scorecardresearch
 

বঞ্চনা! দুর্গাপুরে মাথা মুড়িয়ে প্রতিবাদ BJP-র তফশিলি জাতি-উপজাতি সংগঠনের

সরকারের বিরুদ্ধে বঞ্চনার অভিযোগ তুলেছে বিজেপি (BJP)-র তপশিলি জাতি ও উপজাতিদের সংগঠন। আর এর প্রতিবাদে নিজেদের মাথা ন্যাড়া করলেন তাঁরা। অভিনব এই প্রতিবাদে হইহই পড়ে গিয়েছে। মঙ্গলবার দুর্গাপুর (Durgapur)-এ। তৃণমূল (TMC)-এর দাবি, রাজ্য সরকার সমাজের সব স্তরের মানুষের জন্য বিভিন্ন প্রকল্প নিয়েছে।

বঞ্চনার অভিযোগ তুলে আন্দোলনে বিজেপির তপশিলি জাতি ও উপজাতিদের সংগঠন। সোমবার দুর্গাপুরে (প্রতীকি ছবি) বঞ্চনার অভিযোগ তুলে আন্দোলনে বিজেপির তপশিলি জাতি ও উপজাতিদের সংগঠন। সোমবার দুর্গাপুরে (প্রতীকি ছবি)
হাইলাইটস
  • সরকারের বিরুদ্ধে বঞ্চনার অভিযোগ তুলেছে বিজেপির তপশিলি জাতি ও উপজাতিদের সংগঠন।
  • আর এর প্রতিবাদে নিজেদের মাথা ন্যাড়া করলেন তাঁরা। অভিনব এই প্রতিবাদে হইহই পড়ে গিয়েছে। মঙ্গলবার দুর্গাপুরে।
  • তৃণমূলের দাবি, রাজ্য সরকার সমাজের সব স্তরের মানুষের জন্য বিভিন্ন প্রকল্প নিয়েছে।

সরকারের বিরুদ্ধে বঞ্চনার অভিযোগ তুলেছে বিজেপি (BJP)-র তপশিলি জাতি ও উপজাতিদের সংগঠন। আর এর প্রতিবাদে নিজেদের মাথা ন্যাড়া করলেন তাঁরা। অভিনব এই প্রতিবাদে হইহই পড়ে গিয়েছে। মঙ্গলবার দুর্গাপুর (Durgapur)-এ। তৃণমূল (TMC)-এর দাবি, রাজ্য সরকার সমাজের সব স্তরের মানুষের জন্য বিভিন্ন প্রকল্প নিয়েছে।

বিজেপি এবং স্থানীয় সূত্রে খবর, প্রাপ্য সুযোগ সুবিধা নিয়ে বঞ্চনা করেছে তৃণমূল সরকার। কথা দেওয়া হয়েছে খালি। কিন্তু কথা রাখা হয়নি। রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে এমনই অভিযোগ তুলেছেন তাঁরা। আর এর বিরুদ্ধে এই অভিনব প্রতিবাদ তাঁদের। বঞ্চনার প্রতিবাদে মঙ্গলবার দুর্গাপুর মহকুমা শাসকের দফতরের সামনে মাথা ন্যাড়া করলেন তাঁরা। সেখানে উপস্থিত শদুয়েক মানুষ ধাপে ধাপে নিজেদের মাথা মোড়ান।

এভাবেই প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করলেন সংগঠনের সদস্যরা। বিজেপির তপশীলি জাতি ও উপজাতি সম্প্রদায়ের সংগঠনের জেলা সভাপতি সুমন্ত মন্ডলের অভিযোগ, বামফ্রন্ট সরকারের সময়ও তাঁরা বঞ্চিত হয়েছিল। আর এখন তৃণমূল সরকার তাদের সঙ্গে একই পথে বঞ্চনা করে গিয়েছে। তাঁদের কথা কেউ ভাবেনি। বিভিন্ন সময় বিভিন্ন রকম প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে। কিন্ত কথা রাখা হয়নি। আর তাই তার প্রতিবাদে মাথা ন্যাড়া করে অভিনব এই প্রতিবাদ কর্মসূচিতে নেমেছেন তারা।

বিক্ষোভ শেষে দাবিদাওয়া নিয়ে স্মারকলিপি তুলে দেওয়া হয় দুর্গাপুরের মহকুমা শাসকের হাতে। অবিলম্বে দাবি না মিটলে লাগাতার আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দিয়ে রেখেছেন আন্দোলনকারীরা। এদিন দুর্গাপুর মহকুমা শাসকের দফতরের সামনে শদুয়েক মানুষ মাথা ন্যাড়া করে এই অভিনব প্রতিবাদ কর্মসূচিতে সামিল হয়েছিলেন।

যদিও বিজেপির এই আন্দোলনকে গুরুত্ব দিতে রাজি নয় পশ্চিম বর্ধমান জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব। তাঁদের পাল্টা অভিযোগ, যা ইচ্ছে করুক বিজেপি। কিন্তু শেষ হাসি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হাসবেন। এদিকে,  দুর্গাপুর মহকুমা শাসকের দফতরের সামনে এই বিক্ষোভ কর্মসূচিকে ঘিরে কোনও রকম অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে তৎপর ছিল পুলিশ-প্রশাসন। এদিন সেখানে প্রচুর পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছিল।