scorecardresearch
 
 

অন্য রাজ্যের চেয়ে এ রাজ্যের পর্যটনের পরিস্থিতি ভাল : ইন্দ্রনীল সেন

পুজোর আগে তরাই-ডুয়ার্সে পর্যটক ফেরাতে শিলিগুড়ি এলেন পর্যটন দপ্তরের মন্ত্রী ইন্দ্রনীল সেন। পরপর কয়েকটি পর্যটন সিজন মার খেয়েছে করোনা পরিস্থিতিতে। পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে যাতে ক্ষতি পূরণ করা যায়, তার জন্য সবার সঙ্গে কথা বলে পদক্ষেপ করবেন তিনি।

শিলিগুড়িতে বাগডোগরা বিমানবন্দরে ইন্দ্রনীল সেন শিলিগুড়িতে বাগডোগরা বিমানবন্দরে ইন্দ্রনীল সেন
হাইলাইটস
  • পর্যটক ফেরাতে উদ্যোগ নিচ্ছে পর্যটন দফতর
  • ভোরের আলোত বৈঠক মঙ্গলবার
  • রাজ্যের পরিস্থিতি অনেক ভালো
পর্যটক ফেরাতে উদ্যোগ

পুজোর আগে তরাই-ডুয়ার্সে পর্যটক ফেরাতে শিলিগুড়ি এলেন পর্যটন দপ্তরের মন্ত্রী ইন্দ্রনীল সেন। পরপর কয়েকটি পর্যটন সিজন মার খেয়েছে করোনা পরিস্থিতিতে। পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে যাতে ক্ষতি পূরণ করা যায়, তার জন্য সবার সঙ্গে কথা বলে পদক্ষেপ করবেন তিনি।

বৈঠকে মন্ত্রী

উত্তরবঙ্গের অর্থনীতির অন্যতম প্রধান ভিত্তি হল পর্যটন। ফলে প্রায় নুইয়ে শিল্পকে পুজোর আগে চাঙা করতে তৎপর রাজ্য সরকার।  তাই পাহাড়, তরাই-ডুয়ার্সের পাশাপাশি উত্তরের পর্যটন শিল্পের পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে উত্তরবঙ্গে পরিদর্শনে রাজ্যের পর্যটন রাষ্ট্রমন্ত্রী ইন্দ্রনীল সেন। সোমবার কলকাতা থেকে বাগডোগরা বিমানবন্দরে নামেন ইন্দ্রনীল সেন। জানা গিয়েছে আগামী কয়েকদিন তিনি পর্যটন দপ্তরের আধিকারিকদের সঙ্গে পর্যটনশিল্প বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বৈঠক করবেন।

ধাক্কা সামলে ঘুরে দাঁড়ানেের চেষ্টা

করোনার কারণে গত বছর থেকে কার্যত মুখ থুবড়ে পড়েছে উত্তরের অর্থনীতির অন্যতম মেরুদন্ড পর্যটন শিল্প। গত বছরের লোকসান কাটিয়ে উঠার আগেই আবারও করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে রাজ্যে কার্যত সরকারের কড়াকড়ি বিধি-নিষেধ জারি করা হয়েছে। যার ফলে চলতি বছরে লকডাউনের ফলে পাহাড় ও ডুয়ার্স এখন পর্যটন শূণ্য। এমনিতেই গত বছরের লোকসান এখনো কাটিয়ে উঠতে পারেনি ব্যবসায়ীরা তার ওপর রাজ্য সরকারের আংশিক লকডাউনে ব্যাপক প্রভাব পড়েছে এই শিল্পে।

টিকাকরণ চলছে পর্যটন স্টেক হোল্ডারদের

তবে সামনেই পুজোর মরশুমের তাই পর্যটন শিল্পকে চাঙ্গা করে তুলতে তৎপর রাজ্যের পর্যটন দফতর ও পর্যটন শিল্পের সাথে জড়িত ব্যবসায়ীরা। এমত অবস্থায় দেশের মধ্যে এরাজ্যে প্রথম পর্যটন শিল্পের সঙ্গে যুক্ত স্টেক হোল্ডার, কর্মী ও পর্যটন সংস্থার সঙ্গে যুক্ত সদস্যদের করোনার টিকাকরনের ব্যবস্থা করেছে রাজ্য সরকার। তবে এই পরিস্থিতিতে পুজোর আগে কিভাবে উত্তরবঙ্গের পর্যটন শিল্পকে ঘুরিয়ে দাঁড় করানো যায় সেই বিষয়ে হাল-হকিকত জানতে সোমবার কলকাতা থেকে শিলিগুড়িতে এসে পৌছলেন রাজ্য পর্যটন দপ্তরের রাষ্ট্রমন্ত্রী ইন্দ্রনীল সেন।

ভোরের আলোয় বৈঠকে বসার কথা

জানা গিয়েছে বুধবার মুখ্যমন্ত্রীর স্বপ্নের পর্যটন প্রকল্প ভোরের আলোতে পর্যটন দপ্তরের আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করবেন তিনি। তাছাড়াও ভোরের আলো পর্যটন কেন্দ্রে তৃতীয় পর্যায়ের কাজ শুরু হলেও লকডাউনের কারণে থমকে রয়েছে। তবে দ্রুত কাজ কীভাবে শুরু করা যায় এবং উত্তরের পর্যটন শিল্পর হাল ফেরানো নিয়ে আর কী করণীয় তা নিয়ে বৈঠক সারবেন মন্ত্রী।

অন্য রাজ্যের চেয়ে এ রাজ্য ভালো অবস্থায় রয়েছে

এদিন বাগডোগরা বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন, "অন্যান্য রাজ্যের তুলনায় এ রাজ্যের পর্যটন শিল্প অনেকটা ভালো পরিস্থিতিতে রয়েছে। খুব দ্রুত উত্তরের পর্যটন শিল্প ঘুরে দাঁড়াবে। পুজোর আগে পর্যটন শিল্পকে ছন্দে ফেরানোর লক্ষ্য রাখা হয়েছে।