scorecardresearch
 

Rahul Gandhi on Congress President Election: কংগ্রেসের সভাপতি নির্বাচন, রাহুলের মুখে, 'এক ব্যক্তি, এক পদ'

গত ৩ বছরে কংগ্রেসের প্রবীণ নেতারা সভাপতি হওয়ার জন্য রাহুলকে রাজি করানোর বহু চেষ্টা করেছেন। সম্প্রতি কংগ্রেসের সভাপতি পদে নির্বাচনের দিন ঘোষিত হয়েছে। নির্বাচনের দিন ঘোষণা হওয়ার পরেই রাহুলকে সভাপতি পদে বসানোর দাবি আরও জোরাল হয়েছে।

রাহুল গান্ধী রাহুল গান্ধী

কংগ্রেসের সভাপতি পদের ভোটপ্রক্রিয়া আসন্ন। গান্ধী পরিবারের কাছের লোক হিসেবে পরিচিত রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলটের বিরুদ্ধে শশী থারুর প্রার্থী হতে পারেন বলে জোর জল্পনা জাতীয় রাজনীতিতে। এহেন আলোচনার আবহেই রাহুল গান্ধী ফের জানালেন, তিনি কংগ্রেসের সভাপতি নির্বাচনে লড়বেন না। ২০১৯ সালে লোকসভা ভোটে কংগ্রেসের ভারডুবির পরে কংগ্রেসের সভাপতি পদে ইস্তফা দেন রাহুল। পরে তিনি দাবি করেন, গান্ধী পরিবারের বাইরে কেউ কংগ্রেসের সভাপতি হোক। যদিও এবারও রাহুলকেই সভাপতি নির্বাচন করার দাবি জোরাল হচ্ছে কংগ্রেসে।

রাহুলকে সভাপতি পদে আনার আর্জি জোরাল

গত ৩ বছরে কংগ্রেসের প্রবীণ নেতারা সভাপতি হওয়ার জন্য রাহুলকে রাজি করানোর বহু চেষ্টা করেছেন। সম্প্রতি কংগ্রেসের সভাপতি পদে নির্বাচনের দিন ঘোষিত হয়েছে। নির্বাচনের দিন ঘোষণা হওয়ার পরেই রাহুলকে সভাপতি পদে বসানোর দাবি আরও জোরাল হয়েছে। ১০ রাজ্যের কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীর সমর্থনে প্রস্তাবও পাশ করেছে। রাহুল এখনও নিজের অবস্থানেই অনড়।

আরও পড়ুন: Congress President Election: নির্বাচন ১৭ অক্টোবর, ১৯ অক্টোবর নতুন সভাপতি পাবে কংগ্রেস?

রাহুল এখনও নিজের সিদ্ধান্তেই অনড়

কংগ্রেসের সভাপতি পদে লড়াইয়ের প্রসঙ্গে রাহুল আজ সাংবাদিকদের বলেন,' আমি গতবারই নিজের অবস্থান জানিয়েছিলাম। সেই অবস্থানেই অনড় আছি। কংগ্রেস সভাপতি পদ একটি বিচার্য পদ। আমি মনে করি, যে-ই সভাপতি হোন, তিনি যেন কংগ্রেসের আদর্শ ও বিচারধারার প্রতিনিধি হন।'

আরও পড়ুন: Rahul Gandhi: 'রাহুলের ৪১ হাজার টাকার টি-শার্ট,' ট্যুইট BJP-র, কংগ্রেসের পাল্টা, '১০ লাখি শ্যুট'

এক ব্যক্তি এক পদ

এদিন এক ব্যক্তি এক পদের পক্ষেও সওয়াল করেন রাহুল গান্ধী। প্রেসিডেন্ট নির্বাচন প্রসঙ্গে রাহুল বলেন, 'উদয়পুরে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, কংগ্রেসে সর্বদা এক ব্যক্তি এক পদ নীতি হবে। সেই প্রতিশ্রুতি মানা হবে বলেই আশা করছি আমি। '

১৭ অক্টোবর কংগ্রেসের সভাপতি নির্বাচন

প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শশী থারুর সভাপতি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার ইচ্ছা আগেই প্রকাশ করেছিলেন। ঘটনাচক্রে কংগ্রেসের অন্দরে বিক্ষুদ্ধ জি-২৩ শিবিরের অংশও ছিলেন তিনি, অভ্যন্তরীণ রদবদল, নয়া সভাপতি নির্বাচনের দাবিতে সরব হয়েছিলেন। ২০১৯-এর লোকসভা হারের দায় স্বীকার করে সভাপতি পদ থেকে যখন সরে দাঁড়ান রাহুল, সেই সময় সনিয়াকে লেখা চিঠিতে সংগঠনে রদবদল ঘটানোর আর্জি জানিয়ে লেখা চিঠিতে স্বাক্ষর ছিল শশী থারুরেরও। মায়ের মৃত্যু এবং বিদেশে চিকিৎসা করিয়ে সম্প্রতিই দেশে ফিরেছেন সনিয়া। আগামী ১৭ অক্টোবর কংগ্রেস সভাপতি নির্বাচেন অংশ নেবেন তিনি।