scorecardresearch
 

বিধানসভা নির্বাচন 2021

বিধানসভা নির্বাচন 2021 LIVE RESULTS

'ভোটে স্থগিতাদেশ চাই,' ভবানীপুর-অশান্তি ইস্যুতে দিলীপ

বিধানসভা নির্বাচন 2021

দেশের ৪ রাজ্য-- পশ্চিমবঙ্গ (West Bengal), অসম (Assam), কেরল (Kerala), তামিলনাড়ু (Tamil Nadu) ও কেন্দ্রশাসিত পুদুচেরির (Puducherry) বিধানসভা নির্বাচন ((Legislative Assembly Elections) প্রক্রিয়া শেষ পর্যায়ে। সব রাজ্যে ভোটগণনা হবে ২ মে। তামিলনাড়ু, কেরল ও পুদুচেরিতে এক দফার ভোট হয়েছএ ৬ এপ্রিল। অসমে ৩ দফার ভোট হয়েছে ২৭ মার্চ, ১ এপ্রিল ও ৬ এপ্রিল। পশ্চিমবঙ্গে ভোট হয়েছে ৮ দফায়, ২৭ মার্চ, ১ এপ্রিল, ৬ এপ্রিল, ১০ এপ্রিল, ১৭ এপ্রিল, ২২ এপ্রিল, ২৬ এপ্রিল ও ২৯ এপ্রিল।

পশ্চিমবঙ্গের সঙ্গে অসম, তামিলনাড়ু, পুদুচেরি ও কেরলে বিধানসভা নির্বাচনের রেজাল্টের আগে এগজিট পোল রেজাল্ট সামনে এসে গিয়েছে। India Today-Axis My India এগজিট পোল অনুযায়ী, বিজেপি ও তৃণমূলের মধ্যে কাঁটা কাঁটায় টক্কর। অসমে বিজেপি সরকার গড়ার ইঙ্গিত। এগজিট পোল অনুযায়ী, কেরলে এলডিএফ, তামিলনাড়ুতে ডিএমকে ও পুদুচেরিতে বিজেপি-র নেতৃত্বে এনডিএ সরকার গড়ার ইঙ্গিত।

পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভার কার্যকাল ৩০ মে, ২০২১ পর্যন্ত রয়েছে। এর ফলে ৩০ মে-র আগেই যে কোনও পরিস্থিতিতে সেখানে সরকার গঠনের প্রক্রিয়া শেষ করতে হবে। পশ্চিমবঙ্গে মোট ২৯৪টি বিধানসভা আসন রয়েছে। গত ১০ বছর ধরে সেখানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মুখ্যমন্ত্রীর পদে আসিন রয়েছেন। পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনের (Assembly Elections) জন্য রাজনৈতিক দলগুলিও তাঁদের নিজেদের মত করে প্রচারাভিযানের কাজ শুরু করেছে। কমিশন সূত্রে খবর, ২০২১ সালের ৩০ মে রাজ্য বিধানসভার মেয়াদ শেষ হচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে ৩০মে এর আগে নির্বাচন, ফলাফল ও নতুন সরকার গঠনের প্রক্রিয়া শেষ করতে হবে। পশ্চিমবঙ্গে মোট ২৯৪টি বিধানসভা আসন রয়েছে। ৩৪ বছরের বাম শাসনের অবসান ঘটিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গত দশ বছর ধরে বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর কুর্সিতে রয়েছেন। তবে এবারে রাজ্যে আসর জমিয়েছে বিজেপি। তাই এই নির্বাচন যে হাড্ডাহাড্ডি হতে চলছে তা বলাই বাহুল্য।
 
অন্যদিকে, ১৪০ সদস্যের কেরালার বিধানসভার কার্যকাল ১ জুন শেষ হবে। কমিউনিস্ট পার্টির নেতৃত্বাধীন জোট বাম গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট ২০১৬ এর রাজ্য বিধানসভা নির্বাচনে ৯১ টি আসন জিতেছে। পিনারাই বিজয়ন রাজ্যের দ্বাদশতম মুখ্যমন্ত্রী পদে আসীন রয়েছেন বর্তমানে। কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউনাইটেড ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট দ্বিতীয় অবস্থানে অর্থাৎ রাজ্যের প্রধান বিরোধী দল হিসেবে রয়েছে। এছাড়াও ১২৬ আসনের আসন নিয়ে আসাম বিধানসভার মেয়াদ শেষ হবে চলতি বছরের ৩১ মে। ২০১৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনে, বিজেপি সে রাজ্যে ১৫ বছর ধরে রাজ্যে ক্ষমতাসীন কংগ্রেস শাসনকে পরাজিত করে জয়লাভ করেছিল। ২০১৬ সালের নির্বাচনে (Election) বিজেপি ৮৬টি আসন পেয়েছিল এবং সর্বানন্দ সোনোয়াল রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হন।
 
তামিলনাড়ু বিধানসভার মেয়াদ 24 মে শেষ হচ্ছে। জয়ললিতার নেতৃত্বাধীন এআইএডিএমকে ২৪৮টি আসন নিয়ে তামিলনাড়ু বিধানসভা ২০১৬ সালের নির্বাচনে জয়লাভ করেছিল। ৫ ডিসেম্বর ২০১৬- সালে জয়ললিতার মৃত্যুর পরে, ও পান্নারসেলভম রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হন। তবে তিনি কেবল ৭৩ দিনের জন্য মুখ্যমন্ত্রীর চেয়ারে বসার সুযোগ পেয়েছিলেন। ১৬ ডিসেম্বর ২০১৭ সালে ই. পালানিস্বামী রাজ্যের নতুন মুখ্যমন্ত্রী হন। পুডুচেরির কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে বিধানসভার মেয়াদ শেষ হবে  ৮ জুন। কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউপিএ জোট ৩০-আসনের পুডুচেরি বিধানসভার ২০১৬ সালের নির্বাচনে জয় লাভ করেছিল। ইউপিএ মোট ১৭টি আসন জিতেছে, যার মধ্যে কংগ্রেস একাই ১৫টি আসন জিতেছে। প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী এবং প্রবীণ কংগ্রেস নেতা ভি নারায়ণস্বামী পুডুচেরির মুখ্যমন্ত্রী পদে আসীন রয়েছেন।