scorecardresearch
 

Saradha Scam: CBI বনাম রাজীব কুমার মামলা, কী হল সুপ্রিম কোর্টে?

মঙ্গলবার (Tuesday) সুপ্রিম কোর্টে ছিল সেই মামলার শুনানি। যদিও রাজিব কুমারের (Rajeev Kumar) আইনজীবী আদালতে আবেদন জানান, এই মামলার একাধিক নথিপত্র এবং বহু গুরুত্বপূর্ণ ফাইল তাঁরা এখনো গুছিয়ে উঠতে পারেননি। মামলাটি লড়ার প্রস্তুতির জন্য আরও বেশ কিছুটা সময় চেয়ে শুনানি পিছনোর আবেদন জানান রাজীবের আইনজীবী। সেই আবেদন মঞ্জুর করেই মামলার শুনানি আরও দুই সপ্তাহ পিছিয়ে দিল শীর্ষ আদালত।

রাজীব কুমার রাজীব কুমার
হাইলাইটস
  • রাজীবকে হেফাজতে নিতে চেয়ে সিবিআই-এর মামলার শুনানি
  • প্রস্তুতির জন্য সময় চাইলেন রাজীবের আইনজীবী
  • শুনানি ২ সপ্তাহ পিছিয়ে দিল শীর্ষ আদালত

সারদাকাণ্ডে কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারকে (Rajeev Kumar) হেফাজতে নিতে চেয়ে সিবিআইয়ের (CBI) করা মামলার শুনানি ২ সপ্তাহ পিছিয়ে গেল সুপ্রিম কোর্টে (Supreme Court)। রাজিব কুমারের আইনজীবীর আবেদন মেনেই মঙ্গলবার এই মামলার শুনানি ১৪ দিনের জন্য পিছিয়ে দেয় দেশের শীর্ষ আদালত।

সারদা চিটফান্ড কাণ্ডের তদন্তে নেমে কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার তথা মামলার তদন্তে রাজ্য সরকার দ্বারা গঠিত বিশেষ তদন্তকারী দলের প্রধান রাজীব কুমারকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে চেয়েছিল সিবিআই। বারবার ডেকে পাঠানো হলেও রাজীব কুমার তাদের সহযোগিতা করেননি বলেই অভিযোগ কেন্দ্রীয় এই তদন্তকারী সংস্থার। এরপরই মুখ্যমন্ত্রীর আস্থাভাজন অফিসার রাজীব কুমারকে হেফাজতে নিতে চেয়ে দেশের শীর্ষ আদালতে আবেদন করে সিবিআই। 

মঙ্গলবার (Tuesday) ছিল সেই মামলার শুনানি। যদিও রাজিব কুমারের (Rajeev Kumar) আইনজীবী আদালতে আবেদন জানান, এই মামলার একাধিক নথিপত্র এবং বহু গুরুত্বপূর্ণ ফাইল তাঁরা এখনো গুছিয়ে উঠতে পারেননি। মামলাটি লড়ার প্রস্তুতির জন্য আরও বেশ কিছুটা সময় চেয়ে শুনানি পিছনোর আবেদন জানান রাজীবের আইনজীবী। সেই আবেদন মঞ্জুর করেই মামলার শুনানি আরও দুই সপ্তাহ পিছিয়ে দিল শীর্ষ আদালত।

প্রসঙ্গত সারদা কাণ্ডে রাজীব কুমারকে জিজ্ঞাসাবাদকে কেন্দ্র করে ২০২৯ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে উত্তাল হয়ে ওঠে রাজ্য রাজনীতি। রাজীব কুমার তদন্তে সহযোগিতা করছেন না, সেই অভিযোগে তাঁর বাড়িতে পৌঁছেছিলেন সিবিআই-এর আধিকারিকরা। সেখানে কলকাতা পুলিশের বাধার মুখে পড়েন সিবিআই-এর কর্তারা। ঘটনায় সক্রিয় হয়ে ওঠেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। ঘটনার প্রতিবাদে সেই রাত থেকেই ধর্মতলায় ধরনায় বসেন মুখ্যমন্ত্রী। ধরনা মঞ্চে দেখা যায় তৃণমূলের নেতা মন্ত্রী ও পদস্থ পুলিশ কর্তাদের। এমনকি ধরনা মঞ্চের আশেপাশে দেখা যায় রাজীব কুমারকেও।