scorecardresearch
 

Saraswati Puja: ক্যাম্পাসে সরস্বতী পুজো নয়, প্রেসিডেন্সির দুয়ারেই দেবীবন্দনায় TMCP

Saraswati Puja: সরস্বতী পুজো হবে প্রেসিডেন্সিতে, তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিতরে নয়। মিলল না অনুমতি। তাই গেটের বাইরেই হবে বাগ্দেবীর আরাধনা। প্রেসিডেন্সির ইতিহাসে কোনওদিন কোনও ধর্মাচরণ হয়নি। তবে, এবার ক্যাম্পাসে সরস্বতী পুজো করতে মরিয়া হয়ে পড়ে তৃণমূল ছাত্র পরিষদ (TMCP)।

প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়
হাইলাইটস
  • সরস্বতী পুজো হবে প্রেসিডেন্সিতে, তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিতরে নয়
  • মিলল না অনুমতি
  • তাই গেটের বাইরেই হবে বাগ্দেবীর আরাধনা

Saraswati Puja: সরস্বতী পুজো (Saraswati Puja) হবে প্রেসিডেন্সিতে (Presidency University), তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিতরে নয়। মিলল না অনুমতি। তাই গেটের বাইরেই হবে বাগ্দেবীর আরাধনা। প্রেসিডেন্সির ইতিহাসে কোনওদিন কোনও ধর্মাচরণ হয়নি। তবে, এবার ক্যাম্পাসে সরস্বতী পুজো করতে মরিয়া হয়ে পড়ে তৃণমূল ছাত্র পরিষদ (TMCP)। কর্তৃপক্ষ আগেই আপত্তি জানায়। পুজো করতে হলে গেটের বাইরে করতে হবে বলে আগেই জানিয়েছিল কর্তৃপক্ষ। অবশেষে, গেটের বাইরেই হবে সরস্বতী পুজো বলে জানা যায়।

এক সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ে তৃণমূল ছাত্র পরিষদের আহ্বায়ক প্রান্তিক চক্রবর্তী জানান,‘‘কর্তৃপক্ষের কাছে আর্জি জানানো হয়েছিল। কিন্তু সদর্থক সাড়া মেলেনি। পুজো মানে আবেগ, সেই আবেগ থেকেই আর্জি জানানো হয়েছিল। কিন্তু টিএমসিপি কোনও ভাবেই কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সংঘাতে যাবে না। তবে পুজো করছি। ছাত্র পরিষদের সদস্য এবং সাধারণ ছাত্রছাত্রীরা মিলে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের বাইরে এই পুজো হবে।’’

জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণে সরস্বতী পুজো করার অনুমতি চায় শাসক দলের ছাত্র পরিষদ। প্রেসিডেন্সির ডিন অব স্টুডেন্টসের কাছে আর্জি পেশ করা হয়। পুজোর জন্য ২৫ থেকে ২৭ জানুয়ারি পর্যন্ত অনুমতি চায় টিএমসিপি। কিন্তু সেই অনুমতি দেওয়া হয়নি। প্রেসিডেন্সির ছাত্রছাত্রীদেরই একাংশ শিক্ষা প্রাঙ্গণে পুজো করতে দেওয়া হবে না বলে দাবি তোলে। তাদের দাবি, অযথা রাজনীতি এবং ধর্ম ঢোকানোর চেষ্টা হচ্ছে।

এদিকে, শাসক দল দাবি করেছিল তাদের পুজো করতে না দিলে, গেটের বাইরেই হবে পুজো। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ 'এখানে কোনও ধর্মাচরণ হয় না' যুক্তি দেখলে তা নিয়ে পাল্টা প্রশ্ন করে টিএমসিপি। তারা হুঁশিয়ারি দিয়েছিল, এই পুজো কেউ আটকাতে পারবে না।