scorecardresearch
 

Pallavi Dey Death News Adrija Roy : পল্লবীর পার্সোনাল লাইফে টানাপোড়েন! মুখ খুললেন 'মৌ এর বাড়ি'-র অদ্রিজা

ইন্ডাস্ট্রিতে একাধিক বন্ধু ছিল পল্লবীর। তবে তাঁর সেই অর্থে 'কাছের মানুষ' ছিলেন 'মৌ এর বাড়ি'-র নায়িকা অদ্রিজা রায়। মানুষ হিসেবে কেমন ছিলেন পল্লবী? তিনি কি ডিপ্রেশনে থাকতেন? ইত্যাদি প্রশ্নের উত্তর দিলেন অদ্রিজা।

অদ্রিজা ও পল্লবী অদ্রিজা ও পল্লবী
হাইলাইটস
  • সাগ্নিকের সঙ্গে সম্পর্ক ছিল সেকথা কি জানত সবাই?
  • পল্লবী কি ডিপ্রেশড থাকতেন ?
  • উত্তর দিলেন পল্লবীর বান্ধবী অদ্রিজা

ব্যক্তিগত জীবনে টানাপোড়েন, সাগ্নিকের সঙ্গে সম্পর্কজনিত কারণে বিবাদ সেই কারণেই কি আত্মহত্যা করেছেন অভিনেত্রী পল্লবী দে? এই প্রশ্ন উঠে আসছে। যদিও পরিবারের সদস্যদের দাবি খুন করা হয়েছে পল্লবীকে। এই মর্মে থানায় অভিযোগ করেছেন তাঁরা। অভিযোগ পত্রে নাম রয়েছে পল্লবীর লিভ-ইন পার্টনার সাগ্নিক চক্রবর্তী ও তাঁর বান্ধবীর। পুলিশ তদন্তও শুরু করেছে। 

ইন্ডাস্ট্রিতে একাধিক বন্ধু ছিল পল্লবীর। তবে তাঁর সেই অর্থে 'কাছের মানুষ' ছিলেন 'মৌ এর বাড়ি'-র নায়িকা অদ্রিজা রায়। মানুষ হিসেবে কেমন ছিলেন পল্লবী? তিনি কি ডিপ্রেশনে থাকতেন? ইত্যাদি প্রশ্নের উত্তর দিলেন অদ্রিজা।  

অদ্রিজার কথায়, 'ইন্ডাস্ট্রিতে সবার সঙ্গে সম্পর্ক ভালো থাকে না। তবে প্রকৃত অর্থে ভালো মানুষ ছিল পল্লবী। ওর মতো প্রাণখোলা কাউকে আমি দেখিনি। আমার সঙ্গে ওর মিল ছিল। আমাদের দুজনেরই মন খারাপ হলে কাউকে বুঝতে দিতাম না। সব সময় হাসিমুখে থাকতাম। দুজনে বেশ কয়েকবার আড্ডাও দিয়েছি।' 

আরও পড়ুন : সুইসাইড করেছেন পল্লবী, ময়নাতদন্তে প্রাথমিক রিপোর্টে ইঙ্গিত

কেমন ছিল সেই আড্ডা? অদ্রিজা জানালেন, তাঁর বাড়ি একাধিকবার গিয়েছেন পল্লবী। বললেন, 'পল্লবী আমাদের বাড়ি গিয়েছে একাধিকবার। আমার পরিবারের বাইরে তেমন বন্ধু নেই। আমি ঘুরতেও তেমন ভালোবাসি না। তবে পল্লবীকে ভালো লাগত। ও আসত। আড্ডা দিতাম। ফুচকা, আলুকাবলি, পিৎজা খেতাম একসঙ্গে। অনেক গল্প করতাম। মজা হত।' 

 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

A post shared by Adrija Roy ❤️ (ADDY) (@adrija_roy_official)

সাগ্নিকের সঙ্গে সম্পর্ক ছিল সেকথা কি জানত সবাই? উত্তরে অভিনেত্রী অদ্রিজা জানালেন, 'সবাই জানত। সাগ্নিকের সঙ্গে ওর সম্পর্ক ছিল এটা তো গোপন ছিল না কোনওদিনই। সাগ্নিক আসত সেটে। আমিও ওকে দেখেছি দু-একবার।' 

সাগ্নিকের সঙ্গে যে ঝামেলা চলছে তেমন কোনও ইঙ্গিত কি মিলেছিল? 'মৌ এর বাড়ি'-র অভিনেত্রী বললেন, 'আমার আর ওর সেট আলাদা। তবে আমি মাঝে মাঝে টেকনিশিয়ান স্টুডিওতে যেতাম কাজের শেষে। তখন পল্লবীর সঙ্গে দেখা হত। মেক আপ রুমে গল্প করতাম। এই তো দিন পনের আগেও গিয়েছিলাম। তখন সাগ্নিককে নিয়ে বলেছিল। মনে হয়েছিল ও ডিপ্রেশনে আছে হয়তো। তবে আমি কারও ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে কোনওদিনই তেমন আগ্রহ দেখাতে পারি না। আর তাছাড়া প্রত্যেকের ব্যক্তিগত জীবনে সমস্যা থাকে। সেটা মা-বাবা বা পরিবারের সদস্য অথবা বন্ধুর সঙ্গে হতেই পারে।' 

আরও পড়ুন :Pallavi Dey : মৃত্যুর কয়েক ঘণ্টা আগে বিন্দাস মুডে ছিলেন পল্লবী, বলছে এই ছবি

অদ্রিজা আরও পাঁচজন সহকর্মীর মতোই বললেন, 'পল্লবী যে আত্মহত্যা করতে পারে এটা আমিও বিশ্বাস করি না। পুলিশ তদন্ত করছে। আশা করি সত্যিটা সামনে আসবে।' 

 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

A post shared by mistuu (@pallavidey153)

পুলিশ সূত্রে খবর, সাগ্নিক জিজ্ঞাসাবাদের মুখে দাবি করেছে কাজ নিয়ে চিন্তিত ছিলেন পল্লবী। কারণ এখন যে সিরিয়াল তিনি করছিলেন সেটা শেষ হতে যাচ্ছিল। তবে সাগ্নিকের এই তত্ত্ব মানতে নারাজ অদ্রিজা। তিনি বললেন, 'একটা সিরিয়াল আসে আবার চলে যায়। এটাই নিয়ম। আর পল্লবী অল্প সময়েই জনপ্রিয়তা পেয়েছিল। তাই ও বসে থাকত না। কাজ ঠিক পেয়ে যেত। আমরা যারা ইন্ডাস্ট্রিতে আছি তারা সবাই জানি। কেউ একটু পরে কাজ পায় আর কেউ একটু আগে। এই তো পার্থক্য। তা বলে কেউ আত্মহত্যা করবে এটা বিশ্বাস করা শক্ত।'