scorecardresearch
 

PM Awas Yojana: আবাস যোজনায় অনুমোদনের মেয়াদ বাড়াল কেন্দ্র! কবে পর্যন্ত? জেনে নিন

Pradhan Mantri Awas Yojana: আপনিও যদি PM Awas Yojana-এর সুবিধা নিতে চৈন, তাহলে এই খবর আপনার জন্য খুবই দরকারি। কারণ, কেন্দ্রের মোদী সরকার প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার (PM Awas Yojana) মেয়াদ আরও বাড়িয়েছে।

মোদী সরকার প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার (PM Awas Yojana) মেয়াদ আরও বাড়িয়েছে। মোদী সরকার প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার (PM Awas Yojana) মেয়াদ আরও বাড়িয়েছে।
হাইলাইটস
  • আপনিও যদি PM Awas Yojana-এর সুবিধা নিতে চৈন, তাহলে এই খবর আপনার জন্য খুবই দরকারি।
  • কেন্দ্রের মোদী সরকার প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার (PM Awas Yojana) মেয়াদ আরও বাড়িয়েছে।

Pradhan Mantri Awas Yojana: আপনিও যদি PM Awas Yojana-এর সুবিধা নিতে চৈন, তাহলে এই খবর আপনার জন্য খুবই দরকারি। কারণ, কেন্দ্রের মোদী সরকার প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার (PM Awas Yojana) মেয়াদ আরও বাড়িয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী গ্রামীণ আবাস যোজনায় কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রকের তরফে রাজ্যকে অনুমোদন দেওয়ার শর্ত ছিল, নির্দিষ্ট সময়সীমার মধ্যে বাড়ি তৈরি না হলে এক রাজ্যের বরাদ্দের টাকা অন্য রাজ্যকে দিয়ে দেওয়া হবে। কিন্তু কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রক তাদের সিদ্ধান্ত বদলাল এবং বাড়ি তৈরির অনুমোদন দেওয়ার জন্য আরও একমাস সময়সীমা বাড়ানো হল কেন্দ্র গ্রাম উন্নয়ন মন্ত্রকের তরফে। অর্থাৎ, ৩১ ডিসেম্বরের পরিবর্তে এখন ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী গ্রামীণ আবাস যোজনার অধীনে বাড়ি তৈরির অনুমোদন মিলবে। এই বার্তা রাজ্যকে চিঠি দিয়ে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রক।

আরও পড়ুন: PM Awas Yojana: PM আবাস যোজনার বাড়ি পেতে ৩ মাসের সময়সীমা, কড়া নির্দেশ নবান্নের

প্রসঙ্গত, নবান্নের তরফে এই সময়সীমা বাড়ানোর আর্জি আগেই করা হয়েছিল। কিন্তু গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রক ওই আর্জি খারিজ করে দেয়। ফলে আবাস যোজনার অধীনে বাড়ি তৈরির অনুমোদনের সময়সীমা ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্তই থমকে যায়। এর মধ্যে রাজ্যের বরাদ্দ হওয়া ১১,৩৬,৪৮৮টি বাড়ি তৈরির অনুমোদন দেওয়ার কাজ শেষ করার কথা ছিল। কেন্দ্রের শর্ত অনুযায়ী, কাজ শেষ না হলে পড়ে থাকা এ রাজ্যের বরাদ্দের টাকা চলে যাবে অন্য রাজ্যের কাছে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত এই মেয়াদ ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত বাড়ানোর পর কিছুটা স্বস্তি মিলেছে।

এদিকে নবান্নের তরফে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে যে, প্রথম কিস্তির টাকা পাওয়ার ৪০ দিনের মধ্যেই বাড়ি তুলে জানলা তৈরি করতে হবে। পরবর্তী কিস্তির টাকা পাওয়ার ৩৫ দিনের মধ্যে বাড়ির ‘লিন্টেল’ বা জানলার উপরিভাগের কাজ শেষ করে ফেলতে হবে। সব মিলিয়ে রাজ্যে আবাস যোজনার অধীনে বাড়ি তৈরির কাজ এখন জোর গতিতে এগোচ্ছে।