scorecardresearch
 
 

Nusrat Jahan: সন্তানের বাবা কে? নুসরতকে নিয়ে মিমের ছড়াছড়ি

সম্প্রতি কিছু মিম নজরে এসেছে যাতে নুসরতের আত সন্তানের পিতৃ পরিচয় নিয়ে খোঁচা দেওয়া হয়েছে। পর্দায় ব্যোমকেশের ভূমিকায় বেশ সফল আবির চট্টোপাধ্যায়। আবিরের সঙ্গে জুটি বেঁধে ব্রাত্য বসুর পরিচালনায় ডিকশনারি ছবিতে অভিনয় করেছিলেন নুসরত। সেই ছবিরই একটি দৃশ্য তুলে ধরে সংলাপ বসানো হয়েছে আবির এবং নুসরতের মুখে।

নুসরতের বেবি বাম্প নুসরতের বেবি বাম্প
হাইলাইটস
  • এ দেশেই এমন বহু নজির আছে যাঁরা সিঙ্গল মাদার হিসাবে সন্তানকে সফল ভাবে বড় করে তুলেছেন।
  • কিন্তু যা কিছু একটু ছকভাঙা, একটু আলাদা, তাহাই মিমের খোরাপযোগ্য!
  • আপাতত এই তত্ত্বেই সিলমোহর দিচ্ছে আমজনতা।

তিনি একা নন, তাঁর আগে এ দেশেই এমন বহু নজির আছে যাঁরা সিঙ্গল মাদার হিসাবে সন্তানকে সফল ভাবে বড় করে তুলেছেন। কিন্তু যা কিছু একটু ছকভাঙা, একটু আলাদা, তাহাই মিমের খোরাপযোগ্য! আপাতত এই তত্ত্বেই সিলমোহর দিচ্ছে আমজনতা। গত কয়েক মাস ধরে অভিনেত্রী সাংসদ নুসরত জাহান-কে নিয়ে সোশাল মিডিয়ায় মিমের ছড়াছড়ি। তাতে নতুন ভাবে যুক্ত হয়েছে সন্তানের পিতৃপরিচয়।

সম্প্রতি কিছু মিম নজরে এসেছে যাতে নুসরতের আত সন্তানের পিতৃ পরিচয় নিয়ে খোঁচা দেওয়া হয়েছে। পর্দায় ব্যোমকেশের ভূমিকায় বেশ সফল আবির চট্টোপাধ্যায়। আবিরের সঙ্গে জুটি বেঁধে ব্রাত্য বসুর পরিচালনায় ডিকশনারি ছবিতে অভিনয় করেছিলেন নুসরত। সেই ছবিরই একটি দৃশ্য তুলে ধরে সংলাপ বসানো হয়েছে আবির এবং নুসরতের মুখে। ব্যোমকেশ রূপী আবির জিজ্ঞাসা করছেন, ‘বলুন কী ভাবে আপনার সাহায্য করতে পারি?’ উত্তরে নুসরতের মুখে বসানো হয়েছে, ‘আমার বাচ্চার আসল বাবাকে খুঁজে দেবেন ব্যোমকেশ বাবু?’ বিষয়টি কতটা দৃষ্টিকটূ তা নিয়ে হয়তো কেউ ভাবছেন না। তবে এর সঙ্গে যে একজন নারীর সম্মান জড়িয়ে রয়েছে তা কেউই অস্বীকার করতে পারবেন না।

এখানেই শেষ নয় আরও আছে। এবার থেকে বিয়ে বাড়ি গিয়েই হ্যাংলার মতো খেয়ে নেবেন না.. আগে দেখবেন ওটা আদৌ বিয়ে বাড়ি নাকি ‘লিভ টুগেদার পার্টি’। এমনই মিমের ছড়াছড়ি ইন্টারনেট জুড়ে।  তার সঙ্গে কমেন্টেরও রকমভেদ দেখার মতো। ‘মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক, নুসরতের বিয়ে সব ক্যান্সেল’। কিছু ইউজার সভ্যতার সীমাও অবলীলায় অতিক্রম করেছেন। একজন লিখছেন, 'সন্তানের পিতার কথা মনে আছে, নাকি সেটাও ভুলে গিয়েছে?'

একজন নিখিলের সমর্থনে কমেন্ট করে লেখেন, 'দিদি নিখিল দাদা ভালো ছেলে, ওর লাইফটা নিয়ে এভাবে কেন খেলছ?' আর একজনের মন্তব্য, 'সহবাস করার জন্যই কি তুরস্কে গিয়ে বিয়ে করেছিলেন নাকি? আপনাদের জন্য সমাজটা শেষ হয়ে যাচ্ছে। লজ্জা হওয়া উচিত।' তবে কিছু মন্তব্য নুসরতের সমর্থনেও করেছেন অনেকে। একজন লিখেছেন, 'এটা আপনার জীবন এবং কার কোনও অধিকার নেই আপনার ব্যক্তিগত বিষয়ে হস্তক্ষেপ করার। আপনি সাফল্যের সঙ্গে এগিয়ে যান। সুস্থ থাকুন এবং ভালোবাসা নেবেন।'

কমেন্টেই শেষ নয়, নুসরতের ঘটনা নিয়ে তৈরি হচ্ছে মিম-ও। যেখানে খানিকটা অজান্তেই ঢুকে পড়ছেন অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়। শ্রাবন্তীর ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে কম কাটাছেঁড়া হয়নি। এখনও তাঁর একাধিক বিয়ে এবং সম্পর্ক নিয়ে নেট মাধ্যম সরগরম থাকে। সম্প্রতি তাঁর বর্তমান স্বামী রোশন সিং শ্রাবন্তীর সঙ্গে মিটমাট করে সংসার করার কথা বলেছেন। তা নিয়েও বেশ সক্রিয় নেটিজেনরা। নুসরতের ঘটনা নিয়ে সলমন খানের একটি বিখ্যাত গানে সলমনের জায়গায় শ্রাবন্তীর মুখ বসানে হয়েছে। অবশ্য এর লক্ষ্য যে নুসরত তা আলাদা করে বলার প্রয়োজন নেই।