scorecardresearch
 

Shanidev Puja Niyam: শনিদেবের পুজোয় এই সাবধানতা মেনে চলুন, না হলে হবে বড় ক্ষতি

Shanidev Puja Niyam: এটা বিশ্বাস করা হয় যে শনি পাপীদের জন্য কষ্টের কারণ। কিন্তু সৎদের জন্য খ্যাতি, সম্পদ, পদ এবং সম্মানের গ্রহ। এমন পরিস্থিতিতে আপনিও যদি শনিবার শনিদেবের পুজো করলে অনেক লাভ পাবেন। তবে কিছু জিনিসের যত্ন নেওয়া খুবই জরুরি। না হলে অসাবধানতাবশত শনিদেবকে অসন্তুষ্ট করতে পারেন।

শনিদেব। শনিদেব।
হাইলাইটস
  • শনিদেবের পুজোয় এই সাবধানতা মেনে চলুন
  • না হলে হবে বড় ক্ষতি
  • জানুন বিস্তারিত তথ্য

Shanidev Puja Niyam: হিন্দুধর্মে প্রতিটি দিন এক বা অন্য দেবতাকে উৎসর্গ করা হয়। তেমনই শনিবার শনিদেবের পুজো হয়। শনিদেবকে ন্যায়ের দেবতা মনে করা হয়। শনিদেবকে ধার্মিকতা এবং ন্যায়বিচারের প্রতীক হিসাবে বিবেচনা করা হয়। এটা বিশ্বাস করা হয় যে শনি পাপীদের জন্য কষ্টের কারণ। কিন্তু সৎদের জন্য খ্যাতি, সম্পদ, পদ এবং সম্মানের গ্রহ। এমন পরিস্থিতিতে আপনিও যদি শনিবার শনিদেবের পুজো করলে অনেক লাভ পাবেন। তবে কিছু জিনিসের যত্ন নেওয়া খুবই জরুরি। না হলে অসাবধানতাবশত শনিদেবকে অসন্তুষ্ট করতে পারেন।

শনিদেবের পুজো করার সময় এই জিনিসগুলির খেয়াল রাখুন

তামার পাত্র দিয়ে শনিদেবের পুজো করবেন না- শনিদেবের পুজোয় কখনই তামার পাত্র ব্যবহার করা উচিত নয়। তামা সূর্য দেবতার সঙ্গে সম্পর্কিত এবং শনিদেব সূর্যের পুত্র হলেও তিনি সূর্য দেবতার সঙ্গে তাঁর বিবাদ রয়েছে এমনটা বিশ্বাস। এমন অবস্থায় শনিদেবের পুজোয় সর্বদা লোহার পাত্র ব্যবহার করুন।

এই রংগুলির ব্যবহার এড়িয়ে চলুন- শনিদেব কালো রঙ পছন্দ করেন। তাই এই দিনে শুধুমাত্র কালো বা নীল রঙের পোশাক পরা উচিত। এই দিনে লাল রঙের পোশাক একেবারেই পরা উচিত নয়। লাল রং মঙ্গল গ্রহের প্রতীক, যা শনিদেবের শত্রু গ্রহ।

এই দিকে পুজো করুন- শনিবার শনিদেবের পুজো করার সময় পশ্চিম দিকে মুখ করে পুজো করতে হবে। সাধারণত পূর্ব দিকে মুখ করে পুজো করা হয়। তবে শনিদেবকে পশ্চিম দিকের অধিপতি বলে মনে করা হয়। তাই পুজোও এই দিকে করা হয়।

পুজোর সময় শনিদেবের চোখের দিকে তাকাবেন না- মূর্তির সামনে দাঁড়িয়ে শনিদেবের পুজো করা উচিত নয়। এছাড়া পুজোর সময় শনিদেবের চোখের দিকে তাকানো উচিত নয়।

ভোগ নিবেদন করুন- আপনি যদি শনিদেবকে খুশি করতে চান, তাহলে এই দিনে শনিদেবকে তিল, গুড় বা খিচুড়ি নিবেদন করা খুব ভালো বলে মনে করা হয়। এই প্রতিবেদনটি বিশ্বাস এবং তথ্যের উপর লেখা। আজ তক বাংলা এর কোনও তথ্য নিশ্চিত করে না।