scorecardresearch
 

১১ বছরের কিশোরীকে তুলে নিয়ে গিয়ে গণধর্ষণের অভিযোগ ৬ নাবালকের বিরুদ্ধে

৬ নাবালক মিলে গ্যাংরেপ করল ১১ বছরের কিশোরীকে। ঘটনার পর এলাকা তো বটেই গোটা রাজ্যে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। পুলিশ ৬ জনকে নাবালিকার পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে।

নাবালিকাকে গণধর্ষণ নাবালিকাকে গণধর্ষণ
হাইলাইটস
  • ১১ বছরের কিশোরীকে তুলে নিয়ে গিয়ে গণধর্ষণের অভিযোগ
  • অভিযোগ ৬ নাবালকের বিরুদ্ধে
  • পুলিশ ৬ জনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে

১১ বছরের একটি নাবালিকা কিশোরীকেকে ৬ জন নাবালক মিলে আটকে রেখে ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এমনই চাঞ্চল্যকর ঘটনার খবর সামনে আসতেই আতঙ্কে হাত-পা ঠাণ্ডা হয়ে এসেছে দেশবাসীর।টাইমস অফ ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পুলিশ অভিযুক্ত ৬ জনকে আটক করেছে, যাদের বয়স ১০ থেকে ১৫ বছরের মধ্যে। এমন ঘটনা এর আগেও কয়েকবার সামনে আসায় কপালে উদ্বেগের ভাঁজ বেড়েছে পুলিশেরও। মঙ্গলবার রাতে ঝাড়খণ্ডের খুন্তি জেলার ঘটনা। তদন্ত শুরু হয়েছে

ঘটনাটি ঠিক কী হয়েছে?

পুলিশ জানায়, ওই নির্যাতিতা কিশোরী পাশের গ্রামে একটি বিয়েতে গিয়েছিল। একটি নাচের অনুষ্ঠান চলাকালীন, স্থানীয় কিছু ছেলেদের সঙ্গে তার ঝগড়া হয়েছিল। যাকে সে আগে থেকেই চিনতো। অনেক রাত পর্যন্ত বিয়ের অনুষ্ঠানে থেকে "মাঝরাতে যখন সে তার দুই বন্ধুর সাথে বাড়ি ফিরছিল। 

তখন তাদের পিছনে হেঁটে আসা ছেলেরা তাকে রাস্তায় আটকে দেয়। তারা একটি নির্জন জায়গায় তাকে জোর করে নিয়ে যায় এবং তাকে গণধর্ষণ করে। ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয় তার দুই বন্ধু। যাওয়া তার বাবা-মাকে জানায়। এরপর তার বাবা-মা তাকে খুঁজতে আসে। ওই ছেলেরা দূর থেকে কিশোরীর বাবা-মাকে দেখে পালিয়ে যায়,” এ কথা পুলিশ জানিয়েছে।

মামলা নথিভুক্ত

ঘটনাটি শুনে, মেয়েটির পরিবার সামাজিক কলঙ্কের কারণে প্রাথমিকভাবে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করতে দ্বিধা করেছিল বলে জানা গিয়েছে। পরে অবশেষে বৃহস্পতিবার পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় অভিযোগ দায়ের করলে পুলিশ তদন্ত শুরু করে। ছয় আসামিকে আটক করে।