scorecardresearch
 
 

উত্তরে আশার আলো, করোনায় কমলো দৈনিক মৃতের সংখ্যা

সরকারি হিসেবের নিরিখে উত্তরবঙ্গে শেষ ২৪ ঘন্টায় করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা কমল। বেড়েছে সুস্থতার হার। টানা এক মাসের বেশি সময় মৃতের সংখ্যা বাড়ার পর খানিকটা কমায় স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছেন সাধারণ মানুষ ও স্বাস্থ্য পরিষেবার সঙ্গে যুক্তরা। 

ফাইল ছবি ফাইল ছবি
হাইলাইটস
  • মৃতের সংখ্যা কমলো উত্তরবঙ্গে
  • সুস্থতার হারও বেড়েছে আগের চেয়ে
  • সব বিভাগে বাড়ছে শয্যা

সরকারি হিসেবের নিরিখে উত্তরবঙ্গে শেষ ২৪ ঘন্টায় করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা কমল। বেড়েছে সুস্থতার হার। টানা এক মাসের বেশি সময় মৃতের সংখ্যা বাড়ার পর খানিকটা কমায় স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছেন সাধারণ মানুষ ও স্বাস্থ্য পরিষেবার সঙ্গে যুক্তরা। 

গত চব্বিশ ঘন্টার হিসেবে মৃত্যুর সংখ্যা

গত ২৪ ঘন্টায় উত্তরবঙ্গে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ১৮ জনের। যা আগের ২৪ ঘন্টায় ছিল ২১। 

মৃতদের ঠিকানা

মৃতদের মধ্যে ১১ জন উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, ৪ জন রায়গঞ্জ শহরে সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। বাকি ৩ জনের মধ্যে দু জন শিলিগুড়ির নার্সিংহোমে মারা যান। অন্য জন হাসপাতালে মারা গিয়েছেন। উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজে মৃতদের প্রত্যেকেই উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জেলার বাসিন্দা।

সংক্রমিত ও সুস্থর সংখ্যা

শেষ এক দিনে সংক্রমিতের সংখ্যা ২০৪২ জন। তবে উত্তরের চার জেলায় সুস্থতার হার বৃদ্ধি পেয়েছে অনেকটাই। শেষ ২৪ ঘন্টায় পাওয়া স্বাস্থ্য দপ্তরের খবর অনুযায়ী সুস্থ রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৬১২ জন।

উত্তরবঙ্গ মেডিক্য়াল কলেজে বাড়ছে বেড

অন্যদিকে উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সংক্রমিতদের জন্য আরও ১৪ টি শয্যা বাড়ানো হয়েছে। ইতিমধ্যেই কোভিড ব্লকের ১১০ টি শয্যা বাড়িয়ে ১৯৮ করা হয়েছিল। এই সংখ্যা আপাতত গিয়ে দাঁড়াল ২১৪ টিতে।

শিশুদের জন্য বাড়ছে বেড

শিশুদের মধ্যে সংক্রমণের কথা মাথায় রেখে আরও জানানো হবে বলে জানানো হয়েছে। মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষ সূত্রে শিশুদের আরও ১২ টি বেড বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

অক্সিজেন প্লান্টের কাজ শুরুর মুখে

ইতিমধ্যেই উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ এর মধ্যে দুটি অক্সিজেন প্লান্ট বসানোর প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গিয়েছে। দ্রুত কাজ শুরু হয়ে যাবে বলে মেডিকেল কলেজের তরফে জানানো হয়েছে। কাজ শুরু হলে ৪৫ দিন লাগবে অক্সিজেন প্লান্ট তৈরি হতে। পাশাপাশি আরও কিছু চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মী জরুরি ভিত্তিতে নিয়োগ করা হবে বলে জানা গিয়েছে।