scorecardresearch
 
 
উত্তরবঙ্গ

দুঃস্থ খেলোয়াড় ও মাঠকর্মীদের মুখে হাসি ফোটাচ্ছে , জনতার বাজার'

দুঃস্থ খেলোয়াড় ও মাঠকর্মীদের পাশে সহমর্মীরা
  • 1/23

কেউ ভবিষ্যতে খেলোয়াড় হওয়ার স্বপ্ন দেখেন। কারও ইতিমধ্যেই বেশ খেলোয়াড় হিসেবে নামডাক হয়েছিল। কিন্তু করোনা পরিস্থিতিতে থমকে গিয়েছে খেলোয়াড়ি জীবন।

দুঃস্থ খেলোয়াড় ও মাঠকর্মীদের পাশে সহমর্মীরা
  • 2/23

অনেকেই দুঃস্থ পরিবার থেকে অনেক লড়াই করার স্বপ্ন নিয়ে হাজির হয়েছিলেন। কিন্তু করোনার দাপটে বুঝি বা স্বপ্ন হারিয়ে যায়।

দুঃস্থ খেলোয়াড় ও মাঠকর্মীদের পাশে সহমর্মীরা
  • 3/23

কঠিন পরিস্থিতিতে দুবেলা দুমুঠো অন্ন সংস্থানের জোগাড় করাই কঠিন ব্য়পার হয়ে গিয়েছে তাঁদের। তাই আপাতত স্বপ্ন মুলতুবি রেখেছেন তাঁরা।

দুঃস্থ খেলোয়াড় ও মাঠকর্মীদের পাশে সহমর্মীরা
  • 4/23

কেউ অন্য কাজ করছেন, কেউ কি করবেন কিছুই বুঝে উঠতে পারছেন না। পড়াশোনা অনেকেরই স্কুলের গণ্ডি পার হয়নি এখনও। তাই সুবিধামতো কাজ জুটিয়ে নেওয়াটাও চট করে অসম্ভব।

দুঃস্থ খেলোয়াড় ও মাঠকর্মীদের পাশে সহমর্মীরা
  • 5/23

এরই মাঝে এই সমস্ত খেলোয়াড়দের কথা চিন্তা করে এগিয়ে এল শিলিগুড়ির একটি সংগঠন। খেলোয়াড়দের কিছুদিনের রসদ জুগিয়ে হাসি ফোটালেন সদস্য়রা।

দুঃস্থ খেলোয়াড় ও মাঠকর্মীদের পাশে সহমর্মীরা
  • 6/23

শিলিগুড়ির ইউনিক ফাউন্ডেশনের তরফে করোনাকালে বিপন্ন খেলোয়াড় ও মাঠকর্মীদের পাশে থাকার প্রয়াসে খোলা হল  'জনতার বাজার'।

দুঃস্থ খেলোয়াড় ও মাঠকর্মীদের পাশে সহমর্মীরা
  • 7/23

উপস্থিত ছিলেন মহিলা ফুটবলারের দল, দুঃস্থ ক্রিকেট প্লেয়ার, টেবল টেনিস প্লেয়ার, অ্যাথলেটিক্স প্লেয়ার ও মাঠ পরিচর্যার সঙ্গে যুক্ত কর্মীরা।

দুঃস্থ খেলোয়াড় ও মাঠকর্মীদের পাশে সহমর্মীরা
  • 8/23

কোভিড প্রটোকল মেনে স্যানিটাইজার দিয়ে এলাকা পরিষ্কার করে তাদের খাদ্য সামগ্রী দেওয়া হয়েছে। ফলে সমস্যা কিছু ছিল না।

দুঃস্থ খেলোয়াড় ও মাঠকর্মীদের পাশে সহমর্মীরা
  • 9/23

চাল, ডাল,  সোয়াবিন , ডিম , আলু, পিঁয়াজ, আটা, পাঁচ রকমের কাঁচা সব্জি, সাবান, ডিটারজেন্ট পাউডার, কোলগেট, দুধের প্যাকেট সহ আরও নানা সামগ্রী।

দুঃস্থ খেলোয়াড় ও মাঠকর্মীদের পাশে সহমর্মীরা
  • 10/23

এই পর্যায়ে আশি জনকে তুলে দেওয়া হয় এই সামগ্রী। পরে ব্যাক্তিগতভাবে কেউ বিপদে পড়লে তাঁরা সাহায্য করতে প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন সংগঠনের শক্তি পাল।

দুঃস্থ খেলোয়াড় ও মাঠকর্মীদের পাশে সহমর্মীরা
  • 11/23

জনতার বাজার বসানো হয়েছিল, কাঞ্চনজঙ্ঘা স্টেডিয়াম সংলগ্ন সুইমিং পুলের সামনে। উপস্থিত ছিলেন প্রখ্যাত টেবল টেনিস কোচ ভারতীয় ঘোষ, অনুপ বসু, অ্যথেলেটিক দীপ্তি পাল ও সমাজকর্মী বিশ্বজিত রায়, ইউনিক ফাউন্ডেশন টিমের সেক্রেটারি বিজয় ছেত্রী প্রমুখ।

দুঃস্থ খেলোয়াড় ও মাঠকর্মীদের পাশে সহমর্মীরা
  • 12/23

এদিন থেকে শুরু করে প্রত্যেক রবিবার এই জনতার বাজার বসানো হবে বিনামূল্যে। খেলোয়াড় ও মাঠকর্মীরা নিজেদের সঠিক পরিচয় দিয়ে এই বাজারের সুবিধা নিতে পারবেন বলে জানানো হয়েছে।

দুঃস্থ খেলোয়াড় ও মাঠকর্মীদের পাশে সহমর্মীরা
  • 13/23

এই সংগঠন বিগত কয়েক বছরে শিলিগুড়ি ও পার্শ্ববর্তী এলাকায় লাগাতার কাজ করে চলেছেন। কখনও খেলোয়াড়, কখনও মাঠকর্মী, কখনও সাধারণ মানুষ, কখনও বৃদ্ধ-বৃদ্ধাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন তাঁরা।

দুঃস্থ খেলোয়াড় ও মাঠকর্মীদের পাশে সহমর্মীরা
  • 14/23

ভরসার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন তাঁরা। ফলে শহর ও এলাকার মানুষ বিপদে পড়লে প্রথম কয়েকটি নামের মধ্যে তাঁদের নম্বর খোঁজেন সর্বাগ্রে। 

দুঃস্থ খেলোয়াড় ও মাঠকর্মীদের পাশে সহমর্মীরা
  • 15/23

করোনা পরিস্থিতিতেও তাঁরা দুর্দান্ত কাজ করে চলেছেন। পিপিই কিট পরে, সমস্ত সতর্কতা বজায় রেখে ঝাঁপিয়ে পড়ছেন সর্বাগ্রে।

 

দুঃস্থ খেলোয়াড় ও মাঠকর্মীদের পাশে সহমর্মীরা
  • 16/23

কখনও ফ্রি অ্যাম্বুল্যান্স পরিষেবা নিয়ে, কখনও মৃতদেহ শ্মশানে পৌঁছে দেওয়ার লোক না থাকায় তাঁরাই ভরসা হয়ে উঠেছেন।

দুঃস্থ খেলোয়াড় ও মাঠকর্মীদের পাশে সহমর্মীরা
  • 17/23

তাঁদের পরিষেবার গণ্ডি পেরিয়ে গিয়েছে জেলা-শহরের সীমানাও। শিলিগুড়ি ছাড়িয়ে কখনও তাঁরা ছুটে গিয়েছেন দক্ষিণ চব্বিশ পরগণার ইয়াস বিধ্বস্ত এলাকায়, কখনও আমফান দূর্গত এলাকায়।

দুঃস্থ খেলোয়াড় ও মাঠকর্মীদের পাশে সহমর্মীরা
  • 18/23

ফলে রাজ্যব্য়াপী তাঁরা নিজেদের কাজ ছড়িয়ে নিয়েছেন। কলকাতাতেও নিজেদের পরিষেবার শাখা খুলেছেন। ফলে সেখানেও যোগাযোগ করলে তাঁরা সাহায্য করবেন বলে জানিয়ে দিয়েছেন।

দুঃস্থ খেলোয়াড় ও মাঠকর্মীদের পাশে সহমর্মীরা
  • 19/23

প্রথমে নিজেদের পকেট থেকে খরচ করে মানুষের পাশে দাঁড়ানো শুরু করলেও, তাঁদের কর্মকাণ্ডে উৎসাহিত হয়ে অনেকেই সাধ্যমতো সাহায্য করছেন নেপথ্যে থেকে।

দুঃস্থ খেলোয়াড় ও মাঠকর্মীদের পাশে সহমর্মীরা
  • 20/23

তাঁদেরও ধন্যবাদ জানিয়েছেন শক্তিবাবু। তিনি জানিয়েছেন, মানুষের সঙ্গে, মানুষের পাশে দাঁড়ানোর ক্ষেত্রে আমরা কোনও বাছ-বিচার করি না।

দুঃস্থ খেলোয়াড় ও মাঠকর্মীদের পাশে সহমর্মীরা
  • 21/23

তাই মানুষ আমাদের কাজে ভরসা রাখছেন। মানুষের ভরসা ও ভালবাসাই আমাদের পাথেয়। তাকে সঙ্গী করেই যত বেশি পারব মানুষের সঙ্গে থাকার চেষ্টা করব।

দুঃস্থ খেলোয়াড় ও মাঠকর্মীদের পাশে সহমর্মীরা
  • 22/23

শুধু মানুষ নয় অবশ্য, পথ কুকুরদের পাশেও তাঁরা থাকেন। আবার উৎসব অনুষ্ঠানে বেঁচে যাওয়া খাবার তাঁদের ফোন করলে তাঁরা নিয়ে যান। বিলিয়ে দেন ফুটপাতের বাসিন্দাদের মধ্যে।

দুঃস্থ খেলোয়াড় ও মাঠকর্মীদের পাশে সহমর্মীরা
  • 23/23

আপাতত করোনা পরিস্থিতির শিকার সব ধরণের মানুষের পাশে তাঁরা দাঁড়ানোকেই প্রাথমিক কাজ বলে মনে করছেন তাঁরা। তবে বাকি যে কোনও কাজেই তাঁরা তৈরি রয়েছেন বলে সংগঠনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।