scorecardresearch
 
 

মাধ্যমিক-উচ্চমাধ্যমিকের মূল্যায়ন, আজ বিকেলেই জানাতে চলেছে রাজ্য

মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায় (Mamata Banerjee) জানিয়ে দিয়েছেন, মাধ্যমিক (Madhyamik), উচ্চ মাধ্যমিক (Uccha Madhyamik বা HS)-এর মূল্যায়ন পদ্ধতি আজ, শুক্রবার জানিয়ে দেওয়া হবে।

মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিকের মূল্যায়ন পদ্ধতির ব্যাপারে আজ, শুক্রবার জানানো হতে পারে (প্রতীকী ছবি) মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিকের মূল্যায়ন পদ্ধতির ব্যাপারে আজ, শুক্রবার জানানো হতে পারে (প্রতীকী ছবি)
হাইলাইটস
  • মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক নিয়ে মূল্যায়ন পদ্ধতির ব্যাপারে আজ, শুক্রবার জানানো হতে পারে
  • করোনা পরিস্থিতির কারণে এ বার ওই দুই পরীক্ষা হচ্ছে না
  • তবে পড়ুয়াদের যাতে কোনও সমস্যা না হয়, তাই দ্রুত মূল্যায়ন পদ্ধতি ঘোষণার ওপর জোর দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়

মাধ্যমিক (Madhyamik), উচ্চ মাধ্যমিক (Uccha Madhyamik বা HS) নিয়ে মূল্যায়ন পদ্ধতির ব্যাপারে আজ জানানো হতে পারে। বিকেলে সাংবাদিক বৈঠক করবে উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ এবং মধ্যশিক্ষা পর্ষদ। সেখানে মূল্যায়ন পদ্ধতি সম্পর্কে জানানো হচে পারে।

করোনা পরিস্থিতির কারণে এ বার ওই দুই পরীক্ষা হচ্ছে না। তবে পড়ুয়াদের যাতে কোনও সমস্যা না হয়, তাই দ্রুত মূল্যায়ন পদ্ধতি ঘোষণার ওপর জোর দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায় (Mamata Banerjee)।

বৃহস্পতিবার মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায় (Mamata Banerjee) জানিয়ে দিয়েছেন, মাধ্যমিক (Madhyamik), উচ্চ মাধ্যমিক (Uccha Madhyamik বা HS)-এর মূল্যায়ন পদ্ধতি আজ, শুক্রবার জানিয়ে দেওয়া হবে। এদিকে, পরীক্ষা হবে কিনা, সে ব্যাপারে মানুষের মতামত নেওয়ার উদ্য়োগ নিয়েছিল রাজ্য। অনলাইনে নিজেদের মতামত দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছিল।

এর আগে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায় (Mamata Banerjee) জানিয়েছিলেন, মাধ্যমিক (Madhyamik), উচ্চ মাধ্যমিক (Uccha Madhyamik বা HS) নিচ্ছি না। তবে মূল্যায়ন কী করে, তা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ করবে।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায় (Mamata Banerjee) জানান, পরীক্ষা না হলে অনেকের সমস্যা হয়। কোভিড অতিমারী চলছে। মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা বাতিল করলাম।

তিনি জানান, ৩৪ হাজার মতামত এসেছে। মূল্যায়ন কী করে হবে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ, উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ দেখবে।

মমতা জানিয়েছিলেন, যেটা বাচ্চাদের পক্ষে সুবিধা হবে, তা দেখতে হবে। সব রাজ্যই প্রায় একই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সিবিএসই-ও একই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। দেখে নিন, কোনটা প্রায়োরিটি। ৭০ শতাশ নবমের আর ৩০ শতাংশ দশমের, এমন বলেছে বিশেষজ্ঞ কমিটি। এটা মনে হয় উল্টো করে দেখলেও হবে।

মাধ্যমিক পরীক্ষা নেওয়ার বিপক্ষে এসেছে প্রায় ৭৯ শতাংশ মতামত দেওয়া হয়েছে। ৮৩ শতাংশ উচ্চ মাধ্যমিকের বিপক্ষে এসেছে। সবার মতামত গুরুত্বপূর্ণ।

তিনি বলেছিলেন, বিশেষজ্ঞ কমিটিও বলেছে। অনেক স্কুল সেফ হাউজ হয়ে গিয়েছে। ৩৪ হাজার মতামত পেয়েছি। মানুষের মতামতকে গুরুত্ব দিয়ে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। যাই করো সময়ে করবে।

তিনি আরও বলেন, সিবিএসই পরীক্ষা, মূল্যায়ন, উচ্চ মাধ্যমিকের মূল্যায়ন যেন একই সময়ে হয়। কোনওটা আগে হয়ে গেল, এমনটা যেন না হয়। মূল্যায়ন তাড়াতাড়ি করে ফেলতে হবে।