scorecardresearch
 

ভ্যাকসিন ঢুকতেই বাংলায় বিতর্ক, জানুন বাদানুবাদের ৫ কারণ

রাজ্য়ে করোনা ভ্য়াকসিন (Corona Vaccine) ঢুকতেই শুরু হয়ে গেল বিতর্ক। জেলায়-জেলায় যাওয়ার আগেই পথ আটকে গেল ভ্য়াকসিনের গাড়ির। যার জেরে মুখ্য়মন্ত্রীর দিকে আঙুল তুললেন বিরোধীরা। মহামূল্য়বান টিকা নিয়েও ছড়াল রাজনৈতিক উত্তাপ।

কলকাতা বিমানবন্দর থেকে বেরোচ্ছে ভ্য়াকসিনের গাড়ি কলকাতা বিমানবন্দর থেকে বেরোচ্ছে ভ্য়াকসিনের গাড়ি
হাইলাইটস
  • রাজ্য়ে করোনা ভ্য়াকসিন (Corona Vaccine) ঢুকতেই শুরু হয়ে গেল বিতর্ক।
  • জেলায়-জেলায় যাওয়ার আগেই পথ আটকে গেল ভ্য়াকসিনের গাড়ির।
  • মহামূল্য়বান টিকা নিয়েও ছড়াল রাজনৈতিক উত্তাপ।

রাজ্য়ে ভ্য়াকসিন ঢুকতেই শুরু হয়ে গেল বিতর্ক। জেলায়-জেলায় যাওয়ার আগেই পথ আটকে গেল ভ্য়াকসিনের গাড়ির। যার জেরে মুখ্য়মন্ত্রীর দিকে আঙুল তুললেন বিরোধীরা। মহামূল্য়বান টিকা নিয়েও ছড়াল রাজনৈতিক উত্তাপ। 

১ টিকার পথে অবরোধ- মহামূল্য়বান টিকার জন্য় মুখিয়ে রয়েছে সারা বিশ্ব। সেখানে টিকা জেলায় জেলায় পৌঁছনোর আগেই বাধা পড়ল পথে। বিক্ষোভ-পথ অবরোধে টিকার গাড়িকে দাঁড়িয়ে থাকতে হল যানজটে। শেষে পুলিশ এসে হাল ধরে ভ্য়াকসিন কনভয়ের। রাস্তা বদলে টিকার গাড়ি পাঠানো হল সংরক্ষণের জায়গায়। 

পূর্ব বর্ধমানের গলসিতে লাঠি হাতে মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরি

২ কাঠগড়ায় মমতার মন্ত্রী- মোদী সরকারের নতুন কৃষক আইনের বিরুদ্ধে পূর্ব বর্ধমানের গলসিতে চলছিল বিক্ষোভ কর্মসূচি। নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন মমতার মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরি। দফায় দফায় পথ অবরোধ করছিলেন বিক্ষোভকারীরা। জমিয়ত-উলেমা-এ হিন্দের বিক্ষোভের জেরেই যানজট সৃষ্টি হয় এলাকায়। পথে নেমে লাঠি হাতে অবরোধকারীদের সরাতে যান মন্ত্রী। উল্টে তাঁকেই বিক্ষোভকারীদের আক্রমণের মুখে পড়তে হয়। এ বিষয়ে রাজ্য়ের গ্রন্থাগার মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী বলেন, ''ভ্য়াকসিন যে আসছে, সে ব্য়াপারে আমাদেরকে আগে জানানো উচিত ছিল। তা কিন্তু করা হয়নি। আমি জানার পরই বার বার ঘোষণা করেছি, অ্য়াম্বুল্যান্স, রোগী, ছাত্র বা কোনও মেডিসিন যদি আসে তাকে যেন পাশ দিয়ে যেতে দেওয়া হয়। গাড়িটা অনেক পিছনে ছিল। আমি রাস্তায় নেমেছিলাম। পরে পুলিশ গাড়িটেকে অন্য় রাস্তা দিয়ে বের করে নিয়ে যায়।''

৩ তৃণমূলের মন্ত্রীকে কৈলাসের তোপ- গ্রন্থাগার মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরির বিক্ষোভের জেরে ভ্য়াকসিনের গাড়ি আটকে গিয়েছে। এই খবর প্রকাশ্য়ে আসতেই জমিয়ত-উলেমা-এ হিন্দের সভাপতির বিরুদ্ধে সরব হয় বিজেপি। এ নিয়ে রাজ্য় বিজেপির পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয় টুইট করেন। যেখানে তিনি লেখেন, সিদ্দিকুল্লা চৌধুরির রাজনৈতিক দ্বিচারিতার জেরে (Corona Vaccine)-এর রাস্তা আটকে গিয়েছে। যার জেরে রুট বদল করতে হয়েছে ভ্য়াকসিনের গাড়িকে। যদি দুর্ঘটনা বা অন্য় কোনও কারণে বহুমূল্য ভ্য়াকসিন নষ্ট হত, তাহলে তার দায় কে নিত ? 

কৈলাস বিজয়বর্গীয়

৪ টিকা ফ্রি থেকে টিকাশ্রী- বাংলায় বিনামূল্য়ে ভ্য়াকসিন দেওয়ার প্রসঙ্গ তোলেন মুখ্যমন্ত্রী। মমতার একটি চিঠি ঘিরেই যাবতীয় বিতর্কের সূত্রপাত। যেখানে কোভিড যোদ্ধা রাজ্য়ের পুলিশকর্তা ও স্বাস্থ্য় আধিকারিকদের কাছে পৌঁছয় একটি চিঠি। যেখানে লেখা রয়েছে, ''আপনাদের আনন্দের সঙ্গে জানাচ্ছি যে, আমাদের সরকার সম্পূর্ণ বিনামূল্য়ে রাজ্য়বাসীকে টিকা দেওয়ার ব্য়বস্থা করেছে।'' যা নিয়ে ব্যঙ্গ করতে আসরে নামে বিজেপি। গেরুয়া ব্রিগেডের তরফে বলা হয়, এবার তবে রাজ্য়ে 'টিকাশ্রী' প্রকল্প চালু করলেন মুখ্য়মন্ত্রী। অন্য়ের কাজ নিজের নামে চুরি করে চালানো ওনার পুরোনো অভ্য়েস।

৫ চাল চুরি থেকে 'টিকা চুরি'-  করোনা যোদ্ধাদের কুর্নিশ করে মুখ্য়মন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়ের চিঠি নিয়ে ব্যাঙ্গ করতে ছাড়েনি বিজেপি। দলের রাজ্য় সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, চাল চুরির পর এবার টিকা চুরির চেষ্টা করছেন মুখ্য়মন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী যেখানে ১৩৫ কোটি দেশবাসীর জন্য় বিনামূল্য়ে টিকা দেওয়ার ব্য়বস্থা করছেন, সেখানে মুখ্য়মন্ত্রী নতুন করে কি টিকা আবিষ্কার করেছেন। তাহলে তিনি টিকাটা পাবেন কোথা থেকে ? কালীঘাটে এখন গঙ্গাজল দিয়ে ভ্য়াকসিন তৈরি হচ্ছে। দিদির ওই ভ্য়াকসিন এখন দলের নেতারাই নেবেন না। যা কামিয়েছে তা তো ভ্য়াকসিন নিলে সব মায়ের ভোগে চলে যাবে।