয়া যাক কে এই ব্যক্তি এবং কীভাবে তিনি ওজন কমিয়েছেন।

ওজন কমানো ব্যক্তির নাম দিমিত্রি আজভস্কি (Dmitry Azovsky), যিনি আমেরিকান। পেশায় ট্রাক চালক দিমিত্রি প্রায় ৭০ কেজি ওজন কমিয়েছেন। তাঁর দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, ২০২১ সালে তাঁর ওজন ছিল প্রায় ১৬১ কেজি। ১৫ মাস পর এখন তাঁর ওজন প্রায় ৯৫ কেজি। ইনস্টাগ্রাম পোস্টে দিমিত্রি জানিয়েছেন যে তিনি ২০২১ সালে ওজন কমানো শুরু করেন। ৭০ কেজি ওজন কমাতে তাঁর প্রায় ১৫ মাস লেগেছিল। ওজন কমানোর জন্য তিনি প্রথমে বাড়িতে ব্যায়াম শুরু করেন এবং ফলাফল পেতে শুরু করার সঙ্গে সঙ্গে জিমে যেতে শুরু করেন।

 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

A post shared by Dmitry Azovsky (@azovsky__dm)

পাশাপাশি, তিনি নিজের খাদ্যাভ্যাসেও পরিবর্তন আনেন। উচ্চ প্রোটিনযুক্ত (High Protein) খাবার খাওয়া শুরু করেন। যেখানে তিনি আগে জাঙ্ক ফুড এবং প্রক্রিয়াজাত খাবার খেতেন, এখন তিনি এই জাতীয় খাবার থেকে নিজেকে সম্পূর্ণরূপে দূরে সরিয়ে নিয়েছেন। খাবারে বেশিটাই আমিষ খেতেন। সকালের ভারী জলখাবার দিয়ে দিন শুরু হতো, আর রাত শেষ হতো সবুজ শাকসবজি আর টমেটো দিয়ে। দিমিত্রি ডায়েটে প্রচুর জল খেতেন। এর পাশাপাশি তিনি ঘুমের দিকেও নজর দেন, ঘুম ওজন কমাতে সাহায্য করে। দিমিত্রি প্রতিদিন প্রায় দেড় ঘণ্টা ব্যায়াম করতেন। এছাড়া তিনি প্রতিদিন সকালে ৪৫ মিনিট কার্ডিও করতেন।

দিমিত্রি জানিয়েছেন যে ওজন কমানোর যাত্রা শুরুতে খুব কঠিন হতে পারে, তাই মনে রাখবেন যে সর্বদা ইতিবাচক থাকতে হবে। তিনি বলেন, 'আপনার মনোভাব যদি ইতিবাচক হয়, তবে আপনি সহজেই আপনার যাত্রা সম্পূর্ণ করতে পারবেন। খাদ্যাভ্যাসের প্রতি মনোযোগ দেওয়া খুবই জরুরি। আপনি যদি আপনার খাদ্য নিয়ন্ত্রণ না করেন। তবে যে কোনও ওজন ধীরে ধীরে হ্রাস পাবে। এমন অনেক লোক থাকবে, তাদের দেখে হতাশ হবেন না এবং তাদের থেকে এগিয়ে যাওয়ার জন্য খুব বেশি পরিশ্রম করবেন না। ঘুম ওজন কমাতে অনেক সাহায্য করে, তাই পর্যাপ্ত ঘুম হলে তা ওজন কমাতে সাহায্য করবে। প্রোটিন খাওয়ার দিকে মনোযোগ দিতে হবে। কারণ প্রোটিন পেট ভরা রাখে এবং যার ফলে আপনি কম খাবেন। ফাইবার সমৃদ্ধ খাবার খেতে ভুলবেন না। কারণ এটি ওজন কমাতেও সাহায্য করে। পাশাপাশি কার্ডিও করুন। আপনি যদি ওয়ার্কআউটের পরে ২০ মিনিট কার্ডিও করেন, তবে এটি ওজন কমাতে আরও সাহায্য করবে।'