scorecardresearch
 

একুশেই খেলা হবে, আমি গোলরক্ষক, দেখব কারা হারে, কারা জেতে ! BJP-কে খোলা চ্যালেঞ্জ মমতার

কলকাতায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, আমার বাষা শিখিয়েছে। বীরের মতো, বাঘের বাচ্চার মতো লড়বি। যাতে বাঘ বিড়াল, ইঁদুরকে দেখে ভয় না পায়। একুশেই খেলা হয়। একুশেই খেলা হবে, আমি গোলরক্ষক। দেখব কারা হারে, কারা জেতে। জেল গেলে সেখান থেকে ডাক দেব জয় বাংলা।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রবিবার কলকাতায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রবিবার কলকাতায়
হাইলাইটস
  • একুশেই খেলা হবে
  • আমি গোলরক্ষক। দেখব কারা হারে কারা জেতে
  • কলকাতায় কারও নাম না-করে বিজেপির দিকে এই চ্যালেঞ্জ ছুড়লেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়

একুশেই খেলা হবে। আমি গোলরক্ষক। দেখব কারা হারে কারা জেতে। জেল যেতে হলে সেখান থেকে ডাক দেব জয় বাংলা। রবিবার কলকাতার দেশপ্রিয় পার্কে কারও নাম না-করে বিজেপির দিকে এই চ্যালেঞ্জ ছুড়লেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়।

এদিন কলকাতায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, আমার বাষা শিখিয়েছে। বীরের মতো, বাঘের বাচ্চার মতো লড়বি। যাতে বাঘ বিড়াল, ইঁদুরকে দেখে ভয় না পায়। একুশেই খেলা হয়। একুশেই খেলা হবে, আমি গোলরক্ষক। দেখব কারা হারে, কারা জেতে। জেল গেলে সেখান থেকে ডাক দেব জয় বাংলা।

তিনি আরও বলেন, আমরা হারব না, হারতে আমরা শিখিনি, মাতৃভাষা দিবসে এটাই আমাদের শপথ। আমাদের বাঁচতে হবে, লড়তে হবে। জিততে হবে। জেলটেল দেখিয়ে ভয় দেখাবেন না। আরও বলছে  বাঙালির মেরুদন্ড কী করে ভেঙে দিতে হয় জানি। আসুন দেখি, আসুন, ভেঙে দেখান।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, বন্দুকের সঙ্গে লড়াই করে এসেছি, র্যাটের কাছে ভয় পাব কেন? প্রাণ থাকলে ভয় পাব না। মেরুদন্ড ভাঙা, চোখ উপড়ে দেওয়া অত সহজ নয়। বাঙালি জাতিকে বিশ্রুত করে দেওয়া এত সহজ না। সব ভাষাকে ভালবাসব। এক জোরে কথা বলতে পারি কেন জানেন? এ ভাষা আমার অলঙ্কার, ভাষার সৌন্দর্য। আমার ভাষা শিখিয়েছে, বীরের মতো, বাঘের বাচ্চার মতো লড়বি, বিডাল, ইঁদুরকে দেখে ভয় না পায়।

কেন্দ্রের বঞ্চনার বিরুদ্ধ সোচ্চার হন মমতা। দাবি করেন, বাংলার প্রতি বিমাতৃসুলভ, বঞ্চনা করা হচ্ছে। কোনও বাঙালি বড় হয়ে গেলে তাঁকে নীচে নামিয়ে দেওয়া হয়। নেতাজি,, শ্যামাপ্রসাদক, রামকৃষ্ণকে রেয়াত করা হয়নি। রামমোহনকেও নয়। এ জিনিস কেন? বলা দেওয়া হয় বাংলা! ওটা তো সব থেকে খারাপ। বাঙাল, কাঙাল বলে বেড়াচ্ছে। কত কী বলছে। 

তিনি বলেন, ভাষা মনের আবেগের কাছের, হৃদয়ে লেখা। সব ভাষাকে সম্মান জানান। বাংলাকে ভালবাসি বলে অন্য ভাষাকে অশ্রদ্ধা নয়। বাংলাকে ভালবাসি বলেই বাকিগুলিকেও শ্রদ্ধা জানাই। বাংলাকে 'বংগাল' বলব কেন? 

ওই অনুষ্ঠানে তিনি আরও বলেন, বাংলা আমার মা। বাংলাকে আমি বাংলা বলব। রাজ্যের নাম পরিবর্তন নিয়ে তিনি বলেন, আমরা বাংলা রাখতে চেয়েছিলাম। তবে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক থেকে  জানানো হল একটাই হবে। আবার পাঠালাম, 'বাংলা', তিন ভাষাতেই তাই হোক। ৪ বছর বয়ে গেল। আমি জানি না কেন হল না।

তিনি আরও বলেন, বাংলাকে সুড়সুড়ি দেয়, গড়াগড়ি দেয়, গঞ্জনা করে, একবার ভেবে দেখলেন না, রাজ্যের সঙ্গে বাংলা শব্দটা ওতপ্রোত ভাবে জড়িয়ে আছে। বাংলাদেশ রয়েছে, ওটা তো দেশ। তা হলে বলতে হয়, পাকিস্তানে পঞ্জাব রয়েছে। তা হলে আর একটা পঞ্জাব থাকল কী করে?

মমতা বলেন, বাঙালি কলম চালায়,মেধাও চালায়। আমার সোনার ভারত ফিরিয়ে দাও। ভাগাভাগি করে বাঁচতে চাই না। বাংলাকে যত বঞ্চনা করবেন, তত বেশি করে বলবেন জয় বাংলা।