scorecardresearch
 

আন্ডারওয়ার্ল্ডে যেন 'সুপারি' নিয়েছে করোনা! চলছে 'এনকাউন্টার'

বিহারের প্রাক্তন সাংসদ এবং ডন শাহাবুদ্দিন করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন। তিনি প্রয়াত হয়েছেন। অন্যদিকে, আন্ডারওয়ার্ল্ডের ডন ছোটা রাজন করোনায় আক্রান্ত।

করোনাভাইরাস যেন থাবা মেরেছে অপরাধ জগতেও (প্রতীকি ছবি) করোনাভাইরাস যেন থাবা মেরেছে অপরাধ জগতেও (প্রতীকি ছবি)
হাইলাইটস
  • করোনা সংক্রমনের জেরে নাজেহাল দেশ
  • রোজই লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা
  • সমান ভাবে করোনা থাবা মেরেছে আন্ডারওয়ার্ল্ডেও

করোনা সংক্রমনের জেরে নাজেহাল দেশ। রোজই লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। তেমনই বাড়ছে মৃতের সংখ্যাও। সারা দেশেই একই অবস্থা। বাংলাতেও এর অন্য ছবি নয়। 

সমান ভাবে করোনা থাবা মেরেছে আন্ডারওয়ার্ল্ডেও। এমনই জানা যাচ্ছে। কুখ্যাত দুষ্কৃতীদের মধ্যে অনেকেই ইতিমধ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। 

বিহারের প্রাক্তন সাংসদ এবং ডন শাহাবুদ্দিন করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন। তিনি প্রয়াত হয়েছেন। অন্যদিকে, আন্ডারওয়ার্ল্ডের আরও একজন ছোটা রাজন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। আর তিনি এখন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

গোয়েন্দা সূত্রে আরও জানা গিয়েছে, আন্ডারওয়ার্ল্ডের আরও এক ডন দাউদ ইব্রাহিমের ভাইপো করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন। শিনা বোরা হত্যাকাণ্ডে অন্যতম অভিযুক্ত ইন্দ্রানী মুখোপাধ্যায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। বলা হচ্ছে, আন্ডারওয়ার্ল্ড, সংশোধনাগারে করোনা আতঙ্ক ছড়িয়েছে তীব্র। 

যেন করোনাভাইরাস আন্ডারওয়ার্ল্ডের সুপারি নিয়ে নিয়েছে। সুপারি অর্থাৎ কাউকে হত্যা করার জন্য যে টাকা দেওয়া হয়। ভারতের মোস্ট ওয়ান্টেড ডন দাউদ ইব্রাহিম এর আগেই করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন।

গোয়েন্দা সংস্থা সূত্রে খবর দাউদ আর ওর স্ত্রী করোনা পজিটিভ হয়েছে। দুজনেই করাচির আর্মি হাসপাতলে ভর্তি হয়েছে বলে খবর পাওয়া গিয়েছে। 

আরও খবর পাওয়া গিয়েছিল দাউদের পরিচারক এবং নিরাপত্তারক্ষীদের হোম কোয়ারেন্টিন এ পাঠানো হয়েছে দাউদ ইব্রাহিম ইব্রাহিমের ভাই আনিস ইব্রাহিম এই খবর মানতে রাজি হয়নি। 

জানা গিয়েছে, করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় সংক্রমণের ঢেউয়ের ধাক্কা লেগেছে দাউদের পরিবারে। তার ভাইপো সিরাজ কাসকারের পাকিস্তানের করাচিতে মৃত্যু হয়েছে।

মুম্বইয়ের সংশোধনাগারের থাকা দাউদের অন্যান্য সঙ্গী এবং অপরাধীদের মধ্যেও ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ। 

দেখা যাচ্ছে, দেশের বিভিন্ন প্রান্তে থাকা কুখ্যাত দুষ্কৃতীরা করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। যেমন পাঞ্জাবের জেলের ঘটনা সেখানে। উত্তরপ্রদেশের বান্দা জেলা থেকে আনা হয়েছে বাহুবলী মুক্তার আনসারিকে। সে করোনা পজিটিভ বলে জানা গিয়েছে। তাকে রাখা হয়েছে আইসোলেশনে। 

তেমনই আরেকটা ঘটনা সীতাপুর জেলের। সেটাও উত্তরপ্রদেশে। সমাজবাদী পার্টির সাংসদ আজম খান আর তাঁর বিধায়ক পুত্র এখন রয়েছেন সংশোধনাগারে। তারা দুজনেই করোনা পজেটিভ বলে জানা গিয়েছে। 

করোনা নিয়ে বেজায় চিন্তিত আশারাম বাপু। সে রয়েছে সংশোধনাগারে। তবে তিনি এতটাই চিন্তিত যে প্যারোলে মুক্তির জন্য দাবি করেছিল।

তবে সেই দাবি মানা হয়নি। তাই সেখানে অনশন শুরু করেছিল। পরে দাবি করে, সে অসুস্থ। ফলে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।