scorecardresearch
 

কোহলির সঙ্গে ঝামেলা নিয়ে এতদিন বাদে মুখ খুললেন সূর্যকুমার, বললেন...

বিরাট কোহলি (Virat Kohli) এবং সূর্যকুমার যাদবের (Surya Kumar Yadav) একে অপরের দিকে তাকিয়ে থাকার ঘটনাটা আজ আর কারোর অজানা নয়। এই ঘটনাটি যে আইপিএল ২০২০-তে একটা আলাদা মাত্রা যোগ করেছিল, সেইবিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই। এবারের আইপিএল (IPL 2020) মরশুমে এটাই সবথেকে বিতর্কিত ঘটনা হয়ে উঠেছিল।

বিরাট কোহলি সূর্যকুমার যাদব বিরাট কোহলি সূর্যকুমার যাদব
হাইলাইটস
  • গত ২৮ অক্টোবর আইপিএল টুর্নামেন্টের ৪৮তম ম্যাচে ১৬৫ রান তাড়া করতে নেমেছিল মুম্বই ইন্ডিয়ান্স
  • বিরাট কোহলি চেয়েছিলেন যাতে সূর্যকুমারের মনোঃসংযোগটা কিছু একটা উপায়ে ভেঙে দেওয়া যায়
  • কিন্তু জবাবে সূর্যকুমার একটাও কথা বলেননি, শুধুমাত্র বিরাট কোহলির দিকে তিনি তাকিয়ে ছিলেন

বিরাট কোহলি এবং সূর্যকুমার যাদবের একে অপরের দিকে তাকিয়ে থাকার ঘটনাটা আজ আর কারোর অজানা নয়। এই ঘটনাটি যে আইপিএল ২০২০-তে একটা আলাদা মাত্রা যোগ করেছিল, সেইবিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই। এবারের আইপিএল মরশুমে এটাই সবথেকে বিতর্কিত ঘটনা হয়ে উঠেছিল। 

বিরাট কোহলি চেয়েছিলেন যাতে সূর্যকুমারের মনোঃসংযোগটা কিছু একটা উপায়ে ভেঙে দেওয়া যায়। সেকারণেই তিনি বারংবার মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের এই ব্যাটসম্যানকে তাতানোর চেষ্টা করছিলেন। গত ২৮ অক্টোবর আইপিএল টুর্নামেন্টের ৪৮তম ম্যাচে ১৬৫ রান তাড়া করতে নেমেছিল মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের বিরুদ্ধে আবু ধাবিতে এই ম্যাচের আয়োজন করা হয়েছিল। 

তো এই রান তাড়া করার সময় সূর্যকুমারকে বারবার তাতানোর চেষ্টা করছিলেন কোহলি। মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের এই ব্যাটসম্যানকে স্লেজ় করতেও তিনি ছাড়েননি। কিন্তু জবাবে সূর্যকুমার একটাও কথা বলেননি। শুধুমাত্র বিরাট কোহলির দিকে তিনি তাকিয়ে ছিলেন।

এই ভিডিও ক্লিপটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হয়ে যায়। এর একদিন আগেই আবার অস্ট্রেলিয়া সিরিজ়ের জন্য ভারতীয় ক্রিকেট দল ঘোষণা করা হয়েছে। সেই দলে জায়গা হয়নি সূর্যকুমারের। অনেকেই ভাবলেন, এই ঘটনার কারণেই হয়ত নিজের রাগটা বিরাটের উপর উগড়ে দিলেন সূর্য।

কিন্তু, ইন্ডিয়া টুডে'কে দেওয়া এক বিশেষ সাক্ষাতকারে সূর্যকুমার খানিক হেসেই বললেন, ওটা ম্যাচের মধ্যে হতে পারে। ওই মুহূর্তে কোহলির মাথাটা হয়ত গরম হয়ে গিয়েছিল।   

স্পোর্টস তককে সূর্যকুমার বললেন, "ওটা ম্যাচের মধ্যেকার একটা উত্তেজক মুহূর্ত। এর আগে বিরাটের সঙ্গে আমার কোনও ঝামেলাই হয়নি, যে মাঠের মধ্য়ে তার বহিঃপ্রকাশ ঘটবে। ম্য়াচের পর ওই ঘটনাটি যেভাবে ভাইরাল হয়ে গেল, সেটা দেখে তো আমি নিজেই চমকে উঠেছি। কিন্তু, বিরাটের বিরুদ্ধে খেলতে পেরে সত্যিই খুব ভালো লেগেছে।"

সেইসঙ্গে তিনি আরও যোগ করেন, "প্রত্যেকটা ম্যাচেই আমি বিরাটের মধ্যে প্রচন্ড এনার্জি দেখতে পাই। মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে যে সেটা একটু বেশি ছিল, এমনটা কিন্তু নয়। ও ভারতীয় ক্রিকেট দলের হয়েই খেলুক কিংবা আইপিএলে কোনও দলের বিরুদ্ধে খেলুক, ওর মধ্যে সবসময়ই আগ্রাসন এবং এনার্জি দেখতে পাওয়া যায়। এই ম্যাচটা রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল। কারণ ম্যাচটা জিততে পারলে ওরা প্লে-অফের দ্বিতীয় স্থানে পৌঁছে যেতে পারত।"

সূর্যকুমারের কথায়, "ম্যাচের পর বিরাট কোহলি একেবারে স্বাভাবিক হয়ে গিয়েছিল। ও নিজে এগিয়ে এসে আমাকে বলেছে, খুব ভালো খেলেছ। বিরাটের সঙ্গে ওই ঘটনাটা শুধুমাত্র ম্যাচের একটা মুহূর্ত ছিল। ও নিজেও জানত, বিপক্ষ দলে সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়টা কে ছিল।"

ওই ম্যাচে সূর্যকুমার যাদব ৪৩ বলে ৭৯ রান করেন। এরমধ্যে তিনটে ছক্কা এবং দশটা বাউন্ডারি ছিল। মুম্বই ইন্ডিয়ান্স পাঁচ উইকেটে এই ম্যাচে জয়লাভ করে। ম্যাচের পর সূর্যকুমারের 'ম্যায় হুঁ না' সেলিব্রেশনও যথেষ্ট ভাইরাল হয়েছিল।