scorecardresearch
 

Ants in Earth: প্রায় ২০,০০০,০০০,০০০,০০০,০০০ পিঁপড়ে রয়েছে পৃথিবীতে, যুগান্তকারী গবেষণা

Ants Live in Earth: আপনি কি কখনও পিঁপড়ের জনসংখ্যা সম্পর্কে ভেবেছেন? পৃথিবীতে কতগুলি পিঁপড়ে বাস করে? এটি নিশ্চিত করে কেউ জানে না। কিন্তু বিজ্ঞানীরা উপস্থিত পিঁপড়ের জনসংখ্যা খুঁজে পেয়েছেন। এর আনুমানিক সংখ্যাও বের করা হয়েছে। সংখ্যাটি এত বেশি যে তা গুনে শেষ করা যাবে না। মানুষ বা অন্য যে কোনও প্রাণীর চেয়ে হাজার বা লক্ষ গুণ বেশি তাদের উপস্থিতি।

পিঁপড়ে/ প্রতীকী ছবি পিঁপড়ে/ প্রতীকী ছবি
হাইলাইটস
  • বিশ্বে ২০,০০০,০০০,০০০,০০০,০০০ পিঁপড়ে রয়েছে
  • সংখ্যাটি এত বেশি যে তা গুনে শেষ করা যাবে না
  • মানুষ বা অন্য যে কোনও প্রাণীর চেয়ে হাজার বা লক্ষ গুণ বেশি তাদের উপস্থিতি

Ants Live in Earth: আপনি কি কখনও পিঁপড়ের জনসংখ্যা সম্পর্কে ভেবেছেন? পৃথিবীতে কতগুলি পিঁপড়ে বাস করে? এটি নিশ্চিত করে কেউ জানে না। কিন্তু বিজ্ঞানীরা উপস্থিত পিঁপড়ের জনসংখ্যা খুঁজে পেয়েছেন। এর আনুমানিক সংখ্যাও বের করা হয়েছে। সংখ্যাটি এত বেশি যে তা গুনে শেষ করা যাবে না। মানুষ বা অন্য যে কোনও প্রাণীর চেয়ে হাজার বা লক্ষ গুণ বেশি তাদের উপস্থিতি।

বিজ্ঞানীরা একটি গবেষণা করেছেন, যাতে সমগ্র বিশ্বে ২০ কোয়াড্রিলিয়ন (20 Quadrillion) অর্থাৎ ২০,০০০,০০০,০০০,০০০,০০০ পিঁপড়ে রয়েছে। বলতে গেলে ২০০ লক্ষ কোটি। এই পিঁপড়ে একসঙ্গে ১২ মিলিয়ন টন ড্রাই কার্বন তৈরি করে। এত কার্বন, পৃথিবীর সমস্ত পাখি এবং স্তন্যপায়ী প্রাণী একসঙ্গে তৈরি করে না। ড্রাই কার্বনের ওজন পৃথিবীর মানুষের ওজনের এক-পঞ্চমাংশ।

মানুষ প্রকৃতির ভারসাম্য রক্ষা করে। বহু বছর আগে, বিখ্যাত জীববিজ্ঞানী এডওয়ার্ড ও উইলসন কীটপতঙ্গ সম্পর্কে বলেছিলেন যে কেবলমাত্র ছোট প্রাণীরা সমগ্র বিশ্বকে পরিচালনা করে। মনে হচ্ছে তা সঠিক। পিঁপড়ে প্রকৃতির একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অংশ। তারা মাটিতে বাতাসের স্তর বজায় রাখে। বীজ এদিক থেকে সেদিক নিয়ে যাওয়া করে। জৈব পদার্থ ভেঙে দেয়। জীবন্ত প্রাণীদের জন্য থাকার জায়গা তৈরি করে। এগুলি ছাড়াও, তারা খাদ্য শৃঙ্খলের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ।

পিঁপড়ের ১৫,৭০০ টিরও বেশি প্রজাতি রয়েছে

পিঁপড়ের জনসংখ্যা পরীক্ষা করা এবং তারা যে পরিমাণ শুষ্ক কার্বন অপসারণ করে তা প্রকাশ করতে পারে পৃথিবীতে কতটা জলবায়ু পরিবর্তন ঘটছে। পৃথিবীতে পিঁপড়ের ১৫,৭০০ প্রজাতি এবং উপ-প্রজাতি রয়েছে।

বিশ্বের বিশ্ববিদ্যালয়গুলি বলছে, মানুষের জনসংখ্যাকে যদি নিরাপদ রাখতে হয়, তাহলে পিঁপড়ের সংখ্যা জানা জরুরি। কারণ, পিঁপড়ে গণনার মাধ্যমে পৃথিবীতে ঘটছে বড় জলবায়ু পরিবর্তনগুলি খুঁজে বের করা সহজ। কারণ, সারা বিশ্বে মানুষের কর্মকাণ্ডের কারণে পোকামাকড়ের সংখ্যা কমছে। এর কারণ হচ্ছে জমির সঠিক ব্যবহার হচ্ছে না, রাসায়নিকের অতিরিক্ত ব্যবহার, অনুপ্রবেশকারী প্রজাতি এবং জলবায়ু পরিবর্তন।