scorecardresearch
 

Texas School Shooting:স্কুলে হামলার আগে ঠাকুমাকে গুলি, টেক্সাসে বন্দুকবাজ কা়ড়ল ২৩ প্রাণ

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসের একটি স্কুলে ভয়াবহ গুলি চালানোর ঘটনা সামনে এসেছে। এই হামলায় ১৯ জন শিশু মারা গেছে এবং অনেকে আহত হয়েছে বলে জানা গেছে। তিন শিক্ষককেরও মৃত্যুর খবর পাওয়া যাচ্ছে। টেক্সাসের গভর্নর এ তথ্য জানিয়েছেন।

১৮  বছর বয়সী বন্দুকবাজ নিরীহ মানুষের উপর গুলি চালায় ১৮ বছর বয়সী বন্দুকবাজ নিরীহ মানুষের উপর গুলি চালায়
হাইলাইটস
  • ১৮ বছর বয়সী বন্দুকবাজ নিরীহ মানুষের উপর গুলি চালায়
  • অভিযুক্ত নিজেও গুলি করে আত্মঘাতী হয়

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসের একটি স্কুলে ভয়াবহ গুলি চালানোর ঘটনা সামনে এসেছে। এই হামলায় ১৯ জন  শিশু মারা গেছে এবং অনেকে আহত হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। তিন শিক্ষককেরও মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে। টেক্সাসের গভর্নর এ তথ্য জানিয়েছেন। অতীতেও এমন ভয়ঙ্কর  বন্দুকবাজের হামলা দেখা গেছে আমেরিকায়।

টেক্সাসের গভর্নর গ্রেগ অ্যাবট (Greg Abbott) জানিয়েছেন, টেক্সাসের উভালদে শহরে গুলি চালানোর ঘটনা ঘটেছে। সেখানে, ১৮ বছর বয়সী একজন বন্দুকধারী রব এলিমেন্টারি স্কুলের শিক্ষার্থীদের লক্ষ্য করে গুলি চালায়। গভর্নরের মতে, ওই গুলিতে ১৯ জন ছাত্র মারা যায় এবং তিনজন শিক্ষকও প্রাণ হারান। সংবাদিক সম্মেলনে তিনি আরও জানিয়েছেন, অভিযুক্ত শ্যুটার হামলার পর নিজেকে গুলি করে। ঘটনাটি বিকেলে বলা ঘটে যখন ১৮  বছর বয়সী এক বন্দুকধারী হঠাৎ স্কুল ক্যাম্পাসে প্রবেশ করে। পুলিশ শ্যুটার সম্পর্কে জানতে পেরে সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে ফোর্স পাঠায়, পাশাপাশি শিশুদের অভিভাবকদের ক্যাম্পাসে না যাওয়ার জন্য অনুরোধ করা হয়।

গ্রেগ অ্যাবট এই হামলাকে বেশ মারাত্মক বলে মনে করেছেন। তার দৃষ্টিতে, উভালদে একটি খুব ছোট শহর, যেখানে অভিযুক্ত এই কাপুরুষোচিত হামলা চালিয়েছে সেই স্কুলে মাত্র ৬০০  জন শিক্ষার্থী পড়াশোনা করতো। তিনি আক্রমণটিকে ২০১২ সালের স্যান্ডি হুক প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শ্যুটিংয়ের সঙ্গে  তুলনা করেছেন। তবে তিনি টেক্সাসের এই শ্যুটিংকে আরও মারাত্মক এবং উদ্বেগজনক বলে মনে করেছেন। আশ্চর্যের বিষয়, অভিযুক্ত বন্দুকধারী তার বুলেট দিয়ে দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণিতে পাঠরত নিষ্পাপ শিশুদের লক্ষ্য করে। ২০১২ সালের ঘটনায়ও একইভাবে ২০ জন শিশুকে হত্যা করা হয়েছিল।

হামলাকারী প্রথমে ঠাকুমাকে লক্ষ্য করে
হামলাকারী সম্পর্কে বড় ধরনের তথ্য পাওয়া গেছে। সিএনএন সূত্রের জানা যাচ্ছে, হামলাকারী স্কুলে যাওয়ার আগে তার ঠাকুমাকেও কেও গুলি করেছিল। গুলিবিদ্ধ হওয়ার পর ঠাকুমা  সান আন্তোনিওতে হাসপাতালে ভর্তি। তার চিকিৎসা চলছে। ঠাকুমাকেকে গুলি করে পালিয়ে যায় হামলাকারী। এরপর সে বিদ্যালয়ে এসে শিক্ষার্থীদের ওপর গুলি চালান।

 

 

টেক্সাসের জননিরাপত্তা বিভাগ জানিয়েছে যে টেক্সাসের উভালদে রব এলিমেন্টারি স্কুলে গুলি চালানোর আগে হামলাকারীর সঙ্গে  দুটি ঘটনা ঘটেছে। প্রথমে সে তার ঠাকুমাকে গুলি করে। পরে স্কুলের কাছে একটি গাড়িকেও ধাক্কা দেয় সে। কর্মকর্তাদের মতে, হামলাকারী স্কুলে প্রবেশের আগে বুলেটপ্রুফ জ্যাকেট পরে ছিল। স্কুলে প্রবেশের সময় হামলাকারীর হাতে ছিল একটি রাইফেল। এরপর সে  স্কুলের বিভিন্ন ক্লাসে গিয়ে গুলি চালাতে থাকে। এই দুর্ঘটনায় মোট ২৩ জনের মৃত্যু হয়েছে।

বাইডেন বলেছেন-  পদক্ষেপ নেওয়ার সময় এসেছে 
মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন, জাতি হিসেবে আমাদের প্রশ্ন করতে হবে, কবে আমরা ঈশ্বরের নামে বন্দুকবাজের বিরুদ্ধে দাঁড়াব? প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন, বাবা-মা, দেশের প্রতিটি নাগরিকের বেদনাকে কাজে পরিণত করার সময় এসেছে। আমাদের এই দেশের প্রতিটি নির্বাচিত কর্মকর্তাকে স্পষ্ট করে বলতে হবে যে এখনই কাজ করার সময়। বাইডেন বলেছিলেন যে আজ অনেক বাবা-মা তাদের সন্তানদের আর দেখতে পাবে না। সন্তান হারানোর বেদনা যেন শরীর থেকে কেউ আত্মা কেড়ে নিয়েছে।

 

 

বর্তমানে ঘটনাস্থলে পুলিশ রয়েছে এবং আহতদের হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে। প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, এই গুলি হামলায় অনেক ছাত্র গুরুতর আহত হয়েছে, যাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক। এমন পরিস্থিতিতে মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। আপাতত গভর্নরের নির্দেশের পর টেক্সাসের রেঞ্জার্স বিষয়টি তদন্ত শুরু করেছে। স্থানীয় পুলিশের কাছ থেকেও সহযোগিতা নেওয়া হচ্ছে।

একই সঙ্গে, এমনও খবর রয়েছে যে শীঘ্রই রাষ্ট্রপতি জো বাইডেন এই গুলি হামলার  ঘটনা নিয়ে বিবৃতি দেবেন। প্রেস সেক্রেটারি কারিন জিন-পিয়েরে বলেছেন যে প্রেসিডেন্ট বাইডেনকে এই ভয়াবহ হামলার কথা জানানো হয়েছে। তাঁকে প্রতিটা আপডেটের বিষয়ে প্রতিনিয়ত জানানো হচ্ছে।