scorecardresearch
 

অযোধ্যা নয়, উত্তরপ্রদেশের ভোটে নিজের গড়েই প্রার্থী যোগী

UP Assembly Election 2022: শনিবার প্রথম দফায় ১০৭ আসনে প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করল বিজেপি। এই প্রথম বিধানসভা ভোটে লড়াই করবেন যোগী আদিত্যনাথ।  

গোরক্ষপুরে প্রার্থী যোগী আদিত্য়নাথ। গোরক্ষপুরে প্রার্থী যোগী আদিত্য়নাথ।
হাইলাইটস
  • প্রথম দফায় ১০৭ আসনে প্রার্থী তালিকা ঘোষণা বিজেপির।
  • গোরক্ষপুরে (শহরাঞ্চল) প্রার্থী হলেন যোগী।
  • সিরাথু কেন্দ্রে প্রার্থী করা হয়েছেন উপমুখ্যমন্ত্রী কেশব প্রসাদ মৌর্যকে

কোথায় প্রার্থী হবেন যোগী আদিত্য়নাথ? হিন্দুত্বে আবেগে শান দিতে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী অযোধ্যা বা মথুরায় দাঁড়াতে পারেন বলে জল্পনা চলছিল। শনিবার প্রথম দফায় ১০৭ আসনে প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করল বিজেপি। তাতে দেখা গেল, নিজের গড় গোরক্ষপুরেই (শহরাঞ্চল) প্রার্থী হলেন যোগী।  প্রয়াগ রাজের সিরাথু কেন্দ্রে প্রার্থী করা হয়েছেন উপমুখ্যমন্ত্রী কেশব প্রসাদ মৌর্যকে। মথুরায় মন্ত্রী শ্রীকান্ত শর্মাকে প্রার্থী করেছে বিজেপি।   

উত্তরপ্রদেশের ভোটে জাতপাতের রাজনীতির মোকাবিলায় হিন্দুত্বের কৌশল নিয়েছে বিজেপি। রাম মন্দির নির্মাণ তো চলছেই, ভোটের আগে কাশী বিশ্বনাথ ধামের নতুন করিডরের দ্বারোদঘাটন করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। শোনা যাচ্ছিল, হিন্দুত্বের হাওয়াকে জোরালো করতে অযোধ্যা বা মথুরায় প্রার্থী হতে পারেন যোগী আদিত্যনাথ। পূর্ব উত্তরপ্রদেশের গেরুয়া শিবির বেশ দুর্বল। অযোধ্যায় প্রার্থী হলে সমাজবাদী পার্টির গড় অবধ অঞ্চলেও প্রভাব ফেলতে পারবেন। সে কারণে অযোধ্যা বা মথুরায় মুখ্য়মন্ত্রীকে প্রার্থী করতে চেয়েছিল বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব। যদিও শেষপর্যন্ত নিজের গড়েই প্রার্থী হলেন যোগী। এই গোরক্ষপুর থেকে তিনি টানা পাঁচবার সাংসদ হয়েছেন। ২০১৭ সালে সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী হন। এই প্রথম বিধানসভা ভোটে লড়াই করবেন যোগী আদিত্যনাথ। বর্তমানে মুখ্য়মন্ত্রী এবং তাঁর ডেপুটি কেশব প্রসাদ মৌর্য উত্তরপ্রদেশের বিধান পরিষদের সদস্য।   

প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করে উত্তরপ্রদেশে বিজেপির পর্যবেক্ষক ধর্মেন্দ্র প্রধান বলেন,''২০১৭ সালে বিজেপি ক্ষমতায় আসার আগে বেহাল দশা ছিল উত্তরপ্রদেশের। গত ৫ বছরে গুন্ডা ও উপদ্রবকারীদের দমন করেছে যোগী সরকার। দুর্নীতিতে লাগাম পড়িয়েছে। আস্থা অর্জন করেছে সাধারণ মানুষের।'' 

আরও পড়ুন- Covid চিকিৎসায় ২১-র ভুল ২২-এ, কেন্দ্র-রাজ্যকে চিঠি চিকিৎসকদের