scorecardresearch
 

Sovandeb Chattopadhyay : 'যে চোর, সে চোর,' দুর্নীতি ইস্যুতে ফের বিস্ফোরক শোভনদেব

দল যে কোনওরকম দুর্নীতি বরদাস্ত করবে না বা দুর্নীতির সঙ্গে যুক্ত থাকা কারও পাশে দাঁড়াবে না সে কথা ইতিমধ্যেই একাধিকবার স্পষ্ট করে দিয়েছেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও ঘাসফুল শিবিরের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে তৃণমূলের (TMC) বেশিরভাগ মানুষই সৎ বলেও দাবি করতে শোনা গিয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। 

শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়
হাইলাইটস
  • দুর্নীতির বিরুদ্ধে সরব শোভনদেব
  • খড়দার দলীয় সভার ভিডিও ভাইরাল

দুর্নীতির বিরুদ্ধে আবারও সরব তৃণমূল বিধায়ক তথা রাজ্যের মন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় (Sovandeb Chattopadhyay)। এই সংক্রান্ত একটি ভিডিও ভাইরালও (Viral Video) হয়েছে। ভিডিওটি খড়দার একটি দলীয় সভার বলে জানা যাচ্ছে। একইসঙ্গে নাম না করে বিরোধীদরেও একহাত নেন শোভনদেববাবু। 

ভিডিওতে শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়কে বলতে দেখা যাচ্ছে, "মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) পরিষ্কার বলেছেন, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)পরিষ্কার বলেছেন যে কোর্ট থেকে পরিস্কার হয়ে আসতে হবে, না হলে দল স্বীকার করবে না কাউকে। যে চোর সে চোর, তাকে দল সহ্য করবে না, যে-ই হোক। কিন্তু তার মানে এই নয়, সবাই খারাপ। এটা হতে পারে না। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যের জন্য কিছু করেননি এটা হতে পারে না। তাহলে যে দিল্লি আমাদের এত সমালোচক, আমাদের ঘরে ঘরে ইডি-সিবিআই পাঠিয়ে দিচ্ছে, তাদেরও স্বীকার করতে হচ্ছে প্রতিদিন যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বাংলাকে এক নম্বর করতে পেরেছেন। যে রাজ্যটাকে একদম ধ্বংস করে দিয়ে গিয়েছিল, সেই রাজ্যটাকে তুলে এনে এক নম্বর করতে পেরেছেন।" 

প্রসঙ্গত, দল যে কোনওরকম দুর্নীতি বরদাস্ত করবে না বা দুর্নীতির সঙ্গে যুক্ত থাকা কারও পাশে দাঁড়াবে না সে কথা ইতিমধ্যেই একাধিকবার স্পষ্ট করে দিয়েছেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও ঘাসফুল শিবিরের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে তৃণমূলের (TMC) বেশিরভাগ মানুষই সৎ বলেও দাবি করতে শোনা গিয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। 

পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও অনুব্রত মণ্ডল ইস্যুতে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে কোমর বেঁধে ময়দানে নেমেছেন বিরোধীরা। তৃণমূল নেতানত্রীদের সরাসরি 'চোর' বলে বিদ্ধ করছেন তাঁরা। পাল্টা আক্রমণ আক্রমণ করছে ছাড়ছে না শাসকদলও। নারদকাণ্ডে অভিযুক্ত থেকেও রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীকে (Suvendu Adhilari) কেন তদন্তের আওতায় আনা হচ্ছে না বা তাঁর বিরুদ্ধে কেন পদক্ষেপ করছে না ইডি-সিবিআই, সেই প্রশ্ন বারেবারেই তুলে চলেছে তৃণমূল।

আরও পড়ুন -  কী অবস্থায় রয়েছে বঙ্গোপসাগর? উত্তর জানলে অবাক হবেন