scorecardresearch
 

Post Office Scheme: মাত্র ১০০ টাকা দিয়ে শুরু করুন, পোস্ট অফিসে এই স্কিমে বিরাট লাভ

Post Office Scheme: বর্তমানে টাকা কোথায় জমা রাখবেন এমন চিন্তা সকলের থাকে। ব্যাঙ্ক না পোস্টঅফিস, কোথায় জমা টাকায় ভালো লাভ হবে এই চিন্তা কমবেশি অনেকের থাকে। পোস্ট অফিসের একটি  স্কিমে মাত্র ১০০ টাকা নিয়ে অ্যাকাউন্ট খুলে বিনিয়োগ করা যায়। মাত্র ৫ বছরে সেই অ্যাকাউন্ট ম্যাচিওর হয়। গ্রাহকদের বিপুল লাভ হয়।

পোস্ট অফিস পোস্ট অফিস
হাইলাইটস
  • মাত্র ১০০ টাকা দিয়ে শুরু করুন
  • পোস্ট অফিসে এই স্কিমে বিরাট লাভ
  • জানুন বিস্তারিত তথ্য

Post Office Scheme: বর্তমানে টাকা কোথায় জমা রাখবেন এমন চিন্তা সকলের থাকে। ব্যাঙ্ক না পোস্টঅফিস, কোথায় জমা টাকায় ভালো লাভ হবে এই চিন্তা কমবেশি অনেকের থাকে। পোস্ট অফিসের একটি  স্কিমে মাত্র ১০০ টাকা নিয়ে অ্যাকাউন্ট খুলে বিনিয়োগ করা যায়। মাত্র ৫ বছরে সেই অ্যাকাউন্ট ম্যাচিওর হয়। গ্রাহকদের বিপুল লাভ হয়।

কত হারে সুদ পাবেন (Post Office RD Interest Rate)
পোস্ট অফিসের আরডি স্কিমে বিনিয়োগ করলে গ্রাহকরা বছরে ৫.৮8 শতাংশ হারে সুদ পাবেন। আপনি মাত্র ১০০ টাকা দিয়ে এই স্কিমে বিনিয়োগ শুরু করতে পারেন। যদিও পোস্ট অফিস রিকারিং ডিপোজিটে বিনিয়োগের জন্য কোন সর্বোচ্চ সীমা নেই। ১৮ বছরের বেশি বয়সী যে কোনও ব্যক্তি এই স্কিমে একটি অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন। 

কারা অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন (Post Office RD Eligibility)
এ ছাড়া সর্বোচ্চ তিনজনের যৌথ অ্যাকাউন্ট খোলা যাবে। ১০ বছর বয়সের নাবালকের সঙ্গে তাঁর একজন অভিভাবক এবং মানসিকভাবে অসুস্থ ব্যক্তির পক্ষে তাঁর একজন অভিভাবক পোস্ট অফিস আরডি খুলতে পারবেন। যে কোনো ব্যক্তি যে কোনো সংখ্যক অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন।

অ্যাকাউন্ট খোলার প্রক্রিয়া (Post Office RD Account Opening Process)
গ্রাহকরা পোস্ট অফিসের যেকোনো শাখায় গিয়ে এই অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন। নগদ বা চেকের মাধ্যমে টাকা জমা দিয়ে এই স্কিমের অধীনে অ্যাকাউন্ট খোলা যেতে পারে। আপনি প্রতি মাসে টাকা জমা করার জন্য একটি নির্দিষ্ট সময় পাবেন। ওই সময়ের মধ্যে টাকা জমা না দিলে জরিমানা দিতে হবে।

বৈধতা
এটি অ্যাকাউন্ট খোলার পাঁচ বছর (৬০মাস) পরে সেটি ম্যাচিওর হয়। এমনকি মেয়াদপূর্তির পরেও, আপনি অ্যাকাউন্টটি আরও পাঁচ বছরের জন্য বাড়িয়ে দিতে পারেন।

আরডিতে ঋণ নেওয়া যেতে পারে
আপনি যদি এই স্কিমের অধীনে একটি অ্যাকাউন্ট খোলেন, তাহলে আপনি ঋণও নিতে পারেন। তবে এর জন্য কমপক্ষে ১২টি কিস্তি জমা দিতে হবে। আপনার অ্যাকাউন্টে জমা করা মোট পরিমাণের ৫০ শতাংশ পর্যন্ত ঋণ নেওয়া যেতে পারে।