scorecardresearch
 
 

পর্ন শ্যুটে বাধ্য করার অভিযোগ, নিউটাউন থানার দ্বারস্থ মহিলা

মহিলা জানাচ্ছেন, গত জানুয়ারি মাসে ফেসবুকে এক ব্যক্তির সঙ্গে পরিচয় হয় তাঁর। ওই ব্যক্তি তাঁকে একটি শাড়ি শ্যুটের প্রস্তাব দেয়। তার জন্য তাঁকে সাড়ে ৩ হাজার টাকা পারিশ্রমিক দেওয়ার প্রতিশ্রুতিও দেয় ওই ব্যক্তি। শ্যুটিং হওয়ার কথা ছিল বালিগঞ্জে।

প্রতীকী ছবি প্রতীকী ছবি
হাইলাইটস
  • মহিলাকে দিয়ে জোর করে পর্ন শ্যুটের অভিযোগ
  • নিউটাউন থানায় অভিযোগ দায়ের মহিলার
  • অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশি শুরু

পর্ন ভিডিও শ্যুটে বাধ্য করার অভিযোগ। নিউটাউন থানায় অভিযোগ দায়ের এক মহিলার। ইতিমধ্যেই সেই ভিডিও বিভিন্ন পর্ন সাইডে আপলোড করা হয়েছে বলেও অভিযোগ মহিলার। অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নেমেছে পুলিশ। অভিযুক্তদের খোঁজে শুরু হয়েছে তল্লাশি। 

মহিলা জানাচ্ছেন, গত জানুয়ারি মাসে ফেসবুকে এক ব্যক্তির সঙ্গে পরিচয় হয় তাঁর। ওই ব্যক্তি তাঁকে একটি শাড়ি শ্যুটের প্রস্তাব দেয়। তার জন্য তাঁকে সাড়ে ৩ হাজার টাকা পারিশ্রমিক দেওয়ার প্রতিশ্রুতিও দেয় ওই ব্যক্তি। শ্যুটিং হওয়ার কথা ছিল বালিগঞ্জে। 

অভিযোগকারী মহিলা জানাচ্ছেন, নির্দিষ্ট দিনে বালিগঞ্জের ওই জায়গায় পৌঁছান তিনি। তাঁর আরও কয়েকজন মহিলা ছিলেন বলে জানাচ্ছেন ওই অভিযোগকারিণী। কিন্তু সেখানে গিয়ে দেখা যায় শাড়ির পরিবর্তে পর্ন শ্যুট হচ্ছে। সেই দেখে তাঁরা ওই শ্যুট করবেন না বলে জানিয়ে দেন। কিন্তু অভিযোগ, রীতিমতো হুমকি দিয়ে তাঁদের পর্ন শ্যুট করতে বাধ্য করে নন্দিতা দত্ত ও মৈনাক নামে দুজন। সেই ভিডিও ভারতে রিলিজ হবে না বলেও প্রতিশ্রুতি দেয় তারা। কিন্তু তারপর দিন কয়েক আগে দেখা যায় ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে সেই ভিডিও। তারপরেই পুলিশের দ্বারস্থ হন ওই মহিলা। 

এইভাবে আর কাউকে যাতে পর্নগ্রাফির শিকার হতে না হয় তার জন্য অবিলম্বে নন্দিতা দত্ত ও মৈনাকের গ্রেফতারি এবং তাদের কড়া শাস্তির দাবি জানিয়েছেন ওই মহিলা। নির্দিষ্টি অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশিও চালাচ্ছেন তদন্তকারীরা।