scorecardresearch
 

Why Most of the Liquor Bottles 750ml: কেন বেশির ভাগ মদের বোতল ৭৫০ml হয়? পাইট-নিপ সহ জানুন পুরো হিসেব

মিনিয়েচারের প্রয়োজন কেন হল?মদের মিনিয়েচার বোতল খুবই জনপ্রিয়। অনেক বিমানে মিনিয়েচার মদ পরিবেশন করা হয় যাত্রীদের। ৫ তারা হোটেলেও পাওয়া যায়। দামি মদ অনেকে মিনিয়েচার বোতল গিফটও করেন।

ফাইল ছবি ফাইল ছবি
হাইলাইটস
  • ৭৫০ মিলিলিটার হওয়ার কারণ
  • অঙ্কের হিসেব কী বলে
  • মিনিয়েচার বোতলের আগমন

Why Most of the Liquor Bottles 750ml: যাঁরা পান-রসে বঞ্চিত তাঁদের এই নিয়ে মাথাব্যথা থাকবে না। কিন্তু সুরা-প্রেমীদের চাহিদা মতো মদের বোতলের বিভিন্ন সাইজ নির্দিষ্ট করা হয়েছে। সবচেয়ে বড় বোতলটি ৭৫০ মিলি লিটারের। প্রশ্ন হল, ৭৫০ কেন? বাজারে কিছু কিছু মদের ব্র্যান্ড এক লিটারের বোতল (Liquor bottle size) রাখে। কিন্তু বেশির ভাগ ব্র্যান্ডই ৭৫০ মিলি। 

৭৫০ মিলিলিটার হওয়ার কারণ

ককটেল ইন্ডিয়া নামে ইউটিউব চ্যানেলের সংস্থাপক সঞ্জয় ঘোষের বক্তব্য, অতীতে মদ রাখা হত ব্যারেলে। অষ্টাদশ শতকে মদ প্রস্তুতকারী সংস্থাগুলি গবেষণা করে দেখে, মদ বিক্রির জন্য কাচের বোতল-ই ভাল। সেই সময় বোতল তৈরির জন্য গ্লাস ব্লোয়িং প্রযুক্তি ব্যবহার করা হত। এই প্রযুক্তিতে, একটি বোতলের আকারের ধাতব পাইপকে ২০০০ ডিগ্রি তাপমাত্রায় ফুটতে থাকা কাচে পাইপটি ডোবানো হত। কাচ ওই পাইপের আকার নিত। ধাতব পাইপের চাপে বোতলের সাইজ বেড়ে যেত । কিন্তু দেখা যেত, সাইজ কোনও ভাবেই ৬৫০ থেকে ৭৫০ মিলিলিটারের বেশি হচ্ছে না। তখন ঠিক হয়, বড় বোতল ৭৫০ মিলিলিটার-ই রাখা হবে। কিছু সংস্থা আজও এই ভাবেই বোতল তৈরি করে মদ রাখেন।

১৯৭৫ সাল থেকে ইউরোপে একটি আইন লাগু করা হয়, মদের একটি বিশেষ কন্টেনারে মদ নির্দিষ্ট মাত্রায় প্যাক করতে হবে। সেই সময় মদ বিক্রেতা ও ক্রেতা-- দুই পক্ষই ৭৫০ মিলিলিটার মাপে রাজি হন। 

অঙ্কের হিসেব কী বলে

অন্যদিকে একটি অঙ্কের হিসেবেও ৭৫০ মিলিলিটার হতে পারে। মদের গ্যালন বা পেগের হিসেব রাখার জন্যও ৭৫০ মিলিলিটার আদর্শ মাত্রা। পরবর্তীকালে ১৮০ এমএল ও ৩৭৫ এমএল মাত্রা সর্বসম্মতি পেয়েছে। ভারতে ৩৭৫ এমএল, ১৮০ এমএল, ৯০ এমএল ও ৫০ এমএল সাইজের মদ বিক্রি হয়। সবচেয়ে ছোট বোতল পকেটেই ঢুকে যায়। 

মিনিয়েচার বোতল
মিনিয়েচার বোতল

মিনিয়েচার বোতলের আগমন

মিনিয়েচারের প্রয়োজন কেন হল?মদের মিনিয়েচার বোতল খুবই জনপ্রিয়। অনেক বিমানে মিনিয়েচার মদ পরিবেশন করা হয় যাত্রীদের। ৫ তারা হোটেলেও পাওয়া যায়। দামি মদ অনেকে মিনিয়েচার বোতল গিফটও করেন। ইউটিউবার সঞ্জয় ঘোষ জানাচ্ছেন, ১৮৮৯ সালে একটি আইরিশ সংস্থা দ্য বেবি পাওয়ার প্রথমবার মিনিয়েচার মদের বোতল বাজারে আনে। মদ প্রস্তুতকারক ওই আইরিশ সংস্থার মালিক পরিবার একবার দেখতে পান, তাঁদের বাড়ির কোচওয়ান ছোট্ট বোতলে মদ খাচ্ছেন। তখনই তাঁরা ঠিক করেন, মিনিয়েচার বোতলেও মদ বিক্রি করা শুরু করবেন। এছাড়া আইরিশ হুইস্কি বেশ দামি ছিল। সকলের কেনার সাধ্য থাকতো না। শখে কিনলেও বড় বোতল কিনতে হত। মিনিয়েচার আসায় সেই সমস্যা দূর হল।

১৯২০ ও ৩০-এর দশকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র মদ বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা ছিল। তখন ইউরোপ থেকে মদের ছোট বোতল আমেরিকায় স্মাগলিং হত। ধরা যাতে না পড়ে, তার জন্য মিনিয়েচার বোতলেই মদ পাচার করা হত।