scorecardresearch
 
 

কল সেন্টারের আড়ালে প্রতারণার জাল, সল্টলেকে গ্রেফতার ৮

নির্দিষ্ট সূত্রে খবর পেয়ে সোমবার রাতে সেক্টর ৫-এর (Salt Lake Sector 5) ওই বিল্ডিং-এর দুটি ভুয়ো কল সেন্টারে অভিযান চালায় পুলিশ। দুটি ভুয়ো কল সেন্টারের মোট ৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ধৃতদের নাম, আদিল আহমেদ, শাহরুখ সাপুই, অনিমেশ রায়, সূরজ আগরওয়াল, প্রদীপ্ত দাস, আয়ূষ জয়সওয়াল, আমন সাউ এবং অভিষেক পান্ডে। 

প্রতীকী ছবি প্রতীকী ছবি
হাইলাইটস
  • ভুয়ো কল সেন্টারে পুলিশের অভিযান
  • ২টি কল সেন্টার থেকে ধৃত ৮
  • বাজেয়াপ্ত প্রচুর সামগ্রী

একই বিল্ডিং-এ চলছিল পৃথক ২টি ভুয়ো কল সেন্টার (Fake Call Center)। হানা দিয়ে পর্দা ফাঁস করল বিধাননগর সাইবার থানার পুলিশ। ঘটনাস্থল সল্টলেক সেক্টর ৫। দুটি কল সেন্টার থেকে মোট ৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সঙ্গে বাজেয়াপ্ত হয়েছে বেশকিছু ল্যাপটপ, কম্পিউটার সহ বিবিধ সামগ্রী। 

জানা গিয়েছে, নির্দিষ্ট সূত্রে খবর পেয়ে সোমবার রাতে সেক্টর ৫-এর (Salt Lake Sector 5) ওই বিল্ডিং-এর দুটি ভুয়ো কল সেন্টারে অভিযান চালায় পুলিশ। দুটি ভুয়ো কল সেন্টারের মোট ৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ধৃতদের নাম, আদিল আহমেদ, শাহরুখ সাপুই, অনিমেশ রায়, সূরজ আগরওয়াল, প্রদীপ্ত দাস, আয়ূষ জয়সওয়াল, আমন সাউ এবং অভিষেক পান্ডে। 

অভিযোগ, বিদেশিদের ফোন করে টেকনিক্যাল সাপোর্ট (Technical Support) দেওয়ার ভুয়ো প্রতিশ্রুতি দেওয়া হত ওই কল সেন্টার থেকে। তার বিনময়ে গ্রাহকদের থেকে টাকা নিত তারা। এই ভাবেই প্রতারণার জাল বিছিয়েছিল ওই দুটি কল সেন্টার। 

হানা দিয়ে প্রায় ৫০টি কম্পিউটার, হার্ড ডিস্ক, ল্যাপটপ, প্রচুর ডাটা শিট সহ বেশকিছু সামগ্রী বাজেয়াপ্ত করেছে পুলিশ। একইসঙ্গে এই চক্রে আরও কেউ জড়িত রয়েছে কি না, বা অন্য়কোনও জায়াগাতেও এই ধরনের ভুয়ো কল সেন্টার রয়েছে কি না তা জানার চেষ্টা করছেন তদন্তকারীরা।